তাঁবুতে বসবাসকারী ১১০০ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে দিল্লিতে ফ্ল্যাট দিচ্ছে মোদী সরকার

49
তাঁবুতে বসবাসকারী ১১০০ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে দিল্লিতে ফ্লাট দিচ্ছে মোদী সরকার
তাঁবুতে বসবাসকারী ১১০০ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে দিল্লিতে ফ্লাট দিচ্ছে মোদী সরকার

তাঁবুতে বসবাসকারী রোহিঙ্গা শরণার্থী-দের দিল্লিতে ফ্ল্যাট দিচ্ছে মোদী সরকার। এই ঘোষণার পরেই প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে CAA-NRC কি বাতিল করে দিল কেন্দ্র? তাঁবুতে থাকা প্রায় ১১০০ রোহিঙ্গা শরণার্থী, দিল্লিতে মৌলিক সুযোগ-সুবিধা এবং দিল্লি পুলিশের সর্বক্ষণ নিরাপত্তার সঙ্গে সজ্জিত, একটি ছাদ পাবেন। মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে, টুইট করেছেন কেন্দ্রের আবাসন মন্ত্রী হরদিপ সিং পুরি। রোহিঙ্গাদের আবাসন নিয়ে, দিল্লিতে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

দিল্লির মুখ্যসচিবের সভাপতিত্বে বৈঠকে দিল্লি সরকার, দিল্লি পুলিশ এবং কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের উচ্চপর্যায়ের আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। এই রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের শীঘ্রই আউটার দিল্লির বক্করওয়ালা গ্রামে, নতুন দিল্লি মিউনিসিপ্যাল ​​কাউন্সিল (NDMC) ফ্ল্যাটে স্থানান্তরিত করা হবে। অর্থনৈতিক দুর্বল বিভাগ (EWS) বিভাগের অন্তর্গত, মোট ২৫০টি ফ্ল্যাট রয়েছে। যেখানে এই ১১০০ জন রোহিঙ্গার থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে, যারা এখন মদনপুর বস্তিতে বসবাস করছে। আর এরপরেই শুরু হয়েছে, জোর বিতর্ক। তাহলে কি কেন্দ্র সরকার CAA বাতিল করে দিল? প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

আরও পড়ুনঃ ‘উন্নততর বামফ্রন্ট’ আর ‘নতুন তৃণমূল’, দুটোকেই ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে বাংলার মানুষ

কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগর-উন্নয়ন মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে, এটিকে ‘ল্যান্ডমার্ক সিদ্ধান্ত’ বলে ঘোষণা করেছেন। ইতিমধ্যেই দিল্লি সরকারকে ফ্ল্যাটগুলিতে মৌলিক সুবিধা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং এটি ‘ফরেন রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিস’-এর আন্ডারে দেওয়া হয়েছে, যাতে এইসব ফ্ল্যাটে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্থানান্তরকে সহজ করবে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন