ইন্টেলিজেন্স অফিসার অঙ্কিত শর্মা হ’ত্যায়, মূল অভিযুক্ত মুন্তাজিম মুসা গ্রেফতার

137
ইন্টেলিজেন্স অফিসার অঙ্কিত শর্মা হ'ত্যায়, মূল অভিযুক্ত মুন্তাজিম মুসা গ্রেফতার
ইন্টেলিজেন্স অফিসার অঙ্কিত শর্মা হ'ত্যায়, মূল অভিযুক্ত মুন্তাজিম মুসা গ্রেফতার

ইন্টেলিজেন্স অফিসার অঙ্কিত শর্মা হ’ত্যায়, মূল অভিযুক্ত মুন্তাজিম মুসা গ্রেফতার। দেশের একজন ফাইনেস্ট ইন্টেলিজেন্স অফিসারকে, ৪০০ বার চাকু দিয়ে কো’পা-নোর অভিযোগ আছে এই মুন্তাজিম মুসার নামে। দীর্ঘ আড়াই বছর পরে, সে ধরা পরেছে তেলেঙ্গানার হায়দ্রাবাদ থেকে। IB অফিসার অঙ্কিত শর্মা হ’ত্যা মামলায়, দিল্লী পুলিশের স্পেশ্যাল সেল প্রথমে সলমান নামের এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে, পরে আরও কয়েকজনকে গ্রেফতার করে। কিন্তু আসল কালপ্রিটের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। এবার গ্রেফতার সেই মুন্তাজিম মুসা।

পুলিশের তদন্ত অনুযায়ী ২০২০ সালের দিল্লির ঘটনার সময়, আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মার মুখে কাপড় বেঁধে, অভিযুক্ত তাহির হুসেনের বাড়িতে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গেছিল ক’ট্টর-পন্থীরা। এরপর তাঁকে উ’লঙ্গ করে, নির্মম ভাবে হ’ত্যা করেছিল। ৪০০ বার চাকু দিয়ে কোপানো হয়েছিল তাঁকে। হ’ত্যার পর অঙ্কিত শর্মার দেহকে, নর্দমায় ফেলে দেওয়া হয়েছিল।

দিল্লিতে শান্তি বজায় রাখার জন্য, আবেদন করেছিল অঙ্কিত। আর তাঁকেই আইএস-আইএস ধাঁচে নির্মম ভাবে হ’ত্যা করে দেয় দা’ঙ্গা-বাজেরা। তাঁর পোস্টমর্টেম রিপোর্টে, ৪০০ এর বেশি ছু’রির আঘাত পাওয়া গেছিল। শরীরে প্রতিটি অংশেই চা’কু দিয়ে আ’ঘাত করা হয়েছিল। চা’কুর আ’ঘাতে না’ড়ি-ভুঁড়ি পর্যন্ত বেরিয়ে এসেছিল অঙ্কিতের।

অঙ্কিতের পোস্টমর্টেম করা ডাক্তার-রা বলেছিলেন, “আজ পর্যন্ত এত নির্মমতা কারোর সঙ্গে হয়েছে আমরা দেখিনি”। চিকিৎসকরা বলেছেন, “অঙ্কিত শর্মাকে একবারে হ’ত্যা করে মা’রা হয়নি। প্রায় ৫-৬ ঘন্টা ধরে অঙ্কিত শর্মাকে নির্যা’তন করা হয়েছিল। অঙ্কিত শর্মার গ’লা, অর্ধেক কে’ টে ফেলে হয়েছিল। যাতে বেশি করে কষ্ট দেওয়া যায়। শুধু এই নয়, অঙ্কিত শর্মাকে ৪০ থেকে ৫০ জন ক’ট্টর-পন্থী ঘিরে রেখেছিল এবং লাঠি দিয়ে আঘাত করেছিল। লাঠি দিয়ে মারধর করে, প্রথমে অঙ্কিত শর্মার শরীরে সব হাড় ভে’ঙে দেওয়া হয়।

অঙ্কিতের দেহ ২৬ ফেব্রুয়ারি, চাঁদবাগের একটি নর্দমা থেকে উদ্ধার হয়েছিল। মৃতদেহ এতটাই খারাপ অবস্থায় ছিল যে, সবার মনে আ’তঙ্ক সৃষ্টি হয়েছিল। অঙ্কিতের পরিবারের FIR এ, আপ-কাউন্সিলর তাহির হুসেইনের নাম ছিল। অঙ্কিতের বাবা FIR এ লিখেছিলেন যে, “পরিচয় লোকানোর জন্য অঙ্কিতের মুখ জ্বা’লিয়ে দিয়েছিল ওঁরা”। সেই কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত মুন্তাজিম মুসা-কে গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিশ। তার ও নৃশংস হ’ত্যাকারী-দের ফাঁ’সি চায়, অঙ্কিত শর্মার পরিবার।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন