সীমান্তে শহীদ জওয়ানের বোনের বিয়েতে হাজির বায়ুসেনার গরুড় কম্যান্ডোরা

949
সীমান্তে শহীদ দাদার বোনের বিয়েতে হাজির বায়ুসেনার জওয়ানরা/The News বাংলা
সীমান্তে শহীদ দাদার বোনের বিয়েতে হাজির বায়ুসেনার জওয়ানরা/The News বাংলা

জংগীদের গুলিতে দু বছর আগে ২০১৭ সালে; শহীদ হয়েছিলেন কমান্ডো জ্যোতিপ্রকাশ নিরালা। জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াইয়ে শহীদ হন ভারতীয় বায়ুসেনার গরুড় কম্যান্ডো জ্যোতিপ্রকাশ। অসাধারণ সাহসিকতার ও বীরত্বের জন্য পেয়েছেন মরনোত্তর অশোক চক্র সম্মানও।

কিন্তু তারপর কেটে গেছে অনেকদিন; স্মৃতির আড়ালে চলে গেছে শহীদের পরিবার। সাধারণত প্রতি ক্ষেত্রে যা হয়; তেমন ঘটেছিল কম্যান্ডো জ্যোতিপ্রকাশ নিরালার পরিবারের সাথেও। পরিবারের একমাত্র চাকুরিজীবী ছেলে শহীদ হওয়ার পর; চরম আর্থিক সংকটে ভুগছিল জ্যোতিপ্রকাশের পরিবার।

আরও পড়ুনঃ মাইনাস ২০ ডিগ্রিতে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন ভারতীয় জওয়ানদের

দেশের জনগণ ভুলে গেলেও; শহীদ জওয়ান জ্যোতিপ্রকাশের এক সময়ের সহকর্মী ও বন্ধুরা ভুলে যাননি পরিবারটিকে। শহীদ জওয়ান জ্যোতিপ্রকাশের অবর্তমানে; তাঁর বোনের বিয়ের সমস্ত ব্যবস্থা করলেন সেই জওয়ানরাই।

বিয়ের দিন জ্যোতিপ্রকাশের বাড়ীতে হাজির হয়ে বোন কে বিয়ে দিয়ে শ্বশুর বাড়ী পাঠালেন ৫০ জন জওয়ান। অভূতপুর্ব এই ঘটনার সাক্ষী থাকল বিহারের রোহতাসের বাদিলাডিহ গ্রাম। দায়িত্ব নিয়ে; দাঁড়িয়ে থেকে বোনের বিয়ের শুভ কাজ সম্পন্ন করলেন তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা, মৃতদেহ নিয়ে মিছিল বিজেপির

গত সপ্তাহে; শহীদ গরুড় কমান্ডো জ্যোতিপ্রকাশ নিরালার বোনের বিয়ে ছিল। শহীদ সহকর্মীর বোনের বিয়ের খবর পেয়ে; সটান বিয়ে বাড়ীতে হাজির হয়ে যান দাদার ৫০ জন সহকর্মী জওয়ান। প্রথা অনুযায়ী; দু’টি লাইনে ভাগ হয়ে হাঁটু মুড়ে মাটিতে হাত রেখে; তালু উপরের দিকে ঘুরিয়ে বোনকে ছাদনাতলায় পৌঁছে দেন ৫০ জন জওয়ান।

জীবনের শেষদিনেও দেশরক্ষার দায়িত্ব পালন করেছিলেন জ্যোতিপ্রকাশ। পাঁচ জঙ্গিকে নিকেশ করে মৃত্যুবরণ করেছিলেন তিনি। ২০১৮-এর প্রজাতন্ত্র দিবসে শহীদ জওয়ানকে সম্মান জানিয়েছিল কেন্দ্র।

আর্থিক অসচ্ছলতার কারনে; মেয়ের বিয়ে দেওয়ার সামর্থ ছিল না তাঁদের। তখনই পরিবারের পাশে দাঁড়ায় জ্যোতিপ্রকাশের এক সময়ের সহকর্মীরা। পরিবারের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন বায়ুসেনার গরুড় কম্যান্ডো বাহিনীর জওয়ানরা।

গরুড় ফোর্সের প্রত্যেক জওয়ান ৫০০ টাকা করে দিয়ে, মোট পাঁচ লক্ষ টাকা তুলে দেন শহীদের পরিবারের হাতে। সেই টাকা দিয়েই সম্প্রতি পাটনায় শুভবিবাহ সম্পন্ন হয়েছে শহীদ জ্যোতিপ্রকাশের বোনের। বায়ুসেনার এই উদ্যোগে দেশের মানুষের কাছে আবারও প্রমান হল; সীমান্তে যারা দেশকে রক্ষা করে তাঁদের জায়গা অনেক উঁচুতে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন