যে কোন মুহূর্তে গ্রেফতার হবেন রাজীব কুমার

1487
রাজীব কুমার নিয়ে কি নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট/The News বাংলা
রাজীব কুমার নিয়ে কি নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট/The News বাংলা

সুপ্রিম কোর্টে জোর ধাক্কা খেলেন মমতার প্রিয় অফিসার; আইপিএস ও কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। যে কোন দিনই গ্রেফতার হবেন রাজীব কুমার। রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করা যাবে না; এই রক্ষাকবচ তুলে নিল দেশের শীর্ষ আদালত। এর ফলে প্রবল চাপে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় পুলিশ অফিসার।

তবে সাত দিন সময়সীমা; দেওয়া হয়েছে রাজীব কুমারকে। এর মধ্যে তিনি আগাম জামিনের আবেদন করতে পারবেন। তবে শুক্রবার থেকেই রাজীব কুমারকে নজরবন্দী করে রেখেছে সিবিআই। নিজেদের হেফাজতে নিয়ে এবার রাজীব কুমারকে; জেরা করতে পারবে সিবিআই।

আরও পড়ুনঃ বাংলা থেকে সরিয়ে রাজীব কুমারকে পাঠান হল দিল্লির স্বরাষ্ট্র দফতরে

রাজীব কুমারকে নিয়ে সিবিআই মমতা; বা রাজ্য কেন্দ্র সংঘর্ষ অনেক দিন ধরেই চলছে। গত বুধবার নির্বাচন কমিশন; সেই আগুনে ঘৃতাহুতি দিয়েছে বলাই যায়। এডিজি সিআইডির পদ থেকে সরিয়ে; রাজীব কুমারকে বাংলা ছাড়া করেছে নির্বাচন কমিশন।

বাংলা থেকে সরিয়ে রাজীব কুমারকে পাঠান হয়েছে দিল্লিতে; কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতরে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় তাঁকে হাজিরা দিতে হবে; দিল্লিতে স্বরাষ্ট্র দফতরে, এমনটাই নির্দেশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। এবার তাঁর রক্ষাকবচ তুলে নিল দেশের শীর্ষ আদালত। এর ফলে প্রবল চাপে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় পুলিশ অফিসার।

সারদা কাণ্ডে তাঁকে নিয়ে উত্তাল হয়; রাজ্য তথা দেশের রাজনৈতিক মহল। সিবিআই লাউডন স্ট্রিটে তাঁর বাসভবনে হানা দেওয়ার পর; সিবিআই কর্তাদের বাড়ির ভিতর ঢুকতে বাধা দেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা। তারপর সিবিআই কর্তাদের ধাক্কা মারতে মারতে; থানায় নিয়ে যান কলকাতা পুলিশের কর্তারা।

পুলিশ কমিশনারের বাড়িতে সিবিআই হানার প্রতিবাদে; ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলে ধর্নায় বসে যান স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা। ধর্নামঞ্চে পৌঁছে যান স্বয়ং রাজীব কুমারও।

আইপিএস জীবন শুরু থেকেই; তিনি রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গতে। ২০১৬ সালে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের জায়গায়; তিনি কলকাতা পুলিশ কমিশনার হন। ২০১৩ সালে চিটফান্ড কেলেঙ্কারী মামলায়; রাজ্য সরকার যে বিশেষ তদন্তকারী দল তৈরি করেছিল; তার দায়িত্বে ছিলেন রাজীব কুমার।

এবার তাঁকে পাকাপাকি ভাবে বাংলা ছাড়া করেছে নির্বাচন কমিশন। আর গ্রেফতার করা যাবে না; রক্ষাকবচ তুলে নিল সুপ্রিম কোর্ট। ফলে এবার সব দিক দিয়ে চরম বিপদে পড়লেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন