“একজন অসুস্থ মানুষকে এভাবে জোর করে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়”, প্রতিক্রিয়া সৌগত রায়ের

50
"একজন অসুস্থ মানুষকে এভাবে জোর করে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়", প্রতিক্রিয়া সৌগত রায়ের

“একজন অসুস্থ মানুষকে এভাবে জোর করে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়”, অনুব্রত মণ্ডল কে সিবিআইএয়র গ্রেফতার নিয়ে এভাবেই প্রতিক্রিয়া দিলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের পর, তৃণমূলের আরও এক হেভিওয়েট নেতা কেন্দ্রীয় এজেন্সির জালে। গরুপাচার মামলায় সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার, বীরভূম জেলার তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। “সিবিআই এর সমন এড়াতেই পারে। জিজ্ঞাসাবাদ করুক, ঠিক আছে। কিন্তু একটা অসুস্থ মানুষকে এভাবে জোড় করে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়”, এদিন এরকম প্রতিক্রিয়া দিলেন তৃণমূল নেতা সৌগত রায়।

গতকাল হাজিরা এড়ানোর পর আজ সকালে আদালতের নির্দেশনামা ও মেডিক্যাল রিপোর্ট নিয়ে, বোলপুরের নীচুপট্টিতে বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতির বাড়িতে পৌঁছে যান সিবিআই অফিসাররা। অনুব্রতর বাড়ি ঘিরে ফেলে কেন্দ্রীয় বাহিনী। বাড়িতে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন, সিবিআই আধিকারিকরা। বাড়ির সকলের মোবাইল ফোন নিয়ে নেওয়া হয়। ঘণ্টা খানেক জিজ্ঞাসাবাদের পর, অনুব্রত মণ্ডলকে গ্রেফতার করে, আসানসোল আদালতের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুনঃ বাবার মুদির দোকানে কাজ করা কেষ্ট, কিভাবে হলেন বীরভূমের ‘বেতাজ বাদশা’

‘চোর চোর, গরু চোর’, অনুব্রতকে গ্রেফতারের কনভয় দেখে চিৎকার স্থানীয়দের। গরুপাচার মামলায় গ্রেফতার অনুব্রত মণ্ডল। এদিন গ্রেফতারের পর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়, আসানসোলের ECL-এর গেস্ট হাউসে। সেখানে নিয়ে যাওয়ার সময়, রাস্তায় কুলটিতে ‘গরু চোর’ স্লোগান দেন স্থানীয়রা। গত সোমবার SSKM হাসপাতালেও একই ছবি দেখা যায়। সেখানেও ‘গরু চোর’ স্লোগান দেন রোগীর আত্মীয়রা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন