নবান্ন অভিযান, “পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত”, একযোগে মমতা অভিষেক

38
নবান্ন অভিযান,
নবান্ন অভিযান, "পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত", একযোগে মমতা অভিষেক

নবান্ন অভিযান, “পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত”, একযোগে বললেন মমতা অভিষেক। বিজেপির নবান্ন নিয়ে একযোগে মুখ খুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। “পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত”, বিজেপির নবান্ন অভিযান নিয়ে বুধবার পূর্ব মেদিনীপুরের প্রশাসনিক বৈঠকে এমনই মন্তব্য করলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আহত পুলিশ কর্মীদের দেখে এসে, সেই একই মন্তব্য করলেন, তৃণমূল সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

মঙ্গলবার নবান্ন অভিযান ঘিরে, রণক্ষেত্রে পরিণত হয় কলকাতা, হাওড়া। পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়, আন্দোলনরত বিজেপি কর্মীদের। তাঁরা ব্যারিকেড ভেঙে ফেলে, পুলিশের গাড়িতে আগুনও ধরিয়ে দেয়। সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী ও বিজেপি কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছেন। সেই নবান্ন অভিযান নিয়েই, এদিন বিজেপিকে নিশানা করেন মমতা। তিনি বলেন, “বিজেপির নবান্ন অভিযানে মানুষের ভোগান্তি হয়েছে, সমাজবিরোধী কাজ রাজনীতিতে খাপ খায় না। পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত, কিন্তু এটা কাম্য নয়। শান্তিপূর্ণভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে”।

আরও পড়ুন; বিজেপির নবান্ন অভিযান, ‘কত লোক’, মিলছে না মমতা ও অভিষেকের বক্তব্য

একই কথা বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এসএসকেএম হাসপাতালে আহত পুলিশ কর্মীদের দেখে বেরিয়ে এসে অভিষেক বলেন, “পুলিশকে কুর্নিশ, তারা অত্যন্ত সংযম দেখিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেছে। তারা চাইলেই গুলি চালাতে পারত। পুলিশ অত্যন্ত ধৈর্যর পরিচয় দিয়েছে”। “গাড়ি পোড়াবার পেট্রোল কোথা থেকে পেল, লোহার রড নিয়ে পুলিশের উপর হামলা হয়েছে”, সাংবাদিকদের বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন