বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে মমতার সন্দেহকে হাতিয়ার পাক মিডিয়ার

856
বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে মমতার দাবিকে হাতিয়ার পাক মিডিয়ার/The News বাংলা
বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে মমতার দাবিকে হাতিয়ার পাক মিডিয়ার/The News বাংলা

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর থেকেই প্রত্যাঘাতের জন্য কেন্দ্র সরকারের ওপর ক্রমশ চাপ বাড়া এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬শে ফেব্রুয়ারি ভারতীয় বায়ুসেনার তরফ থেকে পাকিস্তানের ৮০ কিলোমিটার অভ্যন্তরে ঢুকে বালাকোটে সহ তিন জায়গায় সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালান হয়। বায়ুসেনার তরফে জানানো হয়, এতে মাসুদ আজহারের দাদা, ভাই এবং শ্যালক সহ ৩০০-৩৫০ জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। বায়ুসেনা প্রধান পরিস্কার জানিয়ে দেন, সব প্রমাণ সরকারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বন্দি হয়েও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দন এর সাহস দেখে কেঁপে গেল পাকিস্তান

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকালই এই মৃতদেহের সংখ্যা ও বায়ুসেনার ঠিক জায়গায় বোমা ফেলা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। সেই সঙ্গে এই অপারেশনের প্রমান দেখাতে বলেছেন। এর আগে মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ তুলে মন্তব্য করেছিলেন, পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদী হানা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সব কিছুই জানতেন। জেনেশুনেও তিনি জওয়ানদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন নি। ভারতের প্রথম শ্রেনীর একটি সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত মমতার মন্তব্যের এই খবরকেই হাতিয়ার করেছে পাকিস্তানের প্রথম শ্রেনীর সংবাদমাধ্যম “দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন”।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের হাতে যুদ্ধবন্দি ভারতের যুদ্ধবিমান পাইলট উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন

পাকিস্তানের এই পত্রিকায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর এই অভিযোগকেই তুলে ধরা হয়েছে। পুলওয়ামায় জঙ্গিহানার পরেই পাকিস্তানের দিকে আঙুল তুলে কাশ্মীরে ৪৯ জন জওয়ানের মৃত্যুর জন্য দায়ী জইশ ই মুহম্মদ জঙ্গি সংগঠনকে পাকিস্তানের মদত দানের অভিযোগ তোলা হয়। ঠিক তার পরের দিনই মুখ্যমন্ত্রীর তরফে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয় যে, নরেন্দ্র মোদী এই হামলার জন্য দায়ী এবং জেনে শুনেও প্রধানমন্ত্রী এই আক্রমণ ঠেকানোর কোনো ব্যবস্থা করেননি।

আরও পড়ুনঃ যা হয়েছে তা ট্রেলার, আসল ফিল্ম এখনও বাকি বললেন নরেন্দ্র মোদী

পুলওয়ামার আক্রমন ঠেকাতে প্রধানমন্ত্রী মোদী কোন ব্যবস্থা নেয়নি কেন, মমতার এই দাবিকে হাতিয়ার করেছে সংবাদমাধ্যমটি। উল্লেখ্য, এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও বলেছিলেন, গোয়েন্দা বিভাগ আগে থেকে সতর্ক করা সত্ত্বেও কিভাবে কোন চেকিং ছাড়াই গাড়িগুলোকে সাধারণ ভাবে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছিলো? ভোটে জেতার জন্যই নরেন্দ্র মোদী যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা শুরু করেছেন বলে অভিযোগ জানান মমতা, যা ঐ পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ যুদ্ধের উত্তেজনা ভারত পাক সীমান্তে নামল ট্যাঙ্ক, সমুদ্রে প্রস্তুত যুদ্ধজাহাজ

পুলওয়ামার হামলার বাইরেও আরও কিছু বক্তব্যকে তুলে ধরা হয়েছে “দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন” নামের পাক সংবাদমাধ্যমে। উল্লেখ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিছুদিন আগেই বিজেপির বিরুদ্ধে পয়সা ঢেলে নেতা কেনার অভিযোগ তোলেন। বোরখা পরিয়ে ছেলেধরা সাজিয়ে বাচ্চা চুরির ঘটনা রটিয়ে দাঙ্গা লাগানোর অভিযোগও তোলেন তিনি। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টের এই সমস্ত ইস্যুকেই হাতিয়ার করা হয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমে। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম হাতিয়ার করায় নিন্দায় সরব হয়েছেন ভারতীয়রা।

আরও পড়ুনঃ ভারতের কূটনৈতিক চাপে পাকিস্তান ফেরাচ্ছে পাইলট অভিনন্দনকে

আর এবার বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়েও মমতার সন্দেহকে হাতিয়ার করল পাক মিডিয়া। জানান হয়েছে, ‘ভারত সরকারের দাবি কতটা ভুয়ো তা প্রমাণ করে দিল ভারতেরই একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী’। আর এতেই বিশ্ব জুড়ে মুখ পুড়েছে দেশের। পাকিস্তান হাতিয়ার করেছে মমতার এই সন্দেহকেই।

আরও পড়ুনঃ ফের ভারতের আকাশে পাক বিমান, জবাব পেয়ে ঘুরে পালাল
আরও পড়ুনঃ যুদ্ধ লাগলে বাঁচতে সীমান্তে ১৪ হাজার বাঙ্কার নির্মাণ করছে ভারত
আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানে ভারতের বিমানহানার সময় জন্ম নবজাতকের নাম মিরাজ

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন