ফণী মিটতেই সুন্দরবনে ত্রাণ লুঠের অভিযোগে কাঠগড়ায় তৃণমূল

616
ফণী মিটতেই সুন্দরবনে ত্রাণ লুঠের অভিযোগে কাঠগড়ায় তৃণমূল/The News বাংলা
ফণী মিটতেই সুন্দরবনে ত্রাণ লুঠের অভিযোগে কাঠগড়ায় তৃণমূল/The News বাংলা(File Shot)

ফণী মিটতেই; সুন্দরবনে ত্রাণ লুঠের অভিযোগে কাঠগড়ায় তৃণমূল। ফনীর দুর্যোগ কেটে গিয়েছে। কিন্তু আতঙ্ক কাটছে না সুন্দরবন লাগোয়া মিনাখাঁর বাসিন্দাদের। স্থানিয় শাসক দলের ক্যাডার ও তাদের আশ্রিত সমাজবিরোধীদের হুমকিতে; আতঙ্ক গ্রাস করেছে কয়েক হাজার বাসিন্দাদের। দুর্যোগের মধ্যে তাদের ত্রান থেকে বঞ্চিত করে; ত্রান লুঠ হয়েছে বলে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ।

ফনীর দুর্যোগ মোকাবিলায় সাইক্লোন আছড়ে পড়ার আগেই অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের জন্য; ১০০০ কোটি টাকার ওপর বরাদ্দ করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু স্থানিয় প্রশাসনের তরফে কোনও সাহায্যই পেলেন না; সুন্দরবনের কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা। ফনী আছড়ে পড়ার আগেই ত্রাণশিবির গুলোতে আশ্রয় নিয়েছিলেন কয়েক হাজার বাসিন্দা।

আরও পড়ুনঃ মমতার যাওয়ার রাস্তায় জয় শ্রী রাম ধ্বনি দিয়ে আটক ৩ বিজেপি কর্মী

এরই মধ্যে মিনাখাঁর মোহনপুর পঞ্চায়েতের ডি এইচ হাইস্কুলে আশ্রিতদের; শুক্রবার সারাদিন ত্রাণ না দেবার অভিযোগ ওঠে। স্থানিয় প্রশাসন তাদের সাথে কোনও প্রকার সহযোগিতা করছে না; বলে অভিযোগে সরব হন শিবিরে আশ্রিত প্রায় শতাধিক ব্যক্তি। তাদের খাবার দেওয়া হচ্ছে না; বলে তারা অভিযোগ করেন।

এমনকি সাহায্য ও খাবারের কথা বলা হলে; খারাপ ব্যবহার করার অভিযোগ তোলা হয়। শুক্রবার রাত থেকেই; অনেকে না খেয়ে রয়েছেন বলে জানানোও হয়। পঞ্চায়েত প্রধানকে ঘটনাটি জানানো হলেও; তিনি এই ব্যাপারে কোনো ভ্রূক্ষেপ করেননি বলেই অভিযোগ। স্থানিয় তৃণমূল সভাপতি সায় দিলেই; ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়।

আরও পড়ুনঃ কলকাতাকে ফণীর হাত থেকে বাঁচাল কলকাতা নিজেই, রহস্য গরম

এদিকে সমস্যা বাড়তে থাকায় শাসক দলের অধীনে থাকা স্থানিয় সমাজবিরোধী ও সিভিক ভলান্টিয়াররা শিবিরে এসে আশ্রয় নেওয়া মানুষকে; হুমকি দিতে শুরু করে বলেই অভিযোগ জানিয়েছেন বাসিন্দারা। তাদেরকে আশ্রয় শিবির ছেড়ে চলে যাওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়। ভয় পেয়ে ত্রাণের সাহায্য ছাড়াই অনেকে শিবির ত্যাগ করতে বাধ্য হন। কোনও প্রকার সরকারি সাহায্যই তাদের জোটেনি বলে জানান বাসিন্দারা। প্রশাসনের তরফে যদিও ত্রাণ থেকে বঞ্চনার অভিযোগকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয়েছে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন