রাজ্যের মন্ত্রীর দেহরক্ষী রহস্যজনক ভাবে গুলিবিদ্ধ

385

পূর্ব মেদিনীপুর: পরিবহমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর দেহরক্ষী গুলিবিদ্ধ। গুলিবিদ্ধ ওই পুলিশকর্মীর নাম শুভব্রত চক্রবর্তী। ওই পুলিশ কর্মীর মাথায় গুলি লেগেছে। কি কারণে এই ঘটনা ঘটল তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। ওই পুলিশ কর্মীকে গুরুতর আহত অবস্থায় কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুভেন্দু অধিকারীর দেহরক্ষী শুভব্রত চক্রবর্তী তাঁর পাইলট কারের রক্ষী ছিলেন বলে জানা গেছে। এদিন সকালে তাঁর মাথায় গুলি লাগে। কি করে মন্ত্রীর দেহরক্ষীর মাথায় গুলি লাগলো তা নিয়ে হইচই পরে গেছে রাজ্য প্রশাসনে। প্রাথমিক তদন্তে পর পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ওই পুলিশ কর্মী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।

এটি আত্মহত্যা নাকি দুর্ঘটনায় গুলি ছিটকে গিয়ে দেহরক্ষীর মাথায় লেগেছে তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে এই নিয়ে এখনও মুখ খুলতে চান নি জেলা পুলিশের কর্তারা।

এর আগেও শুভেন্দু অধিকারীর পাইলট কার ও লরির ধাক্কায় পাঁচ পুলিশ কর্মীর আহত হবার ঘটনা ঘটে। তখন ঘটনাটি ঘটেছে নন্দকুমার-তমলুক ১১৬ বি জাতীর সড়কের কাছে। ওই ঘটনায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পাইলট কারের মধ্যে থাকা ৫ পুলিশ কর্মী জখম হন। আহতদের জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। লরির চালককে আটক করা হয়।

এবারের ঘটনার কারণ কি, তা খতিয়ে দেখছেন পুলিশ কর্তারা। মন্ত্রীর দেহরক্ষীর মাথায় গুলি লাগার ঘটনায় এবার রাজ্য প্রশাসনে চাঞ্চল্য পড়ে গেছে। আত্মহত্যা না দুর্ঘটনা তা নিয়েই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে পর পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ওই পুলিশ কর্মী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। তাঁর ঘর থেকে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিজের সার্ভিস রিভলবার থেকেই নিজের মাথায় গুলি চালিয়েছেন ওই পুলিশকর্মী, জানিয়েছেন জেলা পুলিশের বড়কর্তারা। তবে, সব দিক খতিয়ে দেখেই এই নিয়ে ফাইনাল সিদ্ধান্ত জানাবে জেলা পুলিশ।

কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শুভঙ্কর চক্রবর্তীর চিকিৎসা চলছে। কলকাতায় কোন বড় হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে যাওয়া যায় কিনা সেটাও ভাবছে জেলা পুলিশ প্রশাসন। তবে এই মুহূর্তে ওই পুলিশ কর্মীর অবস্থা বেশ সংকটজনক বলেই হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে।

শুভঙ্কর চক্রবর্তীর বাড়ির লোক ইতিমধ্যেই এসে পৌঁছেছেন কাঁথিতে। তাঁরাও বুঝে উঠতে পারছেন না, কি ঘটলো হঠাৎ। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, নিজের সার্ভিস রিভলবার দিয়ে মাথায় গুলি চালিয়েছেন ওই পুলিশ কর্মী। এটাই এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না ওই পুলিশ কর্মীর বাড়ির লোক।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন