প্রধানমন্ত্রীকে থাপ্পড় মন্তব্যের জের, মমতাকে সংযত হবার বার্তা সুষমার

712
প্রধানমন্ত্রীকে থাপ্পড় মন্তব্যের জের, মমতাকে সংযত হবার বার্তা সুষমার/The News বাংলা
প্রধানমন্ত্রীকে থাপ্পড় মন্তব্যের জের, মমতাকে সংযত হবার বার্তা সুষমার/The News বাংলা

ভোটের মধ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় নিয়ে সরগরম রাজনীতি; এই ব্যাপারে প্রথমেই চলে আসে প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর দ্বৈরথ; বিভিন্ন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাতে গিয়ে ভাষা সংযম হারানোর অভিযোগ উঠেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরদ্ধে।

মঙ্গলবার পুরুলিয়ায় একটি নির্বাচনী জনসভায় মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য পুনরায় উস্কে দিল বিতর্ক; মঙ্গলবার পুরুলিয়ায় একটি জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন; মোদীর গালে “গণতন্ত্রের থাপ্পড়” মারতে চান তিনি।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা পুলিশের নতুন উদ্যোগ, ভাল রেজাল্ট করায় বাবার বসের চেয়ারে একদিন

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তৃণমূলকে তোলাবাজের দল বলে কটাক্ষ করেছিলেন; তারই পাল্টা হিসেবে মোদীকে গনতন্ত্রের থাপ্পড় মারার ইচ্ছেপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী; এরপরেই শুরু হয় সমালোচনা; এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে ট্যুইট করেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

ট্যুইটে মমতাকে সতর্ক করে ভাষা প্রয়োগের ব্যাপারে সাবধান ও সংযত হতে বলেন সুষমা; এর আগে প্রধানমন্ত্রী কে তুই তুকারি করেও সম্বোধন করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী; এমনকি পাথর ভরা রসগোল্লা খাইয়ে প্রধানমন্ত্রীর দাঁত ভেঙ্গে দেবার কথাও বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ চৌকিদার চোর, ক্ষমা চাওয়ার হ্যাটট্রিক করলেন রাহুল, ভোটের মধ্যেই চরম লজ্জায় কংগ্রেস

ট্যুইটে তিনি বলেন; মমতা শালীনতার সমস্ত সীমা অতিক্রম করেছেন; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং নরেন্দ্র মোদী দেশের প্রধানমন্ত্রী; এই সম্পর্কের কথা মনে করিয়ে দেন সুষমা; রাজ্যের সাথে কেন্দ্রের সম্পর্কের কথা স্মরণ করিয়ে দেন তিনি।

রাজনীতিকে সম্ভাবনাময় শিল্প বলা হয়; রাজনীতিতে চিরবন্ধু বা চিরশত্রু বলে কিছু হয়না; খোদ মুখ্যমন্ত্রীর মুখেই এই কথা বহুবার শোনা গিয়েছে; সেই কথাও মনে করিয়ে দেন সুষমা স্বরাজ; তিনি বলেন, রাজ্যকে কেন্দ্রের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলতে হয়।

আরও পড়ুনঃ ৫০ কোটি টাকা পেলেই খুন করতে পারি মোদীকে, বিষ্ফোরক মন্তব্য

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে কোনও বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে মিটিং করতে হতেই পারে; ভবিষ্যতে রাজনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন হলে মমতার বন্ধুত্বের প্রয়োজন হতে পারে; সেদিন যেন তাকে লজ্জার মুখে পড়তে না হয়; মনে করিয়ে দেন সুষমা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন