‘লজ্জায় বাংলা’, মধ্যশিক্ষায় তল্লাশি, পর্ষদ সভাপতিকে বাড়ি থেকে তুলে আনল সিবিআই

97
'লজ্জায় বাংলা', মধ্যশিক্ষায় তল্লাশি, পর্ষদ সভাপতিকে বাড়ি থেকে তুলে আনল সিবিআই
'লজ্জায় বাংলা', মধ্যশিক্ষায় তল্লাশি, পর্ষদ সভাপতিকে বাড়ি থেকে তুলে আনল সিবিআই

‘লজ্জায় বাংলা’, দুর্নীতির নথি পেতে; মধ্যশিক্ষা পর্ষদের ডিরোজিও ভবনে সিবিআই হানা। অন্যদিকে, পর্ষদ সভাপতিকে বাড়ি থেকে তুলে আনল সিবিআই। বৃহস্পতিবার সকালে রাজ্যের মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দফতরে পৌঁছয়; কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার ছজনের একটি দল। সেখানে নথির খোঁজে তল্লাশি চলে। এসএসসি দুর্নীতি মামলায় তদন্ত করতেই; মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দফতর যায় সিবিআই। এসএসসি দুর্নীতি মামলায় এবার মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দফতরেই; হানা দিচ্ছে সিবিআই। বৃহস্পতিবার সকালে সল্টলেকের ডিরোজিও ভবনে যায়; কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার ছয় সদস্যের একটি দল।

তদন্তের স্বার্থে আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলছেন তদন্তকারীরা, এমনটাই দাবি সূত্রের। প্রয়োজনীয় নথিও তদন্তকারীরা খতিয়ে দেখবেন বলে জানা গিয়েছে। কাদের নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে, তা জানতে আধিকারিকদের জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে সিবিআই। অন্যদিকে, এসএসসি দুর্নীতি কাণ্ডে জেরার জন্য, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে; বাড়ি থেকে পর্ষদ অফিসে নিয়ে এল সিবিআই।

আরও পড়ুনঃ ‘অ’শান্তি নিয়ন্ত্রণে বাংলার রাস্তায় ভারতীয় সেনা’, মামলায় রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট

সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশ কয়েকজনকে আগেই; জেরার জন্য ডাকা হয়েছিল। এখন তাঁদের জেরা করা হচ্ছে। অ্যাডমিন পারমিতা রায়ের বয়ান রেকর্ড করছেন; কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। সিবিআই গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, কী ভাবে গোটা দুর্নীতি হয়েছে; কোন পথে বেআইনি-ভাবে নিয়োগ হয়েছে, কাদের নির্দেশে হয়েছে, তা বিশদে জানার চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুনঃ পরেশ, গুণধর, বীরেন্দ্র, দুর্নীতি করে নেতার মেয়েদের চাকরি হয়েছে, কাঁদছে ‘বাংলার মেয়েরা’

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের ডিরোজিও ভবনে তল্লাশির পর; নি’শানায় মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁকে বাড়ি থেকে অফিসে এনে; জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব শুরু করে সিবিআই আধিকারিকরা। বহুবার তলব করা সত্ত্বেও হাজিরা দেননি; কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। এদিন সকালে সল্টলেকে পর্ষদের অফিস ডিরোজিও ভবনে; হানা দেন আধিকারিকরা। সেখানে বহু অপেক্ষার পরও পর্ষদ সভাপতি না আসায়; তাঁর কাদাপাড়ার আবাসনে যান আধিকারিকরা।

সেখানে দেখা করার খানিক পরে দেখা যায়, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়েই; বেরোন সিবিআই আধিকারিকরা। তাঁকে সঙ্গে নিয়েই তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা; ফের আসেন পর্ষদ দফতরে যেখানে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। শিক্ষক নিয়োগে একাধিক দুর্নীতির তদন্তে; সিবিআই আধিকারিকরা। এখনও পর্যন্ত এসএসসি সংক্রান্ত আটটি মামলায়; সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। আইনি পরিষাভায় সেগুলিকে ‘Heard in Part’; অর্থাৎ মামলার আংশিক শুনানিই হয়েছে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন