বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে ‘রথ বৈঠকে’ রাজ্য সরকার ও বিজেপি

305
বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে 'রথ বৈঠকে' রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা
বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে 'রথ বৈঠকে' রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা

The News বাংলা, কলকাতাঃ বৃহস্পতিবার সন্ধায় লালবাজারে ‘রথ বৈঠকে’ বসছে রাজ্য সরকার ও বিজেপি। বৈঠকে রথ যাত্রা নিয়ে কি ফয়সালা হয় সেদিকেই তাকিয়ে গোটা বাংলা। ১৬ তারিখের মধ্যে বিজেপিকে জানাতে হবে রথ যাত্রা নিয়ে রাজ্য সরকার কি সিদ্ধান্ত নিল।

আরও পড়ুন: কলকাতা হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চে মুখ রক্ষা বিজেপির ‘রথ যাত্রা’র

কলকাতা হাইকোর্টে এখনই রথ যাত্রার অনুমতি না পেলেও মুখ রক্ষা হয়েছিল বাংলা বিজেপির। কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে ফের আলো দেখে বিজেপির ‘রথ যাত্রা’। ‘আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে’, রাজ্যকে পরিষ্কার জানিয়ে দেয় কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বনাথ সামাদ্দার-এর ডিভিশন বেঞ্চ।

বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে 'রথ বৈঠকে' রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা
বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে ‘রথ বৈঠকে’ রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা

ফলে বাতিল হয়ে যায়, বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর ‘রথ যাত্রা’ বন্ধ করার রায়। ইতিমধ্যেই মুকুল রায়ের সঙ্গে বিজেপি নেতারা নবান্নে গিয়ে বৈঠকে বসার জন্য রাজ্য সরকারকে বৈঠকে বসার কথা বলে এসেছেন। সেই অনুযায়ী, আদালতের নির্দেশ পালনে লালবাজারের কনফারেন্স রুমে বসছেন রাজ্য ও বিজেপির প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুনঃ ‘বাংলায় রথ যাত্রা হবেই’ মমতাকে হুঁশিয়ারি অমিত শাহের

‘১৪ই ডিসেম্বরের মধ্যে বিজেপির ‘রথ যাত্রা’র অনুমতি নিয়ে বিজেপিকে জানাতে হবে’, জানিয়ে দেয় কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বনাথ সামাদ্দার-এর ডিভিশন বেঞ্চ। মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, আইজি ও ডিজিকে নিজেরা বসে ও বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বসে ‘রথ যাত্রা’র অনুমতি নিয়ে দেওয়া নিয়ে আলচনা করতে হবে বলে জানিয়ে দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। পরে ১৪ তারিখের বদলে ১৬ তারিখ শেষ দিন স্থির করে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে 'রথ বৈঠকে' রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা
বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে ‘রথ বৈঠকে’ রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা

বাংলায় ‘রথ যাত্রা’ সভা বাতিল করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। ‘রথ যাত্রা’ নিয়ে একেবারে ব্যাকফুটে ছিল বাংলা বিজেপি। শেষ ক্ষীণ ভরসা ছিল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। বিজেপির ‘রথ যাত্রা’ ফিনিক্স পাখির মত বেঁচে উঠবে না মমতার বুদ্ধির কাছে নতি স্বীকার করে নেবে সেটাই দেখার ছিল। আদালতের রায়ে ফের বেঁচে উঠল বিজেপির ‘রথ যাত্রা’।

আরও পড়ুনঃ দেশের সব গোয়েন্দাদের টপকে সেরা লালবাজারের অফিসার

কলকাতা হাইকোর্টে সিঙ্গেল বেঞ্চে মমতার কাছে ‘গোহারা’ হেরে গিয়েছিল বিজেপি। রাজ্য সরকার না করে দেবার পরে বিজেপির ‘রথ যাত্রা’য় অনুমতি দেয় নি কলকাতা হাইকোর্টও। ফের একবার আদালতের লড়াইয়ে জিতেছিল মা মাটি মানুষের সরকার। আগামী ৯ জানুয়ারী তারিখ পর্যন্ত কোন ‘রথ যাত্রা’ বা ‘গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা’ করা যাবে না বলেই রায় দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট।

EXCLUSIVE: দিল্লীর নির্ভয়া ধর্ষণ কাণ্ডের পরেও নিরাপত্তাহীন কলকাতার বাস

পরে ডিভিশন বেঞ্চের রায়ে সেই রায় বাতিল হয়ে যায়। ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বিজেপির ‘রথ যাত্রা’র অনুমতি নিয়ে আলোচনা শেষ করে তা বিজেপিকে জানিয়ে দেবার নির্দেশ দিইয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে 'রথ বৈঠকে' রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা
বাংলায় রথের ভবিষ্যৎ, লালবাজারে ‘রথ বৈঠকে’ রাজ্য সরকার ও বিজেপি/The News বাংলা

৭ ডিসেম্বর কোচবিহার থেকে বিজেপির ‘রথ যাত্রা’ বা ‘গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা’ শুরু হওয়ার কথা ছিল। সেই যাত্রা ও সভা তারা আদৌ শুরু করতে পারবে কিনা বা কবে পারবে তার ফয়সালা হবার জন্যই আদালতের নির্দেশে আজ লালবাজারে বৈঠক। রথ যাত্রা শুরু না হওয়ায় ইতিমধ্যেই বাতিল হয়ে গেছে প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীদের বাংলা সফর।

আরও পড়ুন: কোচবিহারে ঢোকার আগেই নাইন এমএম পিস্তল সহ গ্রেফতার ছয়

ঠিক ছিল, শুক্রবার ৭ ডিসেম্বর কোচবিহার থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেবে বিজেপির প্রথম রথ। দ্বিতীয় রথটি কাকদ্বীপ থেকে যাত্রা শুরু করবে ৯ তারিখ। তৃতীয় রথের যাত্রা তারাপীঠ থেকে শুরু হওয়ার ১৪ ডিসেম্বর। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি ছিল, তিনটি রথের উদ্বোধনেই হাজির থাকবেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

আরও পড়ুনঃ ৫ টি প্রধান কারনে ৫ রাজ্যে হার মোদীর বিজেপির

শুধু তাই নয় ‘রথযাত্রা’ বা ‘গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা’ চলাকালীন বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে বেশ কয়েকটি জনসভা করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে আদালতের রায়ের পর, সবকিছুই বাতিল হয়ে যায়।

লালবাজারে বৃহস্পতিবার দুপুরের ‘রথ বৈঠক’ নিয়ে রাজ্য সরকার ও বিজেপি নেতাদের একমত হবার সম্ভাবনা দেখছে না কেউই। ফের কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বনাথ সামাদ্দার এর ডিভিশন বেঞ্চেই ফিরতে হবে দু পক্ষকেই, মনে করছে সব মহলই।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন