সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে পাকিস্তানকে বার্তা ভারতের

297
সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে পাকিস্তানকে বার্তা ভারতের/ The News বাংলা
সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে পাকিস্তানকে বার্তা ভারতের/ The News বাংলা

১৪ই ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা ঘটে যাওয়া জঙ্গি হামলার পর, ভারত এবং পাকিস্তানের সম্পর্কে নতুন করে ফাটল দেখা যায়। সেই ঘটনার জেরেই সাময়িক ভবে বন্ধ হয়েছিল সমঝোতা এক্সপ্রেস। গত সোমবার থেকে তা আবার চালু হল। তাহলে কি এবার শান্তির বার্তা পাকিস্তানকে পাঠাচ্ছে ভারত? যদিও কাশ্মীরে প্রতিদিন চলছে জঙ্গি ও সেনা লড়াই।

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করল হ্যাকাররা

১৯৭১ সালের ২২শে জুলাই ভারত-পাক যুদ্ধের পর, সিমলা চুক্তি অনুযায়ী, চালু হয় এই সমঝোতা এক্সপ্রেস। এই ট্রেনটি ভারতের দিল্লি থেকে আটারি এবং পাকিস্তানের ওয়াঘা থেকে লাহোর অবধি চলাচল করে, সপ্তাহে দুইদিন।

সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে পাকিস্তানকে বার্তা ভারতের/ The News বাংলা
সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে পাকিস্তানকে বার্তা ভারতের/ The News বাংলা

কাশ্মীরের পুলওয়ামার অবন্তীপুরায় শ্রীনগর-জম্মু হাইওয়েতে ১৪ই ফেব্রুয়ারী সিআরপিএফ কনভয়ের একটি গাড়ি লক্ষ করে আইডি বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। তারপর ছুটে আসে ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি। সিআরপিএফ কনভয়ের গাড়িগুলি জম্মু থেকে কাশ্মীর আসার সময় এই আক্রমণ হয়। অবন্তীপুরায় জাতীয় সড়কের উপরেই এই হামলা চলে। মারা যান চল্লিশেরও বেশি সিআরপিএফ জাওয়ান।

আরও পড়ুনঃ মুম্বাই হামলার মত ফের জলপথে জঙ্গি হামলার ছক

ঘটনার দায় স্বীকার করে পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ ই মহম্মদ। বিস্ফোরণে যুক্ত আদিল আহমেদ নামে এক জইশ জঙ্গির নাম উঠে আসে তদন্তে। তারপরে শুরু হয় গোলমাল। দুই দেশের মধ্যে তুমুল অশান্তির সৃষ্টি হয়। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রাগে ফুঁসতে থাকে ভারত।

আরও পড়ুনঃ ঘরে ঢুকে মারব জঙ্গিদের, প্রকাশ্যে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী মোদীর

এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬শে ফেব্রুয়ারি ভোররাতে ভারতীয় বায়ুসেনার তরফে পাকিস্তানের মূল ভূখন্ড বালাকোটে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালানো হয়। বায়ুসেনার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী জইশ ই মহম্মদের মাথা মাসুদ আজহারের তিন আত্মীয় সহ কমপক্ষে ৩০০-৩৫০ জন জঙ্গির মৃত্যু হয়। এরপরেই পাকিস্তান বন্ধ করে দেয় সমঝোতা এক্সপ্রেস। ভারতও বন্ধ করে দেয়।

আরও পড়ুনঃ জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে ইমরানের পাকিস্তান

এরই মধ্যে পাক সীমানা লঙ্ঘন করে মিগ চালিয়ে পাক সেনার হাতে পাকড়াও হন বায়ুসেনা কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। ভারতীয় পাইলটকে শর্তহীন মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাকিস্তানের ব্যবহারে বিগলিত কিছু ভারতীয় ইমরান খানকে কার্যত শান্তির বার্তাবাহক হিসেবে তুলে ধরে। পাকিস্তান ইমরান খানকে নোবেল শান্তি পুরস্কার দেওয়ার দাবিও করেন।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের কোপে এবার প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

পাক-ভারত উত্তেজনার মধ্যে সমঝোতা এক্সপ্রেস বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। ভারতের দিক থেকেও বন্ধ হয় ট্রেন চলাচল। গত সোমবার আবার চালু হয় এই ট্রেন। পাকিস্তান রেডিও সূত্রে জানা যায়ে, সোমবার প্রায় ১৫০জন যাত্রী কে নিয়ে দিল্লির উদ্দেশে লাহোরে থেকে রওনা দেয় সমঝোতা এক্সপ্রেস। অবশ্য ১৪এ ফেব্রুয়ারীর পর, যাত্রী সংখ্যা কমে গেছে বলেই দুই দেশের রেল কর্তৃপক্ষ এর তরফ থেকে জানা গেছে।

আরও পড়ুনঃ Exclusive পাকিস্তান থেকে পালানোর জন্য তৈরি থাকুন জঙ্গিদের জানাল জইশ

পাকিস্তানের দিকে কি তাহলে এবার শান্তির হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে ভারত? প্রশ্ন উঠেছে। তবে এর সঙ্গে পাকিস্তানের সঙ্গে কথার কোন সম্পর্ক নেই বলেই পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে ভারত। জঙ্গি হামলা বন্ধ না হলে আলোচনার কোন প্রশ্নই নেই বলে জানান হয়েছে। তবু সমঝোতা এক্সপ্রেস চালু করে দুই দেশের মধ্যে শান্তির আপাতত একটা আশার আলো দেখা গেল বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন