ভারতকে হুঁশিয়ারি দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

553
ভারতকে হুঁশিয়ারি দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান/The News বাংলা
ভারতকে হুঁশিয়ারি দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান/The News বাংলা

“ভারত যদি আক্রমণ করে তাহলে তার উত্তরে পাল্টা জবাবও দেবে পাকিস্তান”, বলে এক ভিডিও বার্তায় ভারতকে হুঁশিয়ারি দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলাওয়ামায় পাক জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদের হামলায় আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ-র ৪৯ জন জওয়ান শহিদ হন। ওই হামলার পর থেকেই বদলার দাবিতে সরব গোটা ভারত। উত্তেজনা বজায় আছে কাশ্মীরেও। আর এইসময়েই ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে ইমরান খান এমন মন্তব্য করলেন।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তান নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত রিলায়েন্সের মুকেশ আম্বানির

পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জইশ-ই-মহাম্মদের হামলার পরই পাকিস্তানকে একঘরে করেছে ভারত। পাকিস্তানকে দেওয়া মোস্ট ফেভারড নেশনস এর তকমা বাতিল করা হয়েছে। এই নিয়ে একে অপরের হাইকমিশনারকে এরইমধ্যে তলব হয়ে গেছে। এমনকি নিজেদের হাইকমিশনারকে ‘প্রত্যাহারও’ করে নিয়েছে নয়াদিল্লি-ইসলামাবাদ।

আরও পড়ুনঃ ভারতীয় সেনার বদলা, খতম পুলওয়ামা কাণ্ডে জড়িত দুই পাক জঙ্গি

এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে ভাষণে ইমরান খান বলেন, “ভারত প্রমাণ ছাড়াই অভিযোগ তুলছে। পাকিস্তান কেন হামলা করতে যাবে? পাকিস্তান স্থিতিশীলতা চায়। যখন ধীরে ধীরে সেই স্থিতাবস্থা আসছে, তখন ভারত এই অভিযোগ তুলে সেটা নষ্ট করতে চাইছে। আমরা যেখানে শান্তি চাই, সেখানে এই হামলা করে পাকিস্তানের কী লাভ হবে? প্রমাণ থাকলে আমাকে দিন, কথা দিচ্ছি, পরের দিনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ সেনা কনভয়ে আত্মঘাতী হানা, পাক জঙ্গিদের টার্গেটে এবার পাকিস্তানই

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হানা ও তারপরে একের পর এক ঘটনায় এই প্রথম মুখ খুললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে খোঁচা দিয়ে তাঁর পাল্টা চ্যালেঞ্জ, এই হামলায় পাক যোগের প্রমাণ দিতে পারলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবেন তিনি। শুধু তাই নয়, একই সঙ্গে হুঙ্কারের সুরে পাক প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, “পাকিস্তানের উপরে হামলা হলে তার উপযুক্ত জবাবও পাবে ভারত”।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের নিরাপত্তা তুলে নিল মোদী সরকার

ইমরান এ দিন বলেন, “কাশ্মীর হামলায় পাকিস্তান কোনওভাবে জড়িত, বা পাক মাটি ব্যবহার করে এই হামলার ষড়যন্ত্র হয়েছে, তার প্রমাণ দিক ভারত। আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি, উপযুক্ত প্রমাণ দিতে পারলে ব্যবস্থা নেবই”। এর পরেই কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে খোঁচা দিতে শুরু করেন ইমরান। তিনি বলেন, “ভারতের এবারে নতুন চিন্তাভাবনা করার সময় এসেছে। কাশ্মীরী যুবকদের মধ্যে থেকে কেন মৃত্যুভয় চলে যাচ্ছে, তা ভেবে দেখুক ভারত। শুধুমাত্র সেনাবাহিনী দিয়ে অত্যাচার চালালে যে সমস্যার সমাধান হবে না, সেটা ভারতের বোঝার সময় এসেছে”।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটিতে হামলার অনুমতি চাইল দেশের সেনা

পুলওয়ামা হামলার পরেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বদলা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে গোটা ভারতে। সেই প্রসঙ্গে ইমরান খান মোদী সরকারকে খোঁচা দিয়ে বলেন, “এটা ভারতে নির্বাচনের বছর। পাকিস্তানের উপরে হামলা চালালে তার সুফল ভোটে পাওয়া যাবে। কিন্তু একটা কথা বলে রাখি, ভারত যদি পাকিস্তানের উপরে হামলা চালায়, তা হলে পাকিস্তান তার জবাব দেওয়ার কথা ভাববে না, সরাসরি জবাব দেবে। আর তখন পরিস্থিতি সবার হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। যুদ্ধ শুরু করা আমাদের হাতে, কিন্তু শেষ করাটা আমাদের হাতে থাকে না”।

আরও পড়ুনঃ ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসবাদী হামলা হবে জানিয়েছিলেন কাশ্মীর পুলিশের আধিকারিক

ইমরানের বক্তব্য উড়িয়ে দিয়ে ভারতের তরফে বলা হয়েছে, “আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় চাপে পরেই এমন ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। এখন আলোচনার কথা বলছে”। ভারতের তরফে বলা হয়েছে, কাশ্মীরে জঙ্গি সাফ করার পাশাপাশি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সবরকম লড়াই চলবে।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

আরও পড়ুনঃ পাক জঙ্গিদের খুঁজে বের করে মারতে সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিল মোদী সরকার
আরও পড়ুনঃ দেশ জুড়ে বদলার দাবি, কাউকে ছাড়া হবে না জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন