রাশিয়ার রকেট লঞ্চার থেকে রকেট প্রপেলড গ্রেনেড পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দফতরে

111
রাশিয়ার রকেট লঞ্চার থেকে রকেট প্রপেলড গ্রেনেড পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দফতরে
রাশিয়ার রকেট লঞ্চার থেকে রকেট প্রপেলড গ্রেনেড পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দফতরে

রাশিয়ার রকেট লঞ্চার থেকে রকেট প্রপেলড গ্রেনেড; আছড়ে পড়ল পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দফতরে। ক্রমশই রহস্য ঘনাচ্ছে, মোহালিতে পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দফতরে; বিস্ফোরণের ঘটনায়। ইতিমধ্যেই পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ; এই বি’স্ফোরণ ঘটার ১ কিলোমিটারের মধ্যেই একটি রকেট লঞ্চার উদ্ধার করেছে। জানা গিয়েছে, সেটি রাশিয়ায় তৈরি রকেট লঞ্চার। এই হামলার সাহায্যকারী অভিযোগে; আটক করা হয়েছে এক সন্দেহভাজনকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে, কেন এই হা’মলা; জানার চেষ্টা করছে পাঞ্জাব পুলিশ।

সোমবার রাতে মোহালিতে পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের বিল্ডিংয়ে; একটি রকেট প্রপেলড গ্রেনেড আছড়ে পড়ে। জোরদার বি’স্ফোরণ ঘটে বাড়িটিতে। বি’স্ফোরণের জেরে বাড়িটির জানলার কাঁচ; ভেঙে খানখান হয়ে যায়। তবে কাছেপিঠে কেউ না থাকায়, ওই ঘটনায় কেউ হতা’হত না হলেও; গোয়েন্দা দফতরে জ’ঙ্গি হা’মলার আশঙ্কায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। এরপরেই হা’মলা-কারীদের সন্ধানে; তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে পাঞ্জাব পুলিশ।

সুধা নারায়ণ মূর্তির মেয়ে অক্ষতা মূর্তি, রানি এলিজাবেথের চেয়েও বেশি ধনী

এই ঘটনার পিছনে, কোন স’ন্ত্রাস’বাদীদের হাত রয়েছে কি না; তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, এই বি’স্ফোরণের আগে পাঞ্জাব পুলিশের কাছে; দুটি হু’মকি চিঠি আসে। পাক জ’ঙ্গি সংগঠন জ’ইশ-ই-মহম্মদের এক কমান্ডারের নাম সই করা ওই চিঠিতে; রেল স্টেশন, থানা-সহ বিভিন্ন এলাকায় হা’মলার হু’মকি দেওয়া হয় ওই চিঠিতে। এরপরেই সাবধান হয়ে যায় পাঞ্জাব পুলিশ; তারপরেও ঘটে এই ঘটনা।

ভারতের বিএসএফের উদ্যোগে মাকে শেষ দেখা দেখতে পেল বাংলাদেশি কন্যারা

এখনও পর্যন্ত, এই রকেট প্রপেলড গ্রেনেড হা’মলার ঘটনায়; তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এর আগে দুজনকে আটক করেছিল পুলিশ, এবার আটক তৃতীয় ব্যক্তি; অভিযুক্তের নাম নিশান সিং। মোহালি পুলিশ জানিয়েছে; সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। যে লঞ্চার থেকে হা’মলা চালানো হয়েছিল; সেটিও উদ্ধার হয়েছে।

এদিকে বি’স্ফোরণের পরেই; হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুরকে হু’মকি দিল খালি’স্তানিরা। একটি অডিও বার্তা দিয়ে জানান হয়েছে; হিমাচল পুলিশের সদর দফতরে এই আ’ক্রমণ হতে পারত। এই ঘটনায় পাঞ্জাবের শাসকদল আম আদমি পার্টির বিরুদ্ধে, তোপ দেগেছেন; অকালি দলের নেতা সুখবীর সিং বাদল। তাঁর অভিযোগ, “মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মানের শাসনে; রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে”। বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে; পাঞ্জাবের আপ সরকার।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন