মালদহের সভা থেকে মমতাকে তীব্র আক্রমণ রাহুলের

308
মালদহের সভা থেকে মমতাকে তীব্র আক্রমণ রাহুলের/The News বাংলা
মালদহের সভা থেকে মমতাকে তীব্র আক্রমণ রাহুলের/The News বাংলা

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে শনিবার রাজ্যে প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হল কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর। কংগ্রেসের গড় বলে পরিচিত মালদহের চাঁচলে শনিবার রাহুল গান্ধীর জনসভা উপলক্ষ্যে ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতই। আর এখানেই মোদীর পাশাপাশি মমতাকেও তুলধোনা করলেন রাহুল।

আরও পড়ুনঃ ৪৮ ঘণ্টা পর ৬০ ফুট গভীর গর্ত থেকে শিশুকে উদ্ধার করে কামাল ভারতীয় সেনার

স্বাভাবিক ভঙ্গিমায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে যেমন তোপ দাগেন, ঠিক তেমনি তুলধোনা করতে ছাড়েননি রাজ্যের তৃণমূল সরকারকেও। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কালো টাকা ফেরানো, কর্মসংস্থান, কৃষি ঋণ মকুব নিয়ে যেমন প্রশ্ন ছিল, ঠিক তেমনি রাজ্যের উন্নয়ন নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ ‘ভারতমাতা কি জয়’, বলে দলের মধ্যেই ফের বিপদে নেতা

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ইঙ্গিত করে জনসাধারণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বাংলায় একজনই শাসন চালাচ্ছে। এরকম একনায়কতান্ত্রিক শাসন চলা উচিৎ কিনা, সেই প্রশ্নও জনসাধারণের উদ্দেশ্যে ছূড়ে দেন তিনি৷ মমতা একনায়কতন্ত্ৰ চালাচ্ছেন বলেই জানিয়ে দেন রাহুল।

বামফ্রন্টের আমলে কংগ্রেস কর্মীরা আক্রান্ত হত এবং তা এই মুহূর্তে তৃণমূল সরকারের সময়েও অব্যাহত আছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তৃণমূল সরকার অনেক কথা ও প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল, কিন্তু তার কিছুই তারা পূরণ করেনি বলে তৃণমূলকে কটাক্ষ করেন রাহুল।

আরও পড়ুনঃ গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব সামলে নিশীথের হয়েই প্রচার শুরু বিজেপির বিক্ষুব্ধদের

মমতার রাজ্যে সারাক্ষণ ভাষন চলে, কিন্তু কাজের কাজ হয় না। বাংলায় জনগনের কথার মূল্যায়ন করা হয়না বলেও তিনি উল্লেখ করেন। রাজ্যের তৃণমূল সরকারকে অনেক সহ্য করা হয়েছে বলে এবার পরিবর্তনের ডাক দিলেন রাহুল গান্ধী।

তিনি গত ডিসেম্বরে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ ও ছত্তীসগড় এই ৩ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সাফল্যের কথাও তুলে ধরেন। ক্ষমতায় এসেই এই ৩ রাজ্যে কংগ্রেস কৃষি ঋণ মকুব করেছে বলে তিনি জানান৷ কিন্তু এই রাজ্যে কৃষক ও যুবকদের জন্য মমতা কি কি করেছেন, তা তিনি প্রশ্ন তোলেন। কৃষকরা ঋণ মকুবের দাবি তুললেন মোদী বা মমতা কেউই তা মানেন না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনের নতুন অ্যাপ সি ভিজিল, জনতার অভিযোগে ১০০ মিনিটের মধ্যে ব্যবস্থা

সদ্য দলত্যাগী মালদহের কংগ্রেস সাংসদ মৌসুম বেনজীর নূরকে তিনি কটাক্ষ করেন৷ নাম না করেই মৌসুমকে প্রতারক বলে উল্লেখ করেন তিনি। কংগ্রেসের পুরনো সাংসদ প্রতারণা করে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বলে তিনি মন্তব্য করেন। প্রতারণা করে বাংলায় টিকে থাকা যাবে না, সেটা বুঝিয়ে দিয়ে জনগনকে আহ্বান জানান রাহুল।

আরও পড়ুনঃ ভোটের গানে বিপাকে বাবুল, কমিশনের হাতে টুইট অস্ত্র

তবে বাংলায় এসে মহাজোটের অন্যতম কান্ডারী মমতাকেই ঠুকবেন রাহুল, এটা ভাবেননি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরাও। কিন্তু এদিন মোদীর পাশাপাশি মমতাকেও টার্গেট করেন কংগ্রেস সভাপতি।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন