মুসলিম সেজে রমজানের শুভেচ্ছা জানানোয় ট্রোলের শিকার মিমি

901
মুসলিম সেজে রমজানের শুভেচ্ছা জানানোয় ট্রোলের শিকার মিমি/The News বাংলা
মুসলিম সেজে রমজানের শুভেচ্ছা জানানোয় ট্রোলের শিকার মিমি/The News বাংলা

৫ই মে থেকে শুরু হয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়ের টানা এক মাসের রমজান মাস; একই সাথে চলছে সবচেয়ে বড় গনতন্ত্রের উৎসব; লোকসভা নির্বাচন। আর ভোটের এই উৎসবে মুসলিমদের রমজানের শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়ে নেটিজেনদের ট্রোলের শিকার হলেন যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী।

মঙ্গলবার মিমি নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি শুভেচ্ছাবার্তা পাঠান; যেখানে তিনি হিজাব পরিহিত অবস্থায় নিজের ছবি দিয়েছেন; এর পরেই ভাইরাল হয়ে যায় সেই ছবি; তীব্র কটাক্ষ ধেয়ে আসে এই তারকা প্রার্থীর দিকে।

আরও পড়ুনঃ দেখতে রাহুলের গান্ধীর মতো, লজ্জায় ও হতাশায় চেহারা পাল্টালেন যুবক

হিন্দু; মুসলিম নির্বিশেষে অনেকেই তৃণমূল প্রার্থীর এই বেশভূষার কড়া সমালোচনা করেন; তাদের বক্তব্য; একটি ধর্মের মানুষ অন্য ধর্মের মানুষকে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠাবেন; এতে অন্যায়ের কিছু নেই; তাতে বরং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বৃদ্ধি পায়। কিন্তু তার জন্য নিজেকেও অন্য সম্প্রদায়ের বেশ ধারণ করতে হবে কেনো; প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

প্রার্থী হবার পরেই ভোটারদের মন জয় করতে রোজা পালন করে পাশে থাকার অঙ্গীকার করলেন টলিউড অভিনেত্রী তথা যাদবপুরের তৃনমূলের প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী; বারুইপুরে সংখ্যালঘু সেলের আয়োজিত একটি নির্বাচনী জনসভায় তিনি এই আশ্বাস আগেই দিয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না, তাই ফনী নিয়ে মোদীকে তথ্য দিতে নারাজ মমতা

আগামী ১৯শে এপ্রিল যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন; তার আগেই বারুইপুরে সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় সংখ্যালঘুদের মন জয়ে সচেষ্ট তৃণমূলের তারকা প্রার্থী বলেছিলেন; রমজান মাসে ভোট অনুষ্ঠিত হবার কারনে তিনিও ভোটারদের সাথে রমজানের রোজা পালন করবেন এবং বিকেলে ভোটারদের সাথেই রোজা ভাঙবেন।

মঙ্গলবার মিমির ফেসবুক পোস্টের পর নতুন করে সংখ্যালঘু তোষনের অভিযোগ উঠেছে; কটাক্ষ করে অনেকেই বলছেন; তৃণমূলের সংখ্যালঘু তোষনের সূত্র মিমিও খুব শীঘ্রই আয়ত্ত করতে পেরেছেন। এর ফলে আখেরে সেই সম্প্রদায়কে বোকা বানানোর চেষ্টা হচ্ছে বলে কটাক্ষ করেন অনেকে।

আরও পড়ুনঃ সাধ্বী প্রজ্ঞাকে গেরুয়া বসন পরা সন্ত্রাসী বললেন স্বরা ভাস্কর

এর আগেও বিভিন্ন ইস্যুতে বিতর্ক তৈরি হয়েছে মিমিকে ঘিরে। কখনো জনসভা থেকে ভোটারদের আঙুল তুলে শাসানি; আবার কখনো গ্লাবস পরে ভক্তদের সাথে করমর্দন; বিস্তর সমালোচনা হয়েছে সব ক্ষেত্রেই; আর সেখানেই নয়া সংযোজন; হিজাব পরে শুভেচ্ছাবার্তা প্রেরন।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন