মোদীর উদ্বোধন করা সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মমতার

321
মোদীর উদ্বোধন করে যাওয়া সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মমতার/The News বাংলা
মোদীর উদ্বোধন করে যাওয়া সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মমতার/The News বাংলা

ভোট বড় বালাই। ভোটের মুখে অনেক কিছুই হয় যা সাধারণ মানুষের বোধগম্যের বাইরে। এমনই একটা ঘটনা ঘটছে শনিবার জলপাইগুড়িতে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্বোধন করে যাওয়া জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

মোদীর উদ্বোধন করে যাওয়া সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মমতার/The News বাংলা
মোদীর উদ্বোধন করে যাওয়া সার্কিট বেঞ্চের ফের উদ্বোধন মমতার/The News বাংলা

৮ই ফেব্রুয়ারী ২০১৯। কলকাতা হাইকোর্টের শাখা হিসাবে জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ এর উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সার্কিট বেঞ্চ উদ্বোধন করে দিয়ে মমতার ‘বাড়া ভাতে’ ছাই দিয়েছিলেন মোদী, এমনটাই মনে করছিল রাজনৈতিক মহল। মমতা ভেবেছিলেন উত্তরবঙ্গবাসির বহুদিনের চাহিদা ও দাবির এই সার্কিট বেঞ্চ নিজেই উদ্বোধন করবেন। কিন্তু নিজে এসে উদ্বোধন করে তাতে জল ঢেলে দিয়েছিলেন স্বয়ং মোদী।

জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ সংক্রান্ত খবরঃ সার্কিট বেঞ্চ উদ্বোধন করে দিয়ে মমতার ‘বাড়া ভাতে’ ছাই দিলেন মোদী
জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ সংক্রান্ত খবরঃ ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতার সিদ্ধান্তে সিলমোহর দিল মোদী সরকার
জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ সংক্রান্ত খবরঃ দেশের প্রধানমন্ত্রী দুকান কাটা, বললেন মমতার মন্ত্রী মলয় ঘটক

তবে তাতে দমে যাবার পাত্রীই নন অগ্নিকন্যা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর যেখানে জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ তৈরির পুরো কৃতিত্বটাই যখন তাঁর। তাই শনিবার ফের উদ্বোধন এই আদালতের। সঙ্গে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠি ও কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার।

আরও পড়ুনঃ বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচীর বাড়িতে মুকুল, জল্পনা তুঙ্গে

দীর্ঘ দিন ধরেই কলকাতা হাইকোর্টের শাখা হিসেবে জলপাইগুড়িতে সার্কিট বেঞ্চ তৈরির দাবি ছিল উত্তরবঙ্গবাসীর। বিগত চল্লিশ বছর ধরে রাজনৈতিক দলগুলির দীর্ঘ টালবাহানা চলেছে। অবশেষে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর শুরুর দিন থেকেই জোড় কদমে সার্কিট বেঞ্চ নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু কেন্দ্রের ছাড়পত্র পাওয়া যাচ্ছিল না। ফেব্রুয়ারীতে ২ দিনের মধ্যে তা অনুমোদন দিয়ে নিজের উত্তরবঙ্গ সফরে তার উদ্বোধনও করে দেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ ফাঁসি হওয়া জঙ্গি পুত্রের ভারতের সেরা ডাক্তার হবার স্বপ্ন

আর এই নিয়েই শুরু হয় জোর বিতর্ক। সবটাই তৈরি হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর উদ্যোগে, আর তাঁকে বাদ দিয়েই জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ এর উদ্বোধন করে দিয়ে তৃণমূল ও রাজ্য সরকারের তোপের মুখে পরেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক এর অভিযোগ ছিল, “কেন্দ্র সহযোগিতা তো দূরের কথা, স্রেফ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই মোদী জলপাইগুড়িতে রাজনৈতিক সভা থেকে সার্কিট বেঞ্চ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী”।

আরও পড়ুনঃবৈশাখীর হাত ধরে বিজেপিতে শোভন, জল্পনা তুঙ্গে

তীব্র ভাষায় মোদীর উদ্বোধনের প্রতিবাদ জানিয়ে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বলা হয়, “সার্কিট বেঞ্চ উদ্বোধন হয়ে যাবার পরের দিন থেকে কাজ শুরু করে দিতে হয়। অথচ স্টাফ নিয়োগ থেকে শুরু করে সমস্ত ইনফ্রাস্ট্রাকচার তৈরীর বিষয়টি যেহেতু রাজ্য সরকার দেখে তাই এই বেঞ্চের উদ্বোধন হলেও বেঞ্চের পূর্ণাঙ্গ কাজ শুরু করা এখন ওই সম্ভব হবে না”। তাই শুক্রবার ৮ই ফেব্রুয়ারী ২০১৯ এর পর শনিবার ৯ই মার্চ ২০১৯ এ ফের উদ্বোধন জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চের।

আরও পড়ুনঃ টিভি চ্যানেল দেখা নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে কেবল অপারেটররা
আরও পড়ুনঃ মরে গিয়েও তৃণমূল বিজেপির হাত থেকে রেহাই পেলেন না বড়মা
আরও পড়ুনঃ ভারতীয় ক্রিকেটারদের মাথায় ভারতীয় সেনার টুপি
আরও পড়ুনঃ ডিনামাইট দিয়ে উড়িয়ে দেওয়া হল মোদীর ১০০ কোটির বাংলো

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন