মায়ের সঙ্গে সন্তান-রাও ভেসে গেল জলে, বাতিল এবছরের পুজো কার্নিভাল

78
মায়ের সঙ্গে সন্তান-রাও ভেসে গেল জলে, বাতিল এবছরের পুজো কার্নিভাল
মায়ের সঙ্গে সন্তান-রাও ভেসে গেল জলে, বাতিল এবছরের পুজো কার্নিভাল

মায়ের সঙ্গে সন্তান-রাও ভেসে গেল জলে, বাতিল এবছরের পুজো কার্নিভাল। জলপাইগুড়ির মাল নদীতে প্রতিমা বিসর্জন ঘাটে, হড়পা বানে এক শিশু সহ মৃত আট, আর তার জেরেই সমবেদনা জানিয়ে কার্নিভাল থেকে সরে এসেছিল জলপাইগুড়ির একাধিক বড় দূর্গা পুজো কমিটি। একাধিক কাউন্সিলর উৎসব থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছিলেন। বুদ্ধিজীবীরা জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছিলেন, “শোকের আবহে কার্নিভাল বন্ধ করতে”। এবার জলপাইগুড়ি জেলা প্রশাসন, বাতিল করে দিল এবছরের পুজো কার্নিভাল।

বুধবার দশমীর রাতের সেই ভয়ানক দৃশ্য, কিছুতেই জলপাইগুড়ি-বাসির চোখ থেকে সরছে না। পাহাড়ী নদীর হড়পা বানের স্রোতে, একে একে মৃত্যুর পথে তলিয়ে যাচ্ছে মা সহ শিশু, “বাঁচাও বাঁচাও” চিৎকারে কেঁপে উঠছে মাল নদীর দুপাস। এরপর কেটে গিয়েছে প্রায় দুটি দিন। তবুও জলপাইগুড়ি-বাসির মুখে মুখে এখনও, সেই মর্মান্তিক ঘটনা নিয়েই চলছে আলোচনা।

শোকের পরিবেশ সমগ্র জেলা জুড়ে। জলপাইগুড়ি শহরের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী দূর্গা পুজো, কদমতলা দূর্গা পুজো কমিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই মর্মান্তিক ঘটনায় নিহত এবং আহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে, শুক্রবার জেলা প্রশাসন দ্বারা আয়োজিত কার্নিভালে অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিল। এরপর একে একে এই উৎসবে অংশগ্রহণ না করার কথা জানায়, জেলার বেশ কিছু পুজো কমিটি। চিঠি দিয়ে অনুষ্ঠানে অংশ না নেবার কথা জানান, কয়েকজন কাউন্সিলরও।

আরও পড়ুনঃ ‘দুর্নীতি করে চাকরি’, তাড়াতে চায় না রাজ্য, “চাকরি যাবেই”, বিচারপতি গাঙ্গুলি

এই নিয়ে বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ি জেলাশাসকের কার্যালয়ে শহরের দূর্গা পুজো কমিটি-গুলোকে নিয়ে, একটি বিশেষ বৈঠক ডাকা হয়। যদিও তার আগেই জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর এবং থানার পক্ষ থেকে ফোন করে পুজোর উদ্যোক্তা-দের জানিয়ে দেওয়া হয়, মাল নদীতে মর্মান্তিক ঘটনার কারণে জলপাইগুড়ি শহরের কার্নিভাল বাতিল করা হল।

এই প্রসঙ্গে জলপাইগুড়ি পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সৈকত চট্টোপাধ্যায় জানান, “মালবাজারে মাল নদীতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনার জন্য, জেলার ঘোষিত কার্নিভাল অনুষ্ঠান বাতিল করেছে প্রশাসন”। পুজোর পরেই শোকের পরিবেশ, জেলা জুড়েই। The News বাংলার তরফ থেকে, এই দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারকে জানাই, সমবেদনা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন