সীমান্ত পেরিয়ে আবার জঙ্গি ঘাঁটিতে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতের

447
সীমান্ত পেরিয়ে আবার জঙ্গি ঘাঁটিতে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতের/The News বাংলা
সীমান্ত পেরিয়ে আবার জঙ্গি ঘাঁটিতে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতের/The News বাংলা

সীমান্ত পেরিয়ে আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতের। তবে এবার পাকিস্তানে নয়। এবার মায়ানমার সীমান্তে জঙ্গি ঘাঁটিগুলোর ওপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাল ভারত। তবে সরকারি সূত্রে এখনও কিছু জানান হয়নি এই বিষয়ে।

পুলওয়ামা কান্ডের রেশ এখনও কাটেনি। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ঠিক এক মাস আগে গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি ভারতীয় জওয়ানদের ওপর হামলা চালায় জইশ ই মহম্মদ সন্ত্রাসবাদী সংগঠন। শহিদ হন ৪৯ জন জওয়ান। তার পরিপ্রেক্ষিতে ২৬শে ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের মাটিতে সার্জিক্যাল এয়ার স্ট্রাইক চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। আর এবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালান হল ভারত মায়ানমার সীমান্তে। ২০১৫ ও ২০১৮ সালের পর পুনরায় মায়ানমার সীমান্তে জঙ্গি ঘাঁটিগুলোর ওপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাল ভারত।

আরও পড়ুনঃ মসজিদে বন্দুকধারীর গুলি বৃষ্টি, হতাহত বহু

জানা গেছে, মায়ানমার ভূখন্ডে ভারত মায়ানমার সীমান্তের কাছে ভারত ও মায়ানমায়ের যৌথ উদ্যোগে রোহিঙ্গা ও নাগা জঙ্গিদের ওপর আঘাত হানা হয়। ভারত মায়ানমার সীমান্তের বিস্তৃত অংশ ঘন বনাঞ্চলে আবৃত। আর সেখানেই গড় উঠেছিল বেশ কয়েকটি রোহিঙ্গা ও নাগা জঙ্গি ঘাঁটি। এই সন্ত্রাসবাদী ঘাঁটিগুলো থেকে ক্রমাগত মায়ানমারের অভ্যন্তরে অচলাবস্থা তৈরি করা হচ্ছিল এবং ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকায় অপরাধে প্রশ্রয় দেওয়ায় এদের প্রত্যক্ষ মদত ছিল।

আরও পড়ুনঃ ফের তৃণমূলের বড় উইকেট পতনের সম্ভাবনা, বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা

অবশেষে জঙ্গিদের ঘাঁটিগুলো ধংস করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যৌথ তরফে। এরপর গত দুই সপ্তাহ ধরে অভিযান চালিয়ে ঘাঁটিগুলো গুড়িয়ে দেওয়া হয়। পাক জঙ্গি সংগঠনগুলি এই রোহিঙ্গা ও নাগা জঙ্গিদের সাহায্যে মায়ানমারের পাশাপাশি ভারতেও জঙ্গি হামলা ঘটাতে পারে বলেই আশঙ্কা ছিল ভারতীয় গোয়েন্দাদের। এইজন্য এই জঙ্গি ঘাঁটি গুলি ধ্বংস করা দরকার ছিল।

আরও পড়ুনঃ অর্জুনকে ওপেন চ্যালেঞ্জ অভিষেকের, দীনেশ ত্রিবেদীকে ২ লাখ ভোট জেতাব

মিজোরাম লাগোয়া মায়ানমার সীমান্তে বহুদিন ধরেই সক্রিয় আরাকান আর্মি। সম্প্রতি ভারত মায়ানমারের সাথে উন্নত যোগাযোগের লক্ষ্যে বেশ কিছু প্রকল্প গড়ে তোলে এইজায়গায়। কিন্তু আরাকান আর্মি ও নাগা সন্ত্রাসবাদীরা এই কাজে বাধার সৃষ্টি হচ্ছিল। তার পরিপ্রেক্ষিতেই মায়নামারের সঙ্গে যৌথ ব্যবস্থা নেয় ভারত। এই সন্ত্রাসবাদীদের পেছনে পাক ও চিনের মাথাও কাজ করছে বলে গোয়েন্দাদের তরফে জানান হয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ পশ্চিমবঙ্গে নজিরবিহীন ৭ দফা ভোটে সুবিধা বিজেপির

এর ফলে শুধু ভারত পাক সীমান্তে নয়, ভারতের সব সীমান্তেই জঙ্গি গোষ্ঠী ধ্বংস করার লক্ষ্যে ফের সফল ভারতীয় সেনা। পুলওয়ামা কান্ডের পরেই ভারতের তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল যে ভারতের যেকোন সীমান্তেই জঙ্গি কার্যকলাপ ধ্বংস করা হবে। তার পরেই প্রথমে পাকিস্তান ও পরে মায়ানমার সীমান্তে ধ্বংস করা হল জঙ্গি ঘাঁটি।

আরও পড়ুনঃ বাংলার কোন লোকসভা আসনে কবে ভোট দেখে নিন

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন