দরজি কানহাইয়ালালের দোকানের কাছে, মহরমের তাজিয়ায় আগুন নেভাল হিন্দু পরিবার

66
দরজি কানহাইয়ালালের দোকানের কাছে, মহরমের তাজিয়ায় আগুন নেভাল হিন্দু পরিবার
দরজি কানহাইয়ালালের দোকানের কাছে, মহরমের তাজিয়ায় আগুন নেভাল হিন্দু পরিবার

দরজি কানহাইয়ালালের দোকানের কাছে, মহরমের তাজিয়ায় আগুন নেভাল হিন্দু পরিবার। বিজেপির বহিষ্কৃত নেত্রী নূপুর শর্মার পয়গম্বর নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের পর, উদয়পুরে খু’ন হন দরজি কানহাইয়ালাল। এবার উদয়পুরের সেই এলাকাতেই দেখা গেল, হিন্দুদের সম্প্রীতির ছবি। মুসলিম সম্প্রদায়ের মহরমের শোভাযাত্রায় ঘটতে পারত, একটা বড়সড় দুর্ঘটনা। আগুন লেগে যায় মহরমের তাজিয়ায়, আর তা নেভাতে ঝাঁপিয়ে পড়ল স্থানীয় হিন্দুরা। রুখে দিল বড়সড় দুর্ঘটনা। বুঝিয়ে দিল, শান্তির বাণী কিভাবে ছড়িয়ে দিতে হয়।

মঙ্গলবার উদয়পুর শহরে বেরয়, মহরমের একাধিক শোভাযাত্রা। দরজি কানহাইয়ালালের দোকানের কাছে, মোছিওয়াড়া স্ট্রিটেও বের হয় একটি ধর্মীয় শোভাযাত্রা। তাতে ছিল ২৫ ফুট উঁচু তাজিয়া। বাড়ির ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষজনও, উপভোগ করছিলেন সেই ধর্মীয় উৎসব। কিন্তু কোনওভাবে হঠাৎই, ওই তাজিয়াতে আগুন ধরে যায়। নিচে শোভাযাত্রায় যাঁরা ছিলেন তাঁরা কেউই তা টের পাননি, ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে শোভাযাত্রা দেখা হিন্দু পরিবারের চোখে পড়ে। তাঁরা চিৎকার করে অগুন লাগার কথা জানান। এবং সময় নষ্ট না করে উপর থেকেই, বালতি-বালতি জল ছুঁড়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা শুরু করেন।

আরও পড়ুনঃ পয়গম্বর বিতর্ক, সুপ্রিম কোর্ট বড়সড় স্বস্তি দিল বহিষ্কৃত বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মাকে

পুলিশ-প্রশাসন জানিয়েছে, “আগুন লাগার ব্যাপারটা টের পাননি শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। ব্যালকনি থেকে হিন্দু পরিবারটি, জল ঢেলে আগুন নেভান। স্থানীয় হিন্দুদের উদ্যোগে দুর্ঘটনা এড়ানো গেছে। তারচেয়ে বড় কথা, এই ঘটনা সা’ম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির”।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন