জেলের খাটে উঠলেন প্রভাবশালী পার্থ, মেঝেতেই পরে রইলেন ঘনিষ্ঠ অর্পিতা

59
জেলের খাটে উঠলেন প্রভাবশালী পার্থ, মেঝেতে পরে রইলেন ঘনিষ্ঠ অর্পিতা
জেলের খাটে উঠলেন প্রভাবশালী পার্থ, মেঝেতে পরে রইলেন ঘনিষ্ঠ অর্পিতা

জেলের খাটে উঠলেন প্রভাবশালী পার্থ, কিন্তু মেঝেতেই পরে রইলেন ঘনিষ্ঠ অর্পিতা। প্রাক্তন মন্ত্রীর অনুরোধে, প্রেসিডেন্সি জেল কর্তৃপক্ষ; ঘুমানোর জন্য খাট দিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। অন্যদিকে, আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারের সেলে; মেঝেতে কম্বল মাথায় দিয়ে শুয়ে থাকতে হল পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতাকে। অত্যাধিক শারীরিক স্থূলতার কারনে, প্রথম রাত প্রেসিডেন্সি জেলের সেলে; কমোডে বসেই কাটিয়েছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার জেলের সেলে রাতে মাটিতে চারটি কম্বল পেতে; কোনক্রমে শুয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু সেভাবেও রাতে ঘুম আসেনি প্রাক্তন মন্ত্রীর। তাই শনিবার রাতে তাঁকে একটি চৌকি মতো খাট; দেওয়া হয়েছে জেল কর্তৃপক্ষের তরফে।

জেল কোডের সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে; জেশপ বিল্ডিং থেকে পার্থর জন্য একটি ‘চৌকিখাট’ বরাদ্দ করা হয়। এদিকে প্রেসিডেন্সি জেলে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে লক্ষ করে; অন্য কয়েদীরা টিপ্পনী কাটে। কিছু বন্দি তাঁকে লক্ষ্য করে; নানা কুৎসিত অঙ্গভঙ্গি করতে থাকে। এমনকী অর্পিতার নাম ধরেও; নানা অশ্রাব্য মন্তব্য করে। জেলের মধ্যে মা-কালীর ছবিতে মালা দিতে গেলে; তাঁকে চোর-চোর বলে ডাকেন কিছু বন্দী। গালিগালাজও শুনতে হয় পার্থকে।

আরও পড়ুনঃ পার্থের পরে কি মমতা, খুশিতে ‘ডগমগ’ কুণালের মুখ বন্ধ করল তৃণমূল

অন্যদিকে পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা এখনও মাঝে-মাঝেই; ফুঁপিয়ে কেঁদে উঠছেন জেলের মধ্যে। তবে তার কোন খাট জোটেনি, রাত কাটছে মেঝেতে শুয়ে; এপাশ-ওপাশ করে। প্রভাবশালী খাট পেলেন, আর প্রভাবশালীর ঘনিষ্ঠ হয়েও; মানুষের টাকায় ফুর্তি মারার ফল ভোগ করতে হচ্ছে অর্পিতাকে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন