‘পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ’, দুর্নীতির দাগ মেটাতে মরিয়া প্রয়াস তৃণমূলের

68
পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ, দুর্নীতির দাগ মেটাতে মরিয়া প্রয়াস তৃণমূলের
পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ, দুর্নীতির দাগ মেটাতে মরিয়া প্রয়াস তৃণমূলের

‘পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ’, দুর্নীতির দাগ মেটাতে মরিয়া প্রয়াস তৃণমূলের। তৃণমূলের সমর্থনে এবার নতুন হোর্ডিং উত্তর কলকাতায়। আর তাতে লেখা, ‘পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ’। সুকিয়া স্ট্রিট এবং সংলগ্ন এলাকায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া হোর্ডিং ঘিরে, রাজনৈতিক মহলে আবারও শোরগোল। কয়েকদিন আগে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি সহ, একটি পোস্টারে ছেয়ে ছিল শহর। যেখানে ডাক দেওয়া হয়েছিল, নতুন তৃণমূলের। ঠিক এরপর আবারও এক নতুন পোস্টার ছখে পড়ল শহরবাসীর, ‘পুরাতনই ভিত্তি, নতুনই ভবিষ্যৎ’।

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি, অনুব্রত মণ্ডলের সিবিআই হেফাজত নিয়ে তৃণমূলের একের পর এক হেভিওয়েট নেতার দিকে যখন দুর্নীতির অভিযোগ চরমে উঠেছে, তখনই দক্ষিণ কলকাতায় পড়েছিল এমনই পোস্টার। সেই পোস্টারে শুধুমাত্র অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ছিল। তাতে বার্তা ছিল, ৬ মাসের মধ্যে আসছে নতুন তৃণমূল, ঠিক যেমন সাধারন মানুষ চায়। তবে এবারের নতুন পোস্টারে একত্রে দেখা যাচ্ছে নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ও সাংসদ অভিষেককে। এই পোস্টারকে কেন্দ্র করেও, রাজ্য রাজনীতিতে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা।

আরও পড়ুনঃ নন্দীগ্রামের সমবায় ভোটে শুভেন্দুকে ‘গো-হারান’ হারাল তৃণমূল

তৃণমূলের এই পোস্টার ইস্যুকে হাতিয়ার করে, শাসকদলকে খোঁচা দিতে ছাড়েনি বিরোধীরা। অনেকের মনে পরেছে বাম আমলের স্লোগানের কথা, ‘কৃষি আমদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ’। তবে বাংলার অধিকাংশ মানুষ মনে করছেন, “দলের দুর্নীতি থেকে মানুষের নজর ঘোরাতেই, একের পর এক নতুন হোর্ডিং লাগাচ্ছে তৃণমূল নেতরা”।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন