অভিষেকের স্ত্রী রুজিরাকে শুল্ক দফতরের সামনে হাজিরার নির্দেশ হাইকোর্টের

944
অভিষেকের স্ত্রী রুজিরাকে শুল্ক দফতরের সামনে হাজিরার নির্দেশ হাইকোর্টের/The News বাংলা
অভিষেকের স্ত্রী রুজিরাকে শুল্ক দফতরের সামনে হাজিরার নির্দেশ হাইকোর্টের/The News বাংলা

ভোটের মধ্যেই বড়সড় সমস্যায় পড়লেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বিমান বন্দর কাণ্ডে তাঁর স্ত্রী রুজিরা নারুলাকে শুল্ক দফতরে হাজিরা দিতে হবে বলে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। ৮ এপ্রিল রুজিরাকে ডেকে পাঠায় শুল্ক দফতর। ওই সমন চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা করেন অভিষেকের স্ত্রী। সেই মামলা খারিজ করে অভিষেকের স্ত্রী রুজিরাকে শুল্ক দফতরের সামনে হাজিরার নির্দেশ দেন হাইকোর্টের বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজ।

আরও পড়ুনঃ মোদী কি করে প্রধানমন্ত্রী হল ভগবান জানে, মাথাভাঙায় বিস্ফোরক মমতা

তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রীকে শুল্ক দফতরের হাজিরা দিতেই হবে। ৮ এপ্রিল হাজিরার জন্য সমন পাঠায় শুল্ক দফতর, এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে গিয়েছিলেন অভিষেকের স্ত্রী। হাইকোর্ট জানিয়েছে হাজির দিতেই হবে। তবে রুচিরার বিরুদ্ধে আপাতত কোনও কড়া পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না। এছাড়াও শুল্ক দফতরের সঙ্গে সবরকমের সহযোগিতা করতে হবে অভিষেকের স্ত্রীকে।

আরও পড়ুনঃ ভোটের মুখে তৃণমূল সভাপতির বাড়ি থেকে উদ্ধার অস্ত্র ও কোটি কোটি টাকা

১৫ মার্চ রাতে বিদেশ থেকে ফেরার পথে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা নারুলার ব্যাগ তল্লাশিকে ঘিরে তোলপাড় হয়েছিল রাজ্য রাজনীতি। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এবং রাজনৈতিক কারণে গণ্ডগোল পাকানোর অভিযোগ করেছিলেন অভিষেক। বিজেপির তরফে পাল্টা অভিযোগ তুলে বলা হয়েছিল বিমানবন্দর এলাকায় তাদের সাহায্য করতে গিয়েছিল স্থানীয় পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ দিল্লিতে গান্ধী ও বাংলায় বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারতন্ত্রকে ব্রিগেডে খোঁচা মোদীর

রুজিরা অভিযোগ করেন, তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন শুল্ক আধিকারিকরা। শুল্ক দফতর জানিয়েছে, রুজিরা প্যান কার্ডে একাধিক অসংগতি থাকায় বলে সমন পাঠানো হয়েছে। বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজ নির্দেশ দেন, ৮ এপ্রিল শুল্ক দফতরে হাজিরা দিতে হবে রুজিরাকে। তবে এখনই
তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে পারবেন না শুল্ক আধিকারিকরা।

আরও পড়ুনঃ অ্যান্টি স্যাটেলাইট টেস্ট নিয়ে নাসার অভিযোগ উড়িয়ে দিল ভারত

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেকের স্ত্রী রুজিরা নারুলাকে নোটিস পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিদেশ সংক্রান্ত বিভাগ। তথ্য গোপন করে প্যান কার্ডের আবেদন করার অভিযোগ উঠেছে ডায়মন্ড হারবারের সাংসদের স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুনঃ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ না মেনে বিমল গুরুং কে গ্রেফতার করতে পারেন মমতা

অভিষেকের স্ত্রী নিজের থাইল্যান্ড পাসপোর্টও প্রত্যাহার করেননি। তাঁর কাছে রয়েছে ওভারসিস সিটিজেন অব ইন্ডিয়া কার্ড। কিন্তু প্যান কার্ডের আবেদনে তা উল্লেখ করেননি বলে অভিযোগ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক নোটিসে জানতে চেয়েছে, প্যান কার্ডের জন্য ৪৯এ ফর্ম পূরণ করেছেন থাইল্যান্ডের নাগরিক রুজিরা নারুলা। কিন্তু ওই ফর্ম ভারতীয় নাগরিকদের জন্য। ৪৯এএ ফর্ম কেন পূরণ করেননি রুজিরা?

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে রাজ্য পুলিশও থাকছে বুথে, বিরোধী শিবিরে জোর ধাক্কা

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নোটিস বলছে, ২০১০ সালের ৮ জানুয়ারি থাইল্যান্ডের নাগরিক রুজিরা PIO কার্ড নম্বর P234979। ওই কার্ডে তাঁর বাবার নাম নিপন নারুলা। PIO কার্ড থেকে OIC কার্ডে পরিবর্তনের জন্য আবেদন করেন অভিষেকের স্ত্রী। ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর OIC কার্ড A2B79448 পান রুজিরা।

আরও পড়ুনঃ ভারতীকে রাজ্যে ঢোকা থেকে আটকাতে সুপ্রিম কোর্টে মমতা

২০১৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি অভিষেকের সঙ্গে বিয়ের শংসাপত্র প্রমাণ্য দলিল হিসেবে দিয়েছিলেন রুজিরা। বিয়ের শংসাপত্রে তাঁর বাবার নাম গুরশরণ সিং আহুজা। কেন মিথ্যা তথ্য ও তথ্য গোপন করেছেন, তা ১৫ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে। ওই সময়ের মধ্যে জবাব না এলে উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে বলে উল্লেখ রয়েছে চিঠিতে।

আরও পড়ুনঃ এক্সপায়ারি বাবুকে চ্যালেঞ্জ স্পিডব্রেকারের, বাংলায় মোদী মমতা তরজা তুঙ্গে

বিষয়টি নিয়েই অভিষেকের আইনজীবী সঞ্জয় বসু সংবাদমাধ্যমকে জানান, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নোটিসের জবাব দেবেন অভিষেকবাবুর স্ত্রীর। পরে অবশ্য নোটিস প্রাপ্তির কথা অস্বীকার করেন সঞ্জয় বসু। এর আগে ২ কেজি সোনা বিদেশ থেকে আনার অভিযোগ উঠেছিল অভিষেকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে। সাংবাদিক বৈঠকে অভিষেক দাবি করেন, ২ গ্রাম সোনাও দেখাতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব। সোনা আনা হলে কেন বাজেয়াপ্ত করা হয়নি, সেই প্রশ্নও তোলেন অভিষেক।

আরও পড়ুনঃ মমতার দাবি না মেনে জঙ্গলমহল থেকে ৩০ কোম্পানি বাহিনী তুলছে নির্বাচন কমিশন

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন