পুরসভার ময়লাফেলার গাড়ির খালাসিও, তৃণমূল আমলে কোটি কোটি টাকার মালিক

73
পুরসভার ময়লাফেলার গাড়ির খালাসিও, তৃণমূল আমলে কোটি কোটি টাকার মালিক
পুরসভার ময়লাফেলার গাড়ির খালাসিও, তৃণমূল আমলে কোটি কোটি টাকার মালিক

পুরসভার ময়লাফেলার গাড়ির খালাসিও, তৃণমূল আমলে কোটি-কোটি টাকার মালিক। গরু পাচার মামলায় সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়েছে, তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তার নিজের ও ঘনিষ্ঠদের নামে, প্রায় ১৭ কোটি টাকার ফিক্সড-ডিপোজিট বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সেই সূত্র ধরে সিবিআই স্ক্যানারে এসেছেন, তাঁর একাধিক ঘনিষ্ঠরা। তাঁদেরই একজন বিদ্যুৎবরণ গায়েন, সিবিআই সূত্রে খবর। অনুব্রত ধরা পড়ার পর থেকেই, বিদ্যুৎবরণের নাম ও সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে জোর চর্চা বোলপুরে।

কে এই বিদ্যুৎবরণ গায়েন? জানা গেছে, বোলপুরের ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কালিকাপুরের বাসিন্দা বিদ্যুৎবরণ। একটা সময়ে বোলপুর পুরসভার ময়লা-ফেলার গাড়ির খালাসি হিসেবে কাজ করতেন। ওই ওয়ার্ডেরই নিচুপট্টি এলাকার বাসিন্দা অনুব্রতের পরিবারের সঙ্গে, ২০১১ সালের আগে থেকেই তাঁর ঘনিষ্ঠতা। রাজ্যে পালাবদলের পরেই বিদ্যুতবরণের জীবনযাত্রাও, ‘বিদ্যুৎগতিতে’ বদলে গিয়েছে বলে এলাকার বাসিন্দারা জানাচ্ছেন।

২০১১ সালেই বোলপুর পুরসভায় বিদ্যুৎবরণের চাকরি হয়। অভিযোগ, যত দিন গড়িয়েছে তাঁর সম্পত্তিও তত বেড়েছে। এলাকার বাসিন্দাদের দাবি, কালিকাপুরে তার তিনটি বাড়ি, একটি দামি গাড়ির পাশাপাশি রয়েছে আরও একাধিক সম্পত্তি ও জমি। অনুব্রত তো বটেই, তাঁর মেয়ে সুকন্যার সঙ্গেও বিদ্যুৎবরণের ‘ঘনিষ্ঠতা’ ছিল বলে, বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে। বহু ছবিতে এক-ফ্রেমে বিদ্যুৎ-সুকন্যাকে দেখা যাচ্ছে।

সুকন্যার নামে দুটি কোম্পানির হদিস পেয়েছে সিবিআই। সেই দুটিতেই সুকন্যার পাশাপাশি যুগ্ম ডিরেক্টর হিসেবে রয়েছে বিদ্যুৎবরণের নাম। তাঁর সঙ্গে অনুব্রতের ঘনিষ্ঠতা কতটা, ব্যবসায়িক সম্পর্কই বা কী—এ সবই খতিয়ে দেখেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন