মায়ের পর এবার মোদীর বাবাকে নিশানা করে কুমন্তব্য কংগ্রেসের

657
The News বাংলা

The News বাংলা, নিউ দিল্লিঃ চলছে ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি। আর রাজ্যগুলোর ভোটের দিনক্ষণ যত এগিয়ে আসছে, রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মধ্যে পরস্পরকে আক্রমন, প্রতি আক্রমণ ততই বেড়ে চলেছে। আর ‘কুমন্তব্য’র কাদা ছোঁড়াছুড়িতে কংগ্রেস নেতারা যেন উঠে পড়ে লেগেছেন। টার্গেট সেই নরেন্দ্র মোদী। মায়ের পর এবার মোদীর বাবাকে নিশানা করে কুমন্তব্য কংগ্রেস সাংসদের।

আরও পড়ুনঃ রামমন্দির নয়, হিন্দু ক্ষোভ থামাতে অযোধ্যায় রামমূর্তির ঘোষণা যোগীর

Image Source: Google

ব্যক্তিগত আক্রমণ করতে গিয়ে শালীনতার সীমা অতিক্রম করাটা যেন কিছুতেই কংগ্রেস নেতাদের পিছু ছাড়ছে না। প্রায়শই তারা কুমন্তব্য করে বিতর্কে জড়াচ্ছেন। গত বৃহস্পতিবার, রাজস্থানে একটি নির্বাচনী জনসভায় কংগ্রেস নেতা রাজবব্বরের একটি বক্তৃতাকে ঘিরে সৃষ্টি হয়েছে তুমুল বিতর্ক। মোদী জমানায় ডলারের তুলনায় টাকার দাম পড়া নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে ডলারের দামের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর মায়ের বয়সের তুলনা টেনে বিপাকে পড়েন এই নেতা।

আরও পড়ুন: ‘পহেলে মন্দির, ফির সরকার’ আশঙ্কায় ‘বাবরি মসজিদের’ অযোধ্যা

Image Source: Google

নরেন্দ্র মোদীর ৯৮ বছর বয়সী মা হীরাবেনকে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মোদীর জামানায় যেভাবে টাকার দাম তলানিতে ঠেকেছে তাতে খুব শীঘ্রই তা মোদীর মায়ের বয়সকে ছুঁয়ে ফেলবে। গতকাল শনিবারই নরেন্দ্র মোদী এই কটাক্ষের জবাব দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী তার জবাবে বলেন, কংগ্রেস তাঁর সঙ্গে লড়াই করতে না পেরে, তাঁর মাকে নিয়ে মন্তব্য করতে শুরু করেছে।

Image Source: Google

আর এবার প্রধানমন্ত্রীর বাবাকে তুলে মন্তব্য করে বিতর্কের জড়ালেন আরেক কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বিলাসরাও মুত্তেম্বর। বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য, রবিবার সকালে টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানেই মহারাষ্ট্রের এই কংগ্রেস সাংসদকে বিতর্কিত মন্তব্য করতে শোনা যায়।

আরও পড়ুন: “নীচু জাতের মোদীর হিন্দু ধর্ম নিয়ে বলার অধিকার নেই” বিতর্কে কংগ্রেস নেতা

ভিডিওতে দেখা যায়, কংগ্রেসের এই নেতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পিতৃ পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি বলেন যে, প্রধানমন্ত্রীর বাবার নাম কেউ জানে না। কিন্তু রাহুল গান্ধীর বাবা, ঠাকুমার নাম সারা বিশ্ব জানে।

The News বাংলা

তিনি আরও বলেন, রাহুল গান্ধী রাজনীতিতে আসার আগে থেকেই সকলে তাদের পূর্বপুরুষদের সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। মতিলাল নেহেরু, জওহরলাল নেহেরু থেকে শুধু করে ইন্দিরা, রাজীব সকলের নামই উল্লেখ করে তিনি গান্ধী-নেহেরু পরিবারের সুপরিচিতির কথা জানান দেন। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর বাবাকে কেউ চেনে না। তাঁর এই ধরনের কোনো সুপরিচিতি নেই।

আরও পড়ুন: গরু তুমি কার ? বিজেপির ‘গোমাতা’য় হাত কংগ্রেসের

উল্লেখ্য, কিছু দিন আগেই ছত্তীসগড়ে ভোট প্রচারে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী গান্ধী পরিবারের বাইরে থেকে অন্য কাউকে কংগ্রেসের দলীয় সভাপতি করার জন্য চ্যালেন্জ ছূঁড়ে দেন। তার পরেই কংগ্রেস নেতার এই ধরনের বক্তব্যকে কংগ্রেসের আত্মঘাতী গোল বলেই অনেকে মনে করছেন। সমালোচকরা বলছেন, এতে কংগ্রেসের দিকে ওঠা পরিবারতন্ত্রের বিষয়টিকেই মান্যতা দেওয়া হল।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন