Exclusive: ভারতবাসীকে ‘জ্ঞান’ দেওয়া প্রিয়াঙ্কা নিজে কি করলেন

664
Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা
Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা

The News বাংলা, মুম্বাই: কথায় আছে ‘নিজের বেলা আটিশুঁটি, পরের বেলায় দাঁত কপাটি’। তার জ্বলন্ত উদাহরণ বলিউড হার্টথ্রব প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ভারতবাসীকে জ্ঞান দেওয়া প্রিয়াঙ্কা নিজের বেলায় সব জ্ঞান ভুলে গেলেন।

শনিবারই ধূমধাম করে বিয়ে হল নিক প্রিয়াঙ্কার। বিয়ে সম্পন্ন হওয়ার পর টানা ২ ঘন্টা ধরে আতশবাজি ফাটানো হয়। কয়েক কোটি টাকার ফটকা, বাজিও ফাটানো হয়েছে। জানা গেছে, এই বাজি বিদেশ থেকে আনা হয়েছিল, যার মূল্য কয়েক কোটি টাকা। লাগাতার ২ ঘন্টা ধরে আতশবাজি পোড়ান হয়, বাজি ফাটানও হয়।

Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা
Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা

স্মরণ করিয়ে দি, ইনি সেই প্রিয়াঙ্কা চোপড়া যিনি কিছুদিন আগেই বাজি মুক্ত, দূষণ মুক্ত দীপাবলি পালনের জন্য ভারতবাসীদের জ্ঞান দিয়েছিলেন। মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই প্রিয়াঙ্কা চোপড়া টিভি মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় এসে আতশবাজি মুক্ত, বায়ুদূষণ মুক্ত দীপাবলি পালনের জন্য সবাইকে জ্ঞান দিয়েছিলেন।

সংবাদসংস্থা এএনআই একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। তাতেই পুরো ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। দীপাবলীতে কি জ্ঞান দিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা? আবার একবার শুনে নিন প্রিয়াঙ্কার সেই জ্ঞান।

দেখে নিন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার দ্বিমুখী রুপঃ

এখন সেই প্রিয়াঙ্কা নিজের বিয়েতে টানা ২ ঘন্টা ধরে বাজি ফাটিয়ে বায়ুদূষণ করে তার আসল রূপ দেখিয়ে দিলেন। প্রিয়াঙ্কার কাছে উৎসবে আতশবাজি ফাটান পরিবেশ বিরোধী কাজ কিন্তু নিজের বিয়েতে আতশবাজি পোড়ানো উচিত কাজ।

দু ঘন্টার বেশি সময় ধরে কয়েক কোটি টাকা খরচা করে কি হল সেটাও দেখে নিন একবার। কোথায় গেল পশু-পাখিদের জন্য এত চিন্তা?
কোথায় গেল এত সচেতনতা? কোথায় গেল এত জ্ঞান? নিজের বিয়েতে সব ভুলে গেলেন এই জ্ঞানী?

দেখুন টানা দু ঘণ্টা ধরে কি হল প্রিয়াঙ্কার বিয়েতেঃ

প্রিয়াঙ্কার হিপোক্রেসি নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন ওঠে গেছে। মুখে এক, কাজে এক, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার এই দুরকম রূপে অবাক বলিউড দুনিয়াও। জ্ঞান দেবার সময় কেন মনে থাকে না, নিজে সেটা মনে রাখতে পারবে তো ?

এরপর যারা এই ধরনের প্রচার করেন তাঁরা দুবার ভাববেন এই ধরনের কোন ফিল্ম নায়ক নায়িকাদের নিয়ে এই ধরণের সচেতনতা মূলক প্রোগাম করবেন কিনা। যারা নিজেরাই নিজের বেলায় নিয়মকানুন মানে না, তারা কি করে ভারতবাসীকে জ্ঞান দিতে আসে। প্রশ্ন উঠেছে।

সত্য সেলুকাস, কি বিচিত্র এই দেশ। বাংলা প্রবাদটাই একেবারে ঠিক। ‘নিজের বেলা আটিশুঁটি, পরের বেলায় দাঁত কপাটি’।

Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা
Double Standrad Priyanka Chopra/The News বাংলা

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন