অনেক চমক নিয়ে ২৪ তম কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল শুরু

516
Image Source: Google
Simple Custom Content Adder

The News বাংলা, কলকাতা: শনিবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে উদ্বোধন হয়ে গেল ২৪ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন, শাহরুখ খান, কাজল সহ অনেকেই। ছিলেন বাংলা ফিল্ম ও টেলিভিশনের অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও।

চলচ্চিত্র উৎসব উপলক্ষ্যে শনিবার দুপুরেই শহরে এসে পৌঁছান অমিতাভ বচ্চন ও শাহরুখ খান। বিমানবন্দরে তাঁদের দেখতে ছিল অনুরাগীদের ভিড়। তাঁদের উদ্দেশে হাত নাড়তেও দেখা যায় এই দুই সুপারস্টারকে। অমিতাভ, শাহরুখ ছাড়াও কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে ছিলেন জয়া বচ্চন, ওয়াহিদা রহমান, মহেশ ভাট প্রমুখ।

Image Source: Google

এই চলচ্চিত্র উৎসবে উপস্থিত ছিল প্রায় গোটা টলিউড। ছিলেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, দেব, আবির চট্টোপাধ্যায়, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, কোয়েল মল্লিক, রঞ্জিত মল্লিক, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় প্রমুখ।

আরও পড়ুন: আমার আপনার ‘অসুখ’ নিয়ে কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ‘অসুখওয়ালা’

ছিলেন প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতা, অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, মাধবী মুখোপাধ্যায়। এছাড়াও অস্কার পুরস্কার প্রাপ্ত বিখ্যাত ইরানীয় পরিচালক মজিদ মাজিদিও অতিথি হিসেবে এসেছিলেন এই অনুষ্ঠানে।

Image Source: Google

কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল চলবে, ১০ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত৷ এ বছর এই চলচ্চিত্র উৎসবে ৩৩২টি ছবি দেখানো হবে ৷ বিদেশি ছবির পাশাপাশি বাংলা ছবির স্ক্রিনিং-এর ওপর কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বেশ কিছু বছর ধরেই। এই বছর ফিল্ম দেখানোর কেন্দ্র ১৪ থেকে বাড়িয়ে ১৬ টি করা হয়েছে। নয়া কেন্দ্র হাওড়া। সঙ্গে দমদমও রয়েছে।

আরও পড়ুন: ভয়ংকর বিপদের মধ্যেই বিয়ে করতে গেলেন রণবীর দীপিকা

এ বছর বাংলা ছবির রমরমা যেন আরও কিছুটা বেশি। এ বছরের উদ্বোধনী ছবি উত্তম-তনুজা অভিনীত অ্যান্টনি ফিরিঙ্গী। ‘শতবর্ষে বাংলা চলচ্চিত্র’ নামের আলাদা বিভাগও রয়েছে উৎসবে। ১১ থেকে ১৭ নভেম্বর প্রতিদিন বিকেল চারটে এবং ছটার সময় চলচ্চিত্র শতবর্ষ ভবনে এই বিভাগের ছবি প্রদর্শিত হবে।

Image Source: Google

ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কলকাতার ফিল্ম ফেস্টিভাল বিশ্বসেরা। এত বড় উৎসব আর কোথাও হয় না। এই উৎসবের উদ্দেশ্য বিশ্বের সিনেমাকে প্রতিটি পাড়ায় পৌঁছে দেওয়া”।

আরও পড়ুন: ‘দঙ্গল’ ও ‘বাহুবলী ২’ কে টেক্কা দেবে ‘থাগস অফ হিন্দুস্তান’

তবে সংস্কৃতির মঞ্চেও সেই ৩৪ বছরের প্রসঙ্গ টানলেন মমতা। “আমিই নন্দন থেকে এটা (চলচ্চিত্র উৎসব) নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়ামে নিয়ে এলাম। এবার ২০,০০০ থেকে এক লক্ষ মানুষের বসার জায়গা করব। সিনেমা দেখার জায়গা করব”, বললেন মুখ্যমন্ত্রী।

Image Source: Google

রশিদ খানের গান দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। তারপর তেজেন্দ্র নারায়ণ মজুমদারের সরোদ এবং বিক্রম ঘোষের তবলা, এবং লোপামুদ্রা মিত্রের গান। অমিতাভ বচ্চনকে সম্মান প্রদান করেন দেব। দেওয়া হয় KIFF ট্রফি। শাহরুখ খানকে আপ্যায়ন করেন মিমি। বাংলা সিনেমার ১০০ বছর পূর্তির উপলক্ষে ট্রফি উন্মোচন হয়। কোয়েল মল্লিক ট্রফি প্রদান করেন ওয়াহিদা রহমানকে।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সেরা একশোয় সত্যজিতের পথের পাঁচালি

নিজের বক্তব্যে বাংলা ছবির সংরক্ষণের অভাবের কড়া ভাষায় সমালোচনা করলেন অমিতাভ। আবার রাজ্য সরকারকে ছবি সংরক্ষণের ব্যবস্থা করার জন্য ধন্যবাদও জানালেন তিনি। বাংলা ও হিন্দি সিনেমার পর্দার নেপথ্যের হিরোদের নিয়ে কথা বললেন তিনি। সুব্রত মিত্র, গুরু দত্ত, রণবীর কাপুর, মৃণাল সেন, কার কথা বলেন নি সেখানে !

Image Source: Google

ভানু আথাইয়ার নাম উল্লেখও করলেন বিগ বি। যিনি গান্ধী ফিল্মের জন্য প্রথম ভারতীয় হিসাবে অস্কার পেলেও “যোগ্য সম্মান পান নি” বলেই জানান অমিতাভ। পরিচালনা, সিনেমাটোগ্রাফি, এডিটিং, পোস্ট প্রডাকশন, মহিলা সিনেমাটোগ্রাফার – সবার সিনেমার জার্নি নিয়ে কথা বললেন তিনি।

আরও পড়ুন: যৌনতা কেন্দ্রিক বিনোদনের জন্য বিশ্বের সেরা ২০ টি ঠিকানা

এবার একনজরে দেখে নেওয়া যাক কোন কোন সিনেমা এবার নমিনেশন পেয়েছে।
ইন্টারন্যাশনাল ছবির ক্যটাগরিতে নমিনেশন পেয়েছে চূর্ণী গাঙ্গুলী পরিচালিত ছবি ‘তারিখ’।

Image Source: Google

ইন্ডিয়ান ল্যঙ্গুয়েজ ক্যটাগরিতে রয়েছে অরিজিত বিশ্বাস পরিচালিত ‘সূর্য পৃথিবীর চারিদিকে ঘোরে’, অরূপ মান্না পরিচালিত ‘আমৃত্যু’, ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্ত পরিচালিত ‘কেদারা’, অর্জুন দত্ত পরিচালিত ‘অব্যক্ত’ এবং অরুণ রায় পরিচালিত ‘হীরালাল’।

আরও পড়ুন: নিক প্রিয়াঙ্কার নতুন বিলাসবহুল বাড়ির অন্দরমহলে

ইন্ডিয়ান শর্ট ফিল্ম ক্যটাগরিতে নমিনেশন পেয়েছে দেবজ্যোতি রায় চৌধুরী পরিচালিত ‘অনুগামী’, তথাগত ঘোষ পরিচালিত ‘দৈত্য’, সম্রাট চক্রবর্তী পরিচালিত ‘বিষাদ বিন্দু’, রাতুল মূখার্জী পরিচালিত ‘পালক’, নিলিমেশ কর পরিচালিত ‘অন্তরালে অনন্যা’, সৌরভ দাস পরিচালিত ‘কফির দাগ’ ,তংসু কর্মকারের ‘ধূপকাঠি’।

The News বাংলা

সুযোগ পেয়েছে ডাইরেক্টর পলাশ দে-র অসুখওয়ালা। আগামী ৭ দিন কলকাতাবাসীর সঙ্গে আপনিও মেতে উঠুন কলকাতা আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন