প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার, পোস্টার কংগ্রেসের

581
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা

শুধু ইন্দিরা গান্ধীর ফিরে আসা নয়, একেবারে ‘মা দুর্গার অবতার’ হয়ে এসেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এইভাবেই গতকাল রাজনীতির মঞ্চে পা রাখা প্রিয়াঙ্কাকে স্বাগত জানাল কংগ্রেস নেতৃত্ব। ‘ইন্দিরা ইজ ব্যাক’ পোস্টারে উত্তরপ্রদেশের সব কংগ্রেস পার্টি অফিস ছেয়ে গেছে। সেখানে প্রিয়াঙ্কার মধ্যে ইন্দিরার প্রত্যাবর্তন এর পাশাপাশি তাঁকে মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার হিসাবে তুলে ধরা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ মোদীর বিরুদ্ধে ইন্দিরা তাস খেলতে রাহুলের কংগ্রেসে প্রিয়াঙ্কা

একটি পোস্টার। পাশাপাশি মা দুর্গা আর ইন্দিরা গান্ধীর ছবি। একটু নীচে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মুখ। মাথার উপর তেরঙ্গা হরফে লেখা, ‘ইন্দিরা ইজ ব্যাক’। ছবিটা লখনউয়ের কংগ্রেস পার্টি অফিসে। দলীয় কর্মীদের হাতে হাতে ঘুরছে এই পোস্টার। প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সক্রিয় রাজনীতিতে যোগদানের মধ্যে ‘ইন্দিরার প্রত্যাবর্তন’ দেখতে শুরু করেছেন কংগ্রেস কর্মীরা। সেই সঙ্গে তাঁকে একেবারে ‘মা দুর্গার অবতার’ বলে ঘোষণা করে দিল কংগ্রেস। প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মধ্যে ‘মা দুর্গাকেই’ দেখছে উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেস।

আরও পড়ুনঃ মোদীর মাস্টারস্ট্রোকে দেশ পেতে পারে প্রথম মহিলা বাঙালি সিবিআই প্রধান

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা
মোদীর বিরুদ্ধে ইন্দিরা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা

সক্রিয় রাজনীতিতে যোগদানের বহু আগে থেকেই কংগ্রেসের তুরুপের তাস প্রিয়াঙ্কা। বহু কংগ্রেস নেতা কর্মীই তাঁর মধ্যে ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধীর ছায়া দেখতে পান। ব্যক্তিত্ব ঠিক ঠাকুমার মতোই। একইরকম সুতির শাড়ি ও ববকাট চুলের মধ্যে ইন্দিরার উপস্থিতি স্পষ্ট। কবে তিনি রাজনীতিতে আসবেন যেন তার প্রতীক্ষাতেই ছিল কংগ্রেস নেতারা। বুধবার সেই ঘোষণা করে রাহুল গান্ধী, কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটান। গোটা দেশের পাশাপাশি প্রবল খুশির হাওয়া উত্তরপ্রদেশের সব কংগ্রেস অফিসেও।

আরও পড়ুনঃ

বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাবান মার্কিন প্রেসিডেন্টের পদে এক হিন্দু নারী

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ‘ভাবনার বিপ্লব’ ভাবনা কস্তুরীর হাত ধরে

লোকসভা ভোটের আগে এটাকেই তুরুপের তাস হিসাবে দেখছে কংগ্রেস। তাই উচ্ছ্বসিত পার্টি কর্মীদের হাতে হাতে ঘুরছে ‘ইন্দিরা ইজ ব্যাক’ পোস্টার। সেখানে লেখা হয়েছে, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীজি ‘মা দুর্গার অবতার’। আর এই সিদ্ধান্তের জন্য কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে ধন্যবাদ দিতেও ভোলেননি তারা। শুধু লখনউয়ের পার্টি অফিস নয়, উৎসবের চেহারা গান্ধী পরিবারের খাসতালুক আমেথি ও রায়বেরিলিতেও।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মা দুর্গার সাক্ষাৎ অবতার/The News বাংলা

গোটা উত্তরপ্রদেশের পাশাপাশি গোটা দেশেই এই ‘মা দুর্গার অবতারের’ পোস্টার ছড়িয়ে দেওয়া হবে এমনটাই কংগ্রেস সূত্রে জানা যাচ্ছে। বিশেষ করে বাংলায় ও পূর্ব ভারতে তো বটেই। ইন্দিরার পাশাপাশি মা দুর্গার আবেগকেও কাজে লাগাতেও চেষ্টা করছে কংগ্রেস, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে মা দুর্গা হিসাবে তুলে ধরে কি নরেন্দ্র মোদীকে অসুর বলছে কংগ্রেস? উঠেছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ জন্মদিনে নেতাজি সুভাষের মৃত্যুদিন নিয়ে ছেলেখেলা রাহুলের কংগ্রেসের

পূর্ব উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন তিনি। অন্যদিকে, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে৷ উত্তরপ্রদেশে মোদী-যোগী-অমিত শাহকে রুখতে দুই তরুণ তুর্কি, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াই এবার ভরসা রাহুলের।

আরও পড়ুনঃ মার্চেই শুরুতেই ভারতে লোকসভা ভোটের ঘোষণা

রাজ্যের দুই অংশের দায়িত্ব প্রিয়াঙ্কা ও জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার মধ্যে ভাগাভাগি করা হয়েছে। কিন্তু প্রচারের জন্য ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে কার হাতে কত আসন থাকবে, তা হাইকমান্ডের তরফে স্পষ্ট করা হয়নি। যদিও কংগ্রেস সূত্রের খবর, দুজনের হাতেই ৪০টি করে আসনের দায়িত্ব ছাড়া হতে পারে। গান্ধী পরিবারের খাসতালুক আমেথি ও রায়বেরিলি পূর্ব উত্তরপ্রদেশের অন্তর্গত। সেই সূত্রে এই দুই আসনের দায়িত্বে প্রিয়াঙ্কাকেই দেখা যাবে।

আরও পড়ুনঃ ভোটের আগে মানুষের মুখে হাসি ফোটাবে মোদী সরকারের অন্তর্বর্তী বাজেট

কংগ্রেসের সামনে এখন একদিকে বিজেপি, অন্যদিকে এসপি-বিএসপি জোট। এই অবস্থায় কংগ্রেস নেতৃত্বের বিশ্বাস, প্রিয়াঙ্কার সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশ দলীয় কর্মীদের প্রবলভাবে উদ্বুদ্ধ করবে। এই জোড়া চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে সাহায্য করবে কংগ্রেসকে। আর তাই ‘ইন্দিরা ইস ব্যাক’ ধ্বনি তোলার পাশাপাশি প্রিয়াঙ্কাকে একেবারে ‘মা দুর্গার অবতার’ বানিয়েই দিল রাহুলের কংগ্রেস।

আরও পড়ুনঃ

বাংলায় ক্ষোভ বাড়িয়ে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের বেতন বাড়াচ্ছে মোদী সরকার

ব্রিগেড থেকে ফিরেই ভোলবদল, মমতা নয় রাহুলকেই প্রধানমন্ত্রী চাইলেন নেতারা

রাজ্যের হাতে টাকা নেই বাজারে ধার, তারপরেও বিধায়কদের ভাতা বাড়ছে

পাহাড়ে মোর্চা বিজেপির সঙ্গেই, গোপন আস্তানা থেকে বার্তা বিমল গুরুংয়ের

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন