ভারত সরকারের সতর্কবার্তায় কানই দেয়নি, ইউক্রেনে পড়তে যাওয়া পড়ুয়াদের অভিভাবকরা

166
Indian Students Parents on Russia Ukraine Conflict
ভারত সরকারের সতর্কবার্তায় কানই দেয়নি ইউক্রেনে পড়তে যাওয়া পড়ুয়াদের অভিভাবকরা

ভারত সরকারের সতর্কবার্তায় খিল্লি করেছিল; ইউক্রেনে পড়তে যাওয়া পড়ুয়ারা। ভারত সরকারের সতর্কবার্তায় কানই দেয়নি; ইউক্রেনে পড়তে যাওয়া পড়ুয়াদের অভিভাবকরা। রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হয়েছে ২৪ ফেব্রুয়ারি; আর ভারত সরকার প্রথমবার তাদের লিখিত নোট দিয়ে সাবধান করেছিল গত ১৫ই ফেব্রুয়ারি। ৯ দিন হাতে সময় ছিল ইউক্রেন ছাড়ার; বা মূল শহর ছেড়ে সীমান্তের দিকে সরে যাবার। ১৮ই ফেব্রুয়ারি ভারত সরকার বিশেষ বিমান তৈরি রেখেছিল; ইউক্রেনে থাকা পড়ুয়াদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য। কিন্তু টাকা খরচা করে কেউই দেশে ফিরতে চায়নি। যুদ্ধ শুরু হবার পরেও; ভারতীয়দের রোমানিয়া সীমান্তের দিকে চলে যাবার নির্দেশ দিয়েছিল ভারত সরকার। কানেই তোলেনি বেশিরভাগ ছাত্র-ছাত্রীর বাবা-মা। ভারত সরকারের কথা সেই সময় শুনলে; তাহলে এই পরিস্থিতি আসত না।

যখন যুদ্ধ শুরুর আগে গোয়েন্দা রিপোর্টের ভিত্তিতে; ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের ভারতীয় ছাত্রছাত্রীদের দেশে ফিরে আসার জন্য বারে বারে অ্যাডভাইসারি জারি করা হচ্ছিল; ফিরে আসার অনুরোধ করা হচ্ছিল; শুধু ভারত নয় পৃথিবীর শক্তিশালী সব দেশগুলো সতর্ক করে দিচ্ছিল; তখনও ইউক্রেনে ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা এই নিয়ে ভারত সরকারের খিল্লি করেছিল। সেই ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এখন যারা ভারত সরকারকে দোষ দিতে ব্যস্ত; তখন তারা খিল্লি করছিল তাদের জন্য সরকারের অ্যাডভাইসারি; মিডিয়া তথা দেশের মানুষের উদ্বেগ নিয়ে। আজ এরাই চরম বিপদের মধ্যে থেকে; দেশে ফেরার জন্য সাহায্যের প্রত্যাশী।

ভারত সরকার এদের উদ্ধার করে, সরকারি খরচে ফ্রি তে দেশে ফিরিয়ে আনার পর; এদেরই কেউ কেউ বলছে; কেন আমাকে দিল্লি বা মুম্বাই বিমানবন্দর থেকে বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করে দেওয়া হল না। কেন আমাকে ফাইভ স্টার হোটেলে রাখা হল না; কেন বিমানের পরিষেবা আরও ভাল ছিল না!

আমেরিকা, জার্মানি, চিন, ব্রিটেন এই মুহূর্তে তাদের দেশের নাগরিকদের; ইউক্রেন থেকে ফেরানো যাবে না বলে পরিষ্কার ঘোষণা করে দিয়েছে। সেই জায়গায় একমাত্র দেশ ভারত; তাদের নাগরিকদের ফেরাচ্ছে। ৯০ শতাংশ নাগরিককে ভারত সরকার ইতিমধ্যেই দেশে ফিরিয়েছে। এবং কেন্দ্র সরকারের সতর্কবাণী উপেক্ষা করে যারা এখনও রয়ে গেছেন; তাদেরও আগামী ১-২ দিনে ফেরানোর পরিকল্পনা করেছে ভারত। তবে সত্য কথা তাঁদের জানা দরকার; যারা শুধুই সমালোচনা করছেন ভারতের।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন