মোদী জমানায় সুরক্ষিত রয়েছে মন্দির, বারাণসীতে বললেন মোদী

257
মোদী জমানায় সুরক্ষিত রয়েছে মন্দির, বারাণসীতে বললেন মোদী/The News বাংলা
মোদী জমানায় সুরক্ষিত রয়েছে মন্দির, বারাণসীতে বললেন মোদী/The News বাংলা

বৃহস্পতিবার বারাণসীতে নরেন্দ্র মোদীর রোড শো প্রত্যক্ষ করেছে সারা দেশ। কয়েক লক্ষ মানুষের সমাবেশে ৭ কিলোমিটার লম্বা রোড শো করেন প্রধানমন্ত্রী। গেরুয়া পতাকা, বেলুন আর বিজেপি সমর্থকদের পোশাকে যেনো গেরুয়াময় হয়ে উঠেছিল বারাণসী। শোভাযাত্রার পরেই এক সমাবেশে মোদী বলেন, তিনি ক্ষমতায় ছিলেন বলেই সুরক্ষিত রয়েছে মন্দির।

এদিন বিকেলে লাখো মানুষের মোদীমন্ত্রে শুরু হয় শোভাযাত্রা। সাথে ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, অমিত শাহ থেকে দলের অনেক হেভিওয়েট নেতা। শোভাযাত্রার শেষে গঙ্গার তীরবর্তী দশাশ্বমেধ ঘাটে সন্ধ্যা আরতিতে অংশ নেন নরেন্দ্র মোদী। তারপরেই একটি নির্বাচনী জনসভায় অংশ নেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে থামাতে কংগ্রেস ‘তন্ত্র মন্ত্র’ ব্যবহার করছে

জনসভায় নরেন্দ্র মোদী দাবি করেন, গত ৫ বছরে কোনও মন্দিরে সন্ত্রাসবাদী হানা হয়নি। উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে প্রথম ইউপিএ সরকারের সময় বারাণসীর সঙ্কটমোচন মন্দিরে বিষ্ফোরনে বহু মানুষের মৃত্যু হয়। ক্ষমতায় প্রত্যাবর্তন হলে দেশের সব মন্দির সুরক্ষিত থাকবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ কালভৈরব মন্দিরে পুজো দিয়ে বারাণসীতে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন নরেন্দ্র মোদী

এদিন সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গেও তাঁর সরকারের কড়া পদক্ষেপের কথা জানান তিনি। পুলওয়ামার সন্ত্রাসবাদী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানে এয়ার স্ট্রাইক করে প্রতিশোধের ঘটনায় তাঁর সরকারের কৃতিত্ব নেন তিনি। সন্ত্রাসবাদ দমনে বিজেপি সরকার বদ্ধ পরিকর বলে জানান তিনি। জম্মু ও কাশ্মীরের কিছু অংশে সন্ত্রাসবাদ সীমাবদ্ধ বলে তিনি মন্তব্য করেন, তাছাড়া সারা দেশ থেকেই সন্ত্রাসবাদের শিকড় উৎখাত করা হয়েছে বলে দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ বাড়ি নেই, গাড়ি নেই, বাংলার অন্যতম গরিব প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

শুক্রবার মনোনয়নপত্র জমা দেবার আগে কর্মীসভা করেন নরেন্দ্র মোদী। দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে এমন একটি বার্তা দেন মোদী, যা তাঁর মুখে খুব একটা শোনা যায় না। বিরোধীদের শত্রু হিসেবে যেন না দেখা হয়, সেই কথাই বলেন প্রধানমন্ত্রী। মোদীর কথায়, “কে কোন দলের প্রার্থী হয়েছে, সেটা নিয়ে বেশি চর্চা করবেন না। বিরোধীরাও গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করার জন্যই রয়েছে। ওরা আমাদের শত্রু নয়”। পাশাপাশি কে কত ভোটে জিতল সেটা নিয়েও যাতে বেশি চর্চা না হয়, সেই বার্তাও দেন নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুনঃ কালভৈরব মন্দিরে পুজো দিয়ে বারাণসীতে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন নরেন্দ্র মোদী

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যারতির পর গঙ্গায় মহাপুজো। দেশের মঙ্গলকামনায় ত্রিবেণী সঙ্গম আরতি করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেও জনপ্লাবন। ২০১৪ চেয়েও বেশি। শুক্রবার সকালে আরও একপ্রস্থ শক্তি প্রদর্শন হল। এনডিএ শরিক দলগুলির শীর্ষনেতাদের নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন নরেন্দ্র মোদী। ২০১৪-র সাফল্যের পুনরাবৃত্তি হবে কিনা তার উত্তর পেতে এখনও চার সপ্তাহের অপেক্ষা। তবে ২০১৯ এ মোদীর বারাণসী কিন্তু ছাপিয়ে গেল ২০১৪ কেও।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন