কংগ্রেস ছেড়ে মমতার ‘মহানায়িকা’ এবার মোদীর বক্স অফিসে

471

The News বাংলা, কলকাতা: মমতার হাত ছেড়ে এবার মোদীর হাত ধরলেন অভিনেত্রী। মমতার ‘মহানায়িকা’ এবার সোজা মোদীর বক্স অফিসে। বুধবার দিল্লিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন অভিনেত্রী মৌসুমী চ্যাটার্জি।

আরও পড়ুন: নারী ঢোকায় ‘অপিবত্র’ শবরীমালা, ‘শুদ্ধ’ করার জন্য বন্ধ মন্দির

“নরেন্দ্র মোদী আমার পছন্দের মানুষ”, বুধবার এই বলেই দিল্লিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন মৌসুমী চ্যাটার্জি। নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কাজ করতে চান, বলে জানান ‘বালিকা বধূ’। কয়েকদিন আগেও মমতার সঙ্গে তৃণমূল ও রাজ্য সরকারের অনেক অনুষ্ঠানেই দেখা যেত মৌসুমী চ্যাটার্জিকে। ২০১৪ লোকসভা ভোটেই তৃণমূলের হয়ে দাঁড়াবার কথা উঠেছিল মৌসুমীর। সবাইকে অবাক করেই বুধবার দিল্লিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন তিনি।

আরও পড়ুন: ভোরবেলায় শবরীমালা মন্দিরে ঢুকে ইতিহাস সৃষ্টি ‘মা দুর্গার’

২০১৪ র ২৪শে জুলাই, উত্তমকুমারের প্রয়াণ দিবসে নজরুল মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতার হাত থেকেই ‘মহানায়িকা’ পুরস্কার নেন মৌসুমী চ্যাটার্জি। তখন বাংলার শাসক দলের খুব কাছেই ছিলেন তিনি। বিভিন্ন সময়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর প্রশংসাই করেছেন হেমন্তকুমারের পুত্রবধূ।

আরও পড়ুনঃ দেশপ্রেম বাড়াতে স্কুলের রোল কলে এবার ‘জয় হিন্দ’ ও ‘জয় ভারত’

প্রতি বছর ২৪ জুলাই চলচ্চিত্রে অবদানের স্বীকৃতি দেয় রাজ্য সরকার। উত্তম কুমারের প্রয়াণ দিবসে রাজ্য সরকারের এই সম্মাননা। ২০১৪তেই ‘মহানায়িকা’ সম্মান পান মৌসুমী চ্যাটার্জি। আর ‘মহানায়ক’ নামাঙ্কিত পুরস্কার ওঠে অভিনেতা দেবের হাতে। মমতার পছন্দের না হলে যে এই পুরস্কার পাওয়া যায় না, এমনই অভিযোগ বিরোধীদের।

আরও পড়ুন: শেখ হাসিনাকে প্রথম অভিনন্দন জানালেন নরেন্দ্র মোদী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এই সেদিনও ফিল্মফেয়ারের মঞ্চেও মমতার পাশেই ছিলেন মৌসুমী। এখন, মমতার হাত ছেড়ে সোজা বিজেপিতে! মৌসুমীর দলবদল নিয়ে আশ্চর্য হয়েছেন টালিগঞ্জের কলাকুশলীরাও। তবে এরকম যে হতে পারে তা আগেই জানা গিয়েছিল। ইতিমধ্যেই রূপা গাঙ্গুলি থেকে শুরু করে লকেট চ্যাটার্জী জায়গা করে নিয়েছেন বিজেপিতে। এবার মৌসুমী।

আরও পড়ুনঃ অবিশ্বাস্য জয়, ২৯৯ আসনের মধ্যে ২৮৮ আসনে জিতে ফের ক্ষমতায় শেখ হাসিনা

তবে রাজনীতিতে এই প্রথম নয়। এর আগেও ২০০৪ সালে কংগ্রেসের হয়ে লোকসভা ভোটে দাঁড়ান তিনি। কলকাতা উত্তর-পূর্ব লোকসভা নির্বাচনে সেবার কংগ্রেস প্রার্থী ছিলেন তিনি। রাজনীতির ময়দানে অবশ্য প্রথম ভোটের লড়াইয়ে পরাজিত হন মৌসুমী। তিনি হারেন সিপিএমের মহম্মদ সেলিমের কাছে। এরপর কোন দলের হয়েই রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে দেখা যায়নি তাঁকে।

আরও পড়ুনঃ নতুন বছরে পেট্রোল ডিজেলের দাম রেকর্ড কমতে চলেছে

তবে ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকে শুরু করে, মমতার রাজ্য সরকার ও তৃণমূল কংগ্রেসের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা যেত তাঁকে। মমতা ও তৃণমূল কংগ্রেসের বারবার প্রশংসাও করেছেন তিনি। বরং এই প্রথম তাঁকে নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করতে দেখা গেল।

আরও পড়ুনঃ চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার

তবে কলকাতায় না করে সোজা দিল্লিতে কেন? নামের ধার ও ভার বাড়াতেই কি দিল্লি থেকে? লোকসভায় বাংলা থেকে মৌসুমী চ্যাটার্জীকে দাঁড় করানো হবে বলেই খবর। কলকাতা বা কলকাতার আশেপাশের কোন লোকসভা কেন্দ্র থেকেই তাঁকে ভোটে দাঁড় করানো হবে বলেই খবর। ২০১৯ লোকসভা ভোটেই কি এবার দিদির বিরুদ্ধে দিদির ‘মহানায়িকা’!

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন