বিজেপিকে হারাতে গুন্ডাদেরও ভোট দিন, বিতর্কিত মন্তব্য আপ প্রার্থীর

318
বিজেপিকে হারাতে গুন্ডাদেরও ভোট দিন, বিতর্কিত মন্তব্য আপ প্রার্থীর/The News বাংলা
বিজেপিকে হারাতে গুন্ডাদেরও ভোট দিন, বিতর্কিত মন্তব্য আপ প্রার্থীর/The News বাংলা

বিজেপিকে হারাতে গুন্ডাদেরও ভোট দিন, বিতর্কিত মন্তব্য আপ প্রার্থীর। আর আপ নেত্রীর মন্তব্যে বিতর্কের ঝড় উঠেছে দেশ জুড়ে। আপ প্রার্থীর সমালোচনায় নেমেছে বিজেপি। রাজধানী দিল্লীতে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে এই নিয়ে।

বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্ক তৈরি করলেন পূর্ব দিল্লী লোকসভা কেন্দ্রের আম আদমি পার্টির প্রার্থী অতিশী মারলেনা। দিল্লীর টিকোনা পার্কে জামিয়া কালেকটিভ নামের একটি সংগঠনের আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই বিতর্কিত আপ প্রার্থী বলেন, বিজেপিকে হারাতে যদি গুন্ডাদেরও ভোট দিতে হয়, সেক্ষেত্রে সেই গুন্ডাকেই ভোট দিতে হবে।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রীর চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতা বেশি, দাবি মমতার

অতিশী বলেন, নিজেদের রাজনৈতিক দলকে জয়ী করতে তারা নিজেদের দলের প্রতি দায়বদ্ধ। তাই জয়ের জন্য সম্ভাবনাময় সকল দিক থেকেই তারা বিজেপিকে হারিয়ে জয়ের চেষ্টা চালাবেন। কিন্তু এই মুহূর্তে কোনও একটি রাজনৈতিক দলের পক্ষে একার লড়াইয়ে বিজেপিকে পরাজিত করা সম্ভব নয় বলে তিনি জানান। তাই অন্যান্য রাজনৈতিক দলের প্রতি নির্ভরশীলতা রাখার কথা বলেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশের উদাহরণ টেনে অতিশী বলেন, উত্তরপ্রদেশের এসপি এবং বিএসপি বিলে বিজেপিকে হারানোর ক্ষমতা রাখে। সেক্ষেত্রে আম আদমি পার্টির সমর্থক হিসেবে তাদের কি করা উচিৎ, বলে জনতার উদ্দেশ্যে প্রশ্ন করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ মমতার তোষণ নীতির জন্য বাংলায় আসছে ভয়ঙ্কর ইসলামিক স্টেট জঙ্গিরা

এরপর নিয়েই প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। উত্তরপ্রদেশের মতো আপ সমর্থকদেরও এসপি বিএসপি জোটের সূত্র ধরে এগোনো উচিৎ বলে মন্তব্য করেন তিনি। এক্ষেত্রে যাদের সমর্থন করা হবে, তাদের বিষয়ে বিস্তারিত জানার প্রয়োজন নেই, প্রার্থী যেই হোক, বিজেপিকে হারাতে তাকেই সমর্থন করতে হবে বলে তিনি জানিয়ে দেন৷

কেউ একজন অতিশীকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, বিজেপি বিরোধী ব্যক্তি যদি সমাজবিরোধী বা গুন্ডা হন, তাহলে কি করা উচিৎ। সেই সূত্র ধরেই সভায় অতিশী বলেন, সেক্ষেত্রে বিজেপিকে হারাতে সেই গুন্ডাকেই সমর্থন করতে হবে, গুন্ডাকে সমর্থন করার চেয়েও বিজেপিকে হারানো বেশি জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ সোমবার বাংলার ৮ টি আসনে ভোট, দেখে নিন একনজরে ৮ কেন্দ্রে ভোটের কিছু তথ্য

এরপরেই বিজেপির তরফে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়েছে। বিরোধীদের ইস্যু হাতে নেই বলে সমাজবিরোধীদের সমর্থন করতেও ছাড়ছে না বলে কটাক্ষ করেছে বিজেপি। এদিকে অতিশীর নাম নিয়েও কটাক্ষ করেছে বিজেপি।

বিজেপির বক্তব্য, অতিশীর আসল নাম অতিশী মারলেনা। কিন্তু এটি খ্রিস্টান নাম হওয়ায় ভোটের বাজারে নিজের আসল খ্রিস্টান পদবী পাল্টে ‘সিং’ পদবী রেখেছেন৷ অতিশীর যদিও দাবি, তার আসল পদবী ‘সিং’, কিন্তু তার মা বাবা কার্ল মার্কস এবং ভ্লাদিমির লেনিন, এই উভয়ের নাম থেকে সংযুক্তি করে অতিশীর পদবী রেখেছেন।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন