প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না, তাই ফনী নিয়ে মোদীকে তথ্য দিতে নারাজ মমতা

449
প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না, তাই ফনী নিয়ে মোদীকে তথ্য দিতে নারাজ মমতা/The News বাংলা
প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না, তাই ফনী নিয়ে মোদীকে তথ্য দিতে নারাজ মমতা/The News বাংলা

প্রধানমন্ত্রীকেই মানেন না; তাই ফনী নিয়ে মোদীকে তথ্য দিতে নারাজ মমতা। বারবার কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যের কাছে ফণী ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে তথ্য চাইলেও; সেই তথ্য দিতে রাজি নয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার।

ফনী এখন অতীত। কিন্তু ফনীকে কেন্দ্র করে; রাজনৈতিক উত্তাপ ক্রমবর্ধমান। ভোটপ্রচার এর ময়দান ছাড়িয়ে; মোদী মমতা তরজা এখন প্রশাসনিক কাজেও। উত্তাপের পারদ চড়েছে কয়েক গুন। ফনী বিদায় নিলেও ফনীর ক্ষয়ক্ষতি সংক্রান্ত তথ্য; কেন্দ্রকে জানাতে নারাজ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রীকে থাপ্পড় মন্তব্যের জের, মমতাকে সংযত হবার বার্তা সুষমার

ফনী মোকাবেলায় দুর্যোগ শুরুর আগেই; প্রাথমিকভাবে ফনী প্রভাবিত রাজ্য অন্ধ্র, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের জন্য ১০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছিল কেন্দ্র সরকার। অভিযোগ, দুর্যোগ সম্পর্কে জানার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে যোগাযোগ না করে; রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সাথে যোগাযোগ করা হয় কেন্দ্রের তরফে। আর তাই অপমানিত হয়ে; কেন্দ্রকে ফনী সংক্রান্ত তথ্য দিতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা পুলিশের নতুন উদ্যোগ, ভাল রেজাল্ট করায় বাবার বসের চেয়ারে একদিন

গতকাল সোমবার গোপীবল্লভপুরের জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন; তিনি এই প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না। আরও একবার মোদীকে; এক্সপায়ারি প্রধানমন্ত্রী বলে উল্লেখ করেন তিনি। এই ভোটে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলে; তাকেই ফনীর রিপোর্ট দেবেন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ চৌকিদার চোর, ক্ষমা চাওয়ার হ্যাটট্রিক করলেন রাহুল, ভোটের মধ্যেই চরম লজ্জায় কংগ্রেস

গতকাল একই সঙ্গে হলদিয়া ও ঝাড়গ্রামে; প্রধানমন্ত্রীর জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। জনসভায় নরেন্দ্র মোদী বলেন; তাঁর তরফে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে দু বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি। মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কেন্দ্রের সঙ্গে; অসহযোগিতার অভিযোগে সরব হন মোদী।

রাজ্যের অভিযোগের পর পিএমও থেকে; আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে; কেন্দ্রের তরফে রাজ্যের সাথে যোগাযোগ করা হলেও রাজ্য তাতে সায় দেয়নি। বাধ্য হয়েই রাজ্যপালের সাথে যোগাযোগ করা হয়। আর এই নিয়েই এখন সরগরম দেশ ও রাজ্যের রাজনীতি। কে সত্যি বলছেন? মমতা না মোদী? এটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন; যার উত্তর কোনদিন পাওয়া যাবে না।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন