সেনাকে ক্ষমতা দিলে কি হয় দেখল ভারতীয় রাজনীতি, টের পেল পাকিস্তান

674
সেনাকে ক্ষমতা দিলে কি হয় দেখল ভারতীয় রাজনীতি, টের পেল পাকিস্তান/The News বাংলা
সেনাকে ক্ষমতা দিলে কি হয় দেখল ভারতীয় রাজনীতি, টের পেল পাকিস্তান/The News বাংলা

একের পর হামলায় লাল হয়েছে ভারতের মাটি। একের পর এক শহিদের রক্তে দেশ দিয়েছে বলিদান। বারবার আক্রমণের অনুমতি চেয়েছে ভারতীয় সেনা। পথ আটকে দাঁড়িয়েছে ভারতের রাজনীতি। ১৯৯৯ সালে পাকিস্তানের কার্গিল দখলের সময়ও পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরে জঙ্গি ঘাটিতে আক্রমণের অনুমতি চেয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিনী। মেলেনি অনুমতি। ভারতীয় সেনার হাতে দায়িত্ব দিলে কি হতে পারে তা এবার জানল ভারতীয় রাজনীতি। হাড়ে হাড়ে টের পেল পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানে ঢুকে দুই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে ফির একবার মোদী সরকার

পুলওয়ামা হামলার পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছিলেন ভারতীয় সেনাকে স্বাধীন ক্ষমতা দেওয়া হল। এই ঘোষণার ফল কি হতে পারে তা অনুমান করতে পারেননি ভারতীয় জনতা, রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরাও। মঙ্গলবার গোটা দেশের সঙ্গে তাঁরাও বুঝলেন ভারতীয় সেনার হাতে স্বাধীন ক্ষমতা দিলে কি হতে পারে। আর সেটাই হাড়ে হাড়ে টের পেল পাকিস্তান। আর প্রাণ দিয়ে বুঝল পাক জঙ্গিরা।

আরও পড়ুনঃ সেনার সঙ্গে রাত জেগে পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গি খতমের নেতৃত্বে চৌকিদার

মাত্র ১৯ মিনিট সময় লেগেছে। তার মধ্যেই কাজ শেষ। পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে ভারতের ১২টি মিরাজ ফাইটার জেট ১০০০ কেজি বোমা ফেলে ধ্বংস করে দিল পাকিস্তানের মাটিতে থাকা গড়ে ওঠা সব জঙ্গি ট্রেনিং ক্যাম্প। পুলওয়ামা কাণ্ডের যোগ্য জবাব দিল ভারত। নিকেশ ২৫০ থেকে ৩০০ জঙ্গি। ১৯ মিনিটের অপারেশনে মাজা ভেঙ্গে গেছে পাকিস্তানের, বিমান বাহিনী সুত্রে এমনটাই জানান হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বাজপেয়ীর মত ভুল করেননি, পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করলেন মোদী

মঙ্গলবার ভোর ৩.৩০ এ শুরু হয় অপারেশন। ভোর সাড়ে তিনটেয় ভারতীয় বায়ুসেনার হিন্ডন এয়ারবেস থেকে আকাশে ওড়ে ১২টি মিরাজ ২০০০ জঙ্গিবিমান পাকিস্তানের বালাকোট এ প্রথম হামলা করে বিমান বাহিনী ভোর ৩.৪৫-৩.৫৩ এর মধ্যে। মুজাফরাবাদ এ ৩.৪৮-৩.৫৫। ও চাকোটিতে বোমা ফেলে ৩.৫৮ থেকে ৪.০৪ এর মধ্যে। ১৯ মিনিটের অপারেশনে সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত সীমান্ত পাড়ের পাক জঙ্গি ঘাঁটিগুলি। মৃত ৩০০ জঙ্গি।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে জঙ্গি মারল ভারতের বিমান

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ৩টি এলাকার প্রায় ১০-১২ টি জায়গায় প্রায় ১০০০ কেজি বোমা ফেলে তারা। ধুলোয় মিশিয়ে দেওয়া হয় বালাকোট, মুজাফরাবাদ ও চকোটিতে জঙ্গিশিবিরগুলি। ২০ মিনিটের মধ্যে অপারেশন শেষ করে ভারতে ফেরে বিমানগুলি। এই হামলায় জইশ-ই-মহম্মদের ঘাঁটি সহ বহু জঙ্গিশিবির গুঁড়িয়ে দিয়েছে বায়ুসেনা।

আরও পড়ুনঃ ভারতীয় সেনার উপর নজরদারি করতে এসে গুলিতে ধ্বংস পাক গুপ্তচর ড্রোন

এর মধ্যে আছে বালাকোটে একটি জইশ ই মহম্মদের বড় জঙ্গি ট্রেনিং ক্যাম্প। সেটি ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। সেখানে ২৫০র উপর জঙ্গি নিকেশ হয়েছে বলেই জানা গেছে। জানা গিয়েছে, বালকোট সেক্টরে পাকিস্তানে জঙ্গিদের কন্ট্রোল রুম গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভারত। এছাড়াও একাধিক জঙ্গি শিবিরে চরম প্রত্যাঘাত এনেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। বালাকোটে এই ক্যাম্প থেকেই ভারতে পাক জঙ্গিদের নিয়ন্ত্রন করত জইশ ই মহম্মদ কর্তারা।

আরও পড়ুনঃ ১৯ মিনিটের বিমান হানায় ধ্বংস জইশ ই মহম্মদের জঙ্গি ট্রেনিং ক্যাম্প

পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে জঙ্গি মারল ভারতের বিমান। সবুজ সংকেতের অপেক্ষাতেই ছিল ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স। ঠিক যেন সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পুনরাবৃত্তি। তবে এবার মাটিতে নয়। আকাশপথে। পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করল ভারতীয় যুদ্ধবিমান।

আরও পড়ুনঃ পাক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মোদীকেই যোগ্য বলছেন দেশের মানুষ

পুলওয়ামা কাণ্ডের বদলা নিতে এক হাজার কেজি বোমা ফেলে গুঁড়িয়ে দেওয়া হল পাক মাটিতে তৈরি হওয়া একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি। হামলার কথা স্বীকার করে নিয়েছে পাকিস্তানও। ফের ভারতের সারজিক্যাল স্ট্রাইক এ কেঁপে গেল পাকিস্তান। সৌজন্যে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন