তৃণমূলের প্রচার করায় ফেরদৌসকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের

728
দেশে ফিরে ক্ষমা চাইলেন ফিরদৌস/The News বাংলা
দেশে ফিরে ক্ষমা চাইলেন ফিরদৌস/The News বাংলা

চলচ্চিত্র অভিনেতা হিসেবে দুই বাংলায় জোড়া খ্যাতি রয়েছে ফিরদৌসের। সিনেমার কাজে প্রায়ই আসেন কোলকাতায়, কিন্তু একজন বিদেশী হয়ে ভারতের নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ তিনি কিভাবে করতে পারেন, তা নিয়ে গত দুই দিন ধরেই চলছিল বিস্তর বিতর্ক। সমালোচনার মুখে পড়ে শীঘ্রই ফিরদৌসকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দিল কলকাতার বাংলাদেশ ডেপুটি হাই কমিশন।

তৃণমূলের ভোট প্রচারে বাংলাদেশী নায়ক, কড়া ব্যবস্থা নেবে কেন্দ্রীয় সরকার

গতকালই রায়গঞ্জে কানহাইয়ালাল আগরওয়ালের হয়ে তৃণমূলের ভোট প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন বাংলাদেশের বিখ্যাত চলচ্চিত্র অভিনেতা ফিরদৌস। ফিরদৌসের সাথে একই সাথে রোড শোতে ছিলেন টালিগঞ্জের অঙ্কুশ ও পায়েল। তৃণমূলের তরফে এটাকে চমক বলা হলেও বিদেশী নাগরিক কিভাবে ভারতের ভোট প্রচারে অংশ নিচ্ছেন, সেই বিষয়ে প্রশ্ন তুলে সরব হয়েছিলেন বিরোধীরা।

আরও পড়ুনঃ চৌকিদারকে চোর বলে ভোটের মুখে সুপ্রিম কোর্টের নোটিশ পেলেন রাহুল

রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বিশেষ করে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসে টলিউড অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাহচর্য আজ নতুন নয়। রাজ্যে পরিবর্তনের পর থেকেই তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের সাথে টলিউডের বহু সংখ্যক নায়ক নায়িকা সরকারের কাজে প্রার্থী হয়ে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করতে দেখা গেছে। আবার প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত না থাকলেও সরকারের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাদের আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে থাকতে দেখা গেছে।

আরও পড়ুনঃ সরকারী কর্মীদের বদলির হুমকি দিয়ে ভোটের মধ্যেই বিতর্কে তৃণমূল নেতা

ফিরদৌস যদিও জানিয়েছেন, টলিউডের কাজের ব্যাপারেই তিনি ভারতে আমন্ত্রিত হয়ে এসেছেন। কিন্তু দেখা গেল, শুধু অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ নয়, একেবারে ভোট প্রচারের ময়দানে এলেন বাংলাদেশের এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

আরও পড়ুনঃ মোদীর হেলিকপ্টারে কালো বাক্স রহস্য, নির্বাচন কমিশনে কংগ্রেস

অভিনেতা অভিনেত্রীদের ভোটের প্রচারে ব্যবহার করলে তা ভোটবাক্সে অনেকটাই ইতিবাচক ফল দেয়, তা বহুবার প্রমানিত হয়েছে। অন্তত তৃণমূল কংগ্রেসের ক্ষেত্রে বিষয়টি প্রতিষ্ঠিত সত্য, কারণ টলিউডের একাধিক প্রথম শ্রেনীর নায়ক নায়িকাকে তৃণমূল বিধানসভা অথবা লোকসভা নির্বাচনে টিকিট দিয়ে আসন দখল করেছে। শতাব্দী রায়, দেবশ্রী রায়, তাপস পাল থেকে চিরঞ্জিত চক্রবর্তী সকলেই রয়েছেন তালিকায়। কিন্তু বিদেশি অভিনেতা এনে ভোট প্রচারের ইতিহাস ভারতে নেই।

আরও পড়ুনঃ কোটি কোটি কালো টাকা উদ্ধারের পর ভোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিল নির্বাচন কমিশন

ইতিমধ্যেই এই ইস্যুকে হাতিয়ার করেছে বিজেপি সহ অন্যান্য বিরোধীরা। তারা বলছেন, দেশের মধ্যে কি আর কোনও ফিল্মস্টার পাওয়া গেলো না ? সম্প্রতি বেশ কিছু সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, রায়গঞ্জে বিজেপির জমি তৈরি হচ্ছে। এদিকে কংগ্রেসের তরফে লড়াই করবেন হেভিওয়েট প্রার্থী দীপা দাশমুন্সি। লড়াই এখানে মূলত বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে। রায়গঞ্জে উল্লেখযোগ্য সংখ্যায় রয়েছে সংখ্যালঘু ভোট। সেই ভোটেই থাবা বসাতে বাংলাদেশী স্টারকে দিয়ে ভোটের প্রচার করছে তৃণমূল; এমনই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃ কেজরীর অনুরোধে কংগ্রেসের তরফে আসন ছাড়ার প্রস্তাব আপকে

আরও পড়ুনঃ মোদীকে ভোট দিতে চাকুরী ছেড়ে ভারতে এলেন এই প্রবাসী ভারতীয়
আরও পড়ুনঃ কাশ্মীরে মেহবুবার গাড়ি লক্ষ্য করে পাথরবাজদের হামলা

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন