নিহত কর্মীদের ইস্যু করেই তৃণমূলে ফাটল ধরাতে চায় কংগ্রেস

281
Image: The News বাংলা

The News বাংলা, শিলিগুড়িঃ তৃণমূলের শক্ত দেওয়ালে ফাটল ধরাতে চোপড়ায় ধাক্কা দেওয়া শুরু করছে প্রদেশ কংগ্রেস। শুক্রবার চোপড়ার নিহত কংগ্রেস পরিবারদের পাশে দাঁড়াতে চোপড়া অভিযান প্রদেশ কংগ্রেসের। কংগ্রেস যে কতটা ঐক্যবদ্ধ তা বোঝাতে শনিবার রাজ্যের প্রথম সারির নেতারা মিলে চোপড়ার দাসপাড়া হাইস্কুলের মাঠে এক সমাবেশের ডাক দিয়েছে। এই সমাবেশ থেকে তৃণমূল হটাও দেশ বাঁচাওয়ের ডাক দেওয়া হয়েছে।

Image source: Google

‘আমাদের দুধ ভাত খেয়ে মোটা হয়ে আজকে তারা বলছেন কংগ্রেসকে সাইনবোর্ডে পরিণত করবে। অথচ গত সাড়ে সাত বছর ধরে তৃণমূল কংগ্রেস পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেসের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কোথাও পঞ্চায়েত, বিধায়ক কিংবা কাউন্সিলারদের যেন তেন প্রকারেন মিথ্যে মামলার ভয় দেখিয়ে,পুলিশ দেখিয়ে দলে নিয়ে অট্টহাসি ও উল্লাসের সাথে কংগ্রেসকে সাইনবোর্ড করার কথা বলছে’। শুক্রবার দার্জিলিং জেলা কংগ্রেসের কার্যালয়ে এক সাংবাদিক বৈঠক করে বিধায়ক তথা দার্জিলিং জেলা কংগ্রেস সভাপতি শংকর মালাকার কথাগুলি বলেন।

আরও পড়ুনঃ মোদী অমিতের রথযাত্রার পর বাংলার শুদ্ধিকরণে মমতার পবিত্র যাত্রা

সম্প্রতি দুজন কংগ্রেস কর্মী চোপড়ায় খুন হন। পাশাপাশি বহু কংগ্রেস কর্মী আক্রান্ত হন এমনকি তাদের বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। চোপড়ার কংগ্রেস কর্মী সখিরুদ্দীন সহ আরও একজন কংগ্রেস কর্মী খুনের ঘটনার অভিযোগের তীর তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। এ ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের নেতৃত্বে প্রদেশ কংগ্রেসের একটি দল রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের কাছে একটি স্মারকলিপি দেয়। পাশাপাশি রাজ্যপালকে অনুরোধ করা হয় নিহত দুই কংগ্রেস কর্মীর পরিবারের সাথে দেখা করে পুরো বিষয়টির সত্যতা জানাতে।

Image: The News বাংলা

শংকর মালাকার জানান ১৮ নভেম্বর আবার, আব্দুল মান্নান, দীপা দাসমুন্সি ও শংকর মালাকার নিহত দুই কংগ্রেস কর্মীর পরিবারদের নিয়ে রাজ্যপালের সাথে দেখা করতে যাবেন। এদিকে অভিযোগ, নিহত পরিবারগুলির পাশে রাজ্য সরকার দাঁড়ায় নি। অথচ পাশের রাজ্য অসামের খুন হওয়া বাঙালী পরিবারদের ২ লক্ষ টাকা করে দেওয়ার ঘোষনা করে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুনঃ হুমকি মুকুলকে, ভোট আসতেই ফের উত্তপ্ত বাংলার পাহাড়

শংকর মালাকার কটাক্ষ করে বলেন, ‘এ রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস কংগ্রেস কর্মীদের খুন করছেন আর পাশের রাজ্যে বাঙালী খুন হলে মমতা বন্দোপাধ্যায় সেই পরিবারগুলিকে ২ লক্ষ টাকা, সহানুভূতি ও কুমিরের কান্না কাঁদছেন’। তবে চোপড়ায় দুজন কংগ্রেস কর্মী খুনের ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার চোপড়ার দাসপাড়া স্কুল মাঠে চোপড়া অভিযানের ডাক দিয়েছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুনঃ লোকসভা ভোটের আগে ফের গুরুংকে নিয়ে লড়াই বিজেপি- তৃণমূলে

এদিন, বর্তমান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র, প্রাক্তন সভাপতি অধীর চৌধূরী, আব্দুল মান্নান, এইচ খান চৌধুরী, অভিজিৎ মুখার্জী, ভি পি সিং সহ দার্জিলিং জেলা সভাপতি শংকর মালাকার ও দলীয় কর্মীরা মিলে একটি জন সমাবেশ করবেন বলে জানান শংকর মালাকার। তিনি বলেন, ‘এখান থেকেই শুরু হবে তাদের তৃণমূল হটাও দেশ বাঁচাও আন্দোলন।

আরও পড়ুনঃ রয়েল বেঙ্গলের মৃত্যুর পর মমতার বেঙ্গল সাফারিতে ফের ‘অসুখ’

পাশাপাশি এখান থেকেই কংগ্রেস তার ঐক্যবদ্ধ রূপ দেখাতে চায় তৃণমূল কংগ্রেসকে। শংকর মালাকার এদিন বলেন,’তৃণমূল একটি শক্ত দেওয়াল। সেই দেওয়ালে বারবার ধাক্কা দিয়ে ফাটল ধরাতে হবে’। তাই প্রথম ধাক্কাটা চোপড়া থেকেই শুরু করতে চায় কংগ্রেস দল, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন