নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে

356
নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা
নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা

The News বাংলা, শিলিগুড়ি: উধাও একটি জলজ্যান্ত লেপার্ড। শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি এনক্লোজার থেকে বেরিয়ে গেল একটি লেপার্ড বা চিতাবাঘ। স্থানীয় সূত্রে পাওয়া এমন খবরে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। এইমুহূর্তে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বেঙ্গল সাফারি। সমস্ত দর্শকদের বের করে দেওয়া হয়েছে সাফারি থেকে। বাঘের আতঙ্কে মাটি নতুন বছরের প্রথম দিন। খাঁচা থেকে পালিয়ে যাওয়া চিতাটির নাম শচিন।

আরও পড়ুন: শুধুই হ্যাপি নিউ ইয়ার নয়, ১লা জানুয়ারী ঠাকুর শ্রী রামকৃষ্ণের কল্পতরু উৎসবও

নববর্ষের সকালে শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি এনক্লোজার থেকে চিতাবাঘ বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্যও ছড়িয়েছে। জানা গেছে মঙ্গলবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে। যদিও সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ এখনও কিছু বলছে না এব্যাপারে। পার্কে ঘুরতে যাওয়া পর্যটকেরা জানান, “ভেতরে আপাতত ঢুকতে দেওয়া হচ্ছেনা। আমরাও শুনলাম চিতাবাঘ বেরিয়ে গেছে”।

আরও পড়ুনঃ নতুন বছরে বাংলার কৃষকদের জন্য ‘কল্পতরু’ মুখ্যমন্ত্রী মমতা

নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা
নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা

আরও পড়ুনঃ শেখ হাসিনাকে প্রথম অভিনন্দন জানালেন নরেন্দ্র মোদী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এ বছরের জুলাই মাসে শিলিগুড়ির অদূরে বেঙ্গল সাফারিতে শুরু হয় লেপার্ড সাফারি। পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব ও বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মন এই সাফারির উদ্বোধন করেন। জুনেই রসিক বিল ও খয়েরবাড়ি থেকে মোট চারটি চিতাবাঘ নিয়ে আসা হয় বেঙ্গল সাফারিতে।

আরও পড়ুন: বিয়ের প্রলোভনে পা দিয়ে যুবতী বিক্রি হল পতিতাপল্লীতে

এ ছাড়াও গত জুনেই আলিপুর চিড়ায়াখানা থেকে তিনটি কুমীর আনা হয়। এবার থেকে হরিণ, কুমীর ছাড়াও চিতাবাঘ দেখার সুযোগ পাচ্ছেন দর্শকরা। বেঙ্গল সাফারিকে ঢেলে সাজাতে আরও পরিকল্পনা রয়েছে বলেও মন্ত্রী জানিয়েছিলেন।

আরও পড়ুনঃ অবিশ্বাস্য জয়, ২৯৯ আসনের মধ্যে ২৮৮ আসনে জিতে ফের ক্ষমতায় শেখ হাসিনা

নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা
নতুন বছরের প্রথম দিনেই চিতা বাঘ দেখতে গিয়ে বড় বিপদের সামনে/The News বাংলা

আরও পড়ুন: ১১ বছর পর দার্জিলিং কালিম্পঙে তুষারপাতে বেড়ানোর আনন্দ দ্বিগুন

ভারতে প্রথম বেঙ্গল সাফারিতেই লেপার্ড সাফারি চালু হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছেতেই বেঙ্গল সাফারি পার্ক চালু করা হয়েছিল। দিনদিন বেঙ্গল সাফারিতে আসা দর্শকের সংখ্যা বাড়ছে। গত আর্থিক বছরে ২ কোটি টাকা এখান থেকে আয় হয়েছে। জুন জুলাই দুমাসেই ৫৬ লক্ষ টাকার টিকিট বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন: ভূমিকম্পে তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়বে সল্টলেক নিউটাউনের বাড়িঘর

২০ হেক্টর জমির উপরে তৈরি হয়েছে এই লেপার্ড সাফারি। দর্শকরা যাতে ভালমতো চিতাবাঘ দেখতে পারেন সে জন্য তাদের এনক্লোজারে রাখা হয়েছে। মোট চারটি চিতাবাঘের মধ্যে দুটি পুরুষ ও অন্য দুটি মেয়ে। ছেলেদের নাম রাখা হয় সচিন, সৌরভ আর মেয়েদের নাম রাখা হয় শীতল ও কাজল।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: ৫৫ নম্বরের পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীকে ৫৯ দিয়ে এসএসসি-র নতুন কীর্তি

নববর্ষ উপলক্ষ্যে প্রচুর ভিড় হয়েছিল সাফারি পার্কে। তবে লেপার্ড বেরিয়ে যাওয়ায় আপাতত বন্ধ বেঙ্গল সাফারি। চিতা বেড়িয়ে পরায় আপাতত বাইরে নতুন বছরে আনন্দ করতে যাওয়া মানুষজন। চিতা বাঘের আতঙ্কে মাটি নতুন বছরের প্রথম দিন।

তবে, সাফারিতে পশু পাখি দেখা বন্ধ হলেও মানুষ জানতে চাইছে, নতুন বছরের প্রথম দিনে খাঁচা থেকে কে পালাল। কাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, সচিন, সৌরভ না শীতল, কাজল? শেষ পর্যন্ত জানা যায় পালিয়েছে ‘শচিন’। তবে এই ‘শচিন’ একটি পুরুষ লেপার্ড।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন