নেতা মন্ত্রীর সম্পত্তির পাহাড়, ডিএ না দিতে আদালতে গেল রাজ্য সরকার

63
নেতা মন্ত্রীর সম্পত্তির পাহাড়, ডিএ না দিতে আদালতে গেল রাজ্য সরকার
নেতা মন্ত্রীর সম্পত্তির পাহাড়, ডিএ না দিতে আদালতে গেল রাজ্য সরকার

দলের নেতা-মন্ত্রীদের সম্পত্তির পাহাড়, কিন্তু ডিএ না দিতে আদালতে গেল রাজ্য সরকার। তিনমাসের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বকেয়া ডিএ মিটিয়ে দেবার, নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্টের সেই রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে, ফের আবেদন জানাল রাজ্য। ২০মে ডিএ মামলার রায় দিয়ে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তর ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছিলেন, আগামী তিনমাসের মধ্যে সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ হিসেবনিকেশ করে মিটিয়ে দিতে হবে। আদালতের নির্ধারণ করা সেই সময়সীমা প্রায় শেষের পথে। এরই মাঝে শুক্রবার ফের ডিভিশন বেঞ্চে, আবেদন জানিয়েছে রাজ্য। এই রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানানো হয়েছে।

২০০৯ সালের জুলাই মাস থেকে, বাকি রয়েছে ডিএ বা মহার্ঘ ভাতা। এরিয়ার সহ সেই ডিএ মেটানোর দাবিতে, আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সরকারি কর্মীরা। আবেদনে বলা ছিল, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা ৩৪ শতাংশ হারে ডিএ পান। পশ্চিমবঙ্গ সরকার মাঝে ডিএ বাড়ালেও, এখনও কেন্দ্রের তুলনায় রাজ্যের কর্মীরা ৩১ শতাংশ কম পান।

আরও পড়ুনঃ ক্ষমতায় এসে সম্পত্তি বেড়েছে বহুগুণ, মামলায় গোয়েন্দাদের বাদ দিতে আদালতে মন্ত্রীরা

এই মামলায় বিচারপতিরা জানিয়েছিলেন, ডিএ বিলাসিতার জন্য নয়, প্রয়োজনের জন্য। তাই রাজ্য সরকার যেন সেই বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেয়। কোর্টের দেওয়া সেই তিনমাসের সময়সীমা, শেষ হচ্ছে ২০ অগস্ট। তার আগেই আবার আদালতের দ্বারস্থ রাজ্য। এই ঘটনায় বিরোধীরা কটাক্ষ করে বলেছেন, যে দলের নেতা-মন্ত্রীদের কোটি-কোটি টাকার সম্পত্তির পাহাড়, তারাই আবার সরকারী কর্মচারীদের প্রাপ্য টাকা আটকে রেখেছেন।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন