ভোটের হাতিয়ার, লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হিন্দু সংরক্ষণ বিল

291
সাফল্য মোদীর, লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হিন্দু সংরক্ষণ বিল/The News বাংলা
সাফল্য মোদীর, লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হিন্দু সংরক্ষণ বিল/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

The News বাংলা: লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হয়ে গেল আর্থিকভাবে দুর্বল উচ্চশ্রেণির জন্য সংশোধিত সংরক্ষণ বিল। উচ্চবর্ণের হিন্দুদের মধ্যে যাদের বার্ষিক আয় ৮ লাখ টাকার কম ও ৫ একরের কম কৃষিজমি রয়েছে তারা সরকারি চাকরি ও উচ্চশিক্ষায় সংরক্ষণের সুবিধা পাবে। ১০ শতাংশ সংরক্ষণ থাকবে তাদের জন্য।

ভোটের বছরে সংরক্ষণের মতো স্পর্শকাতর ইস‍্যুর বিরোধিতা কোনও দলই করেনি। তাই রাজ্যসভায় বিরোধীরা সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়া সত্ত্বেও সেখানে বিপুল ভোটে পাস হয়ে গেল উচ্চবর্ণ সংরক্ষণ বিল। মঙ্গলবার লোকসভায় পাস হয়েছিল বিলটি, বুধবার পাস হল রাজ্যসভায়৷ এরপর বিলটি পাঠানো হবে রাষ্ট্রপতির কাছে৷

লোকসভায় আগেই পাস হয়ে যায় সংরক্ষণ সংশোধনী বিল। মঙ্গলবার ৩২৩-৩ ভোটে, লোকসভায় এই বিল পাস করে নেয় নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার। বুধবার এই প্রস্তাব পেশ হয় রাজ্যসভায়। এদিন রাজ্যসভায় ১৬৫টি ভোট পড়েছে বিলের সমর্থনে। সাতটি ভোট পড়েছে বিপক্ষে।

আরও পড়ুনঃ

একদিনে বহিষ্কৃত দুই তৃণমূল সাংসদ, দিদিকে ছেড়ে মোদীর দলে আর কে কে

লোকসভা ভোটের আগেই মমতার ঘর ভাঙছেন মুকুল, সৌমিত্রকে দিয়ে শুরু

বাংলায় রাস্তায় বিজেপির রথ চলবে কিনা ঠিক হবে আগামী মঙ্গলবার

Exclusive: লোকসভা ভোটের আগে মমতার পুলিশে ব্যপক রদবদল, ১২০ অফিসার বদলি

বউ অদল বদল, বিকৃত যৌনাচারে ধর্ষণের অভিযোগ গৃহবধূর

উচ্চবর্ণের সংরক্ষণ জন্য এই সংশোধনীর প্রয়োজন ছিল। এই বিল পাস হওয়ায় শিক্ষা ও চাকরিতে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া উচ্চবর্ণের মানুষেরাও সংরক্ষণের আওতায় আসবেন।

উচ্চবর্ণের আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়াদের সংরক্ষণ নিয়ে তোলপাড় হয় রাজ‍্যসভাও। মোদী সরকার বলছে, ‘এটা স্লগ ওভারে ছক্কা’। পালটা কংগ্রেস বলছে, ‘সংরক্ষণকে সমর্থন’। কিন্তু ভোটের মুখে এই বিল আনা নিয়েই সন্দেহ প্রকাশ করেছে তারা।

সংরক্ষণকে সমর্থন করলেও বিরোধীরা প্রায় একসুরে কটাক্ষ করে বলেছে, ‘ঠিক ভোটের মুখেই গরিবদের কথা মনে পড়ল মোদী সরকারের। এটা গিমিক ছাড়া আর কি’। তবে বিরোধীদের কটাক্ষ ও বাধার মুখেও উচ্চবর্ণ সংরক্ষণ বিল পাস হয়ে যাওয়াতে খুশি বিজেপি শিবির। লোকসভায় আগেই পাস হয়ে গিয়েছিল উচ্চবর্ণ সংরক্ষণ বিল৷ রাজ্যসভাতেও সেই বিল পাস হয়ে যাওয়ায় দারুণ খুশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুনঃ

কুম্ভমেলায় বিশ্বরেকর্ড গড়ল যোগীর রাজ্য, তৈরি হল আস্ত একটা শহর

সোনিয়া রাহুলকে ১০০ কোটি টাকা আয়কর ফাঁকি দেওয়ার নোটিশ

গুরুবারে শুরু অযোধ্যায় রাম মন্দির বাবরি মসজিদ শেষ লড়াই

উচ্চবর্ণের গরীব হিন্দুদের জন্য সংরক্ষণ মোদীর, দেশ জুড়ে বিতর্ক

নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন, এই বিলের প্রতি এত বিস্তৃত সমর্থন দেখে তিনি দারুণ খুশি৷ এই বিষয়ে সংসদে বেশ কার্যকরী ও উৎপাদনশীল বিতর্ক হয়৷ যেখানে হাউসের মেম্বাররা নিজেদের মত দারুণভাবে প্রকাশ করেছেন৷

এদিকে এর আগে লোকসভায় সংরক্ষণ ও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হতেই, ভোটপ্রচারে নেমে পড়লেন নরেন্দ্র মোদী। বুধবার শোলাপুরে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি মঞ্চই হয়ে উঠল নির্বাচনী প্রচারসভায়। দুই বিল পাস নিয়ে কৃতিত্ব জাহির করতে ছাড়লেন না নরেন্দ্র মোদী।

লোকসভার আগে সরকারের ঘোষণা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া উচ্চবর্ণের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য এই সংরক্ষণ থাকবে। এই বিল ভোটবাক্সে মোদীর বিজেপিকে কতটা সাহায্য করে সেটাই এখন দেখার।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন