জাপান উপকূলের কাছে দুটি মার্কিন যুদ্ধবিমান ধ্বংস

289
Image Source: Google

The News বাংলা, নিউইয়র্কঃ জাপান উপকূলের কাছে দুটি মার্কিন যুদ্ধবিমান ধ্বংস। নিখোঁজ বিমান দুটির ছয় মার্কিন নৌসেনা। আর এই নিয়েই তোলপাড় গোটা বিশ্ব। তদন্ত শুরু করেছে মার্কিন গোয়েন্দারা। দুটি বিমানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানান হয়েছে।

জাপানের দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলের কাছে দুটি মার্কিন যুদ্ধবিমান মুখোমুখি সংঘর্ষ-এ বিধ্বস্ত হয়েছে। এই ঘটনায় যুদ্ধ বিমান দুটির ছয় নৌ-সেনাও নিখোঁজ রয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার মাঝ আকাশে জ্বালানি নেওয়ার সময় বিমান দুটি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে এ ব্যাপারে এখনও কিছু নিশ্চিত হওয়া যায়নি। উভয় দেশের আধিকারিকরা ফরাসী সংবাদ সংস্থা এএফপিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

Image Source: Google

জাপানে মার্কিন নৌ-বাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুদ্ধবিমান এফ/এ-১৮ ও কেসি-১৩০ হিরোশিমার কাছে আইওয়াকুনি ঘাঁটি থেকে সাত কর্মকর্তাকে নিয়ে উড়ান শুরু করেছিল। বিধ্বস্ত বিমানের এক নৌসেনা কে উদ্ধার করা গেছে বলেই খবর। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ছয়জন।

মার্কিন নৌবাহিনী এক টুইটে বলেছে, বৃহস্পতিবার জাপানের স্থানীয় সময় দুপুর ২টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। সাত নৌসেনার মধ্যে পাঁচজন ছিলেন যুদ্ধবিমান কেসি-১৩০ এ এবং বাকি দুজন এফ/এ-১৮ তে।

বিবৃতিতে মার্কিন নৌবাহিনী বলছে, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে জাপান উপকূল থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে নৌবাহিনীর দুটি সামরিক বিমান দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে।

Image Source: Google

মার্কিন এক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেছেন, জাপানের দক্ষিণাঞ্চলের মেরিন কোর এয়ার স্টেশনের আইওয়াকুনি ঘাঁটি থেকে উড়ানের পর বিমান দুটি বিধ্বস্ত হয়েছে। বিধ্বস্ত বিমানের এক নৌসেনাকে উদ্ধার করা গেলেও বাকিদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা জানা যায়নি।

উদ্ধার করা নৌসেনার শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। নৌবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নিখোঁজ ছয় নৌসেনাকে উদ্ধারে তল্লাশি এবং উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে। উদ্ধার অভিযানে জাপান চারটি যুদ্ধবিমান ও তিনটি জাহাজ মোতায়েন করেছে বলে জানিয়েছে।

জাপানে একাধিক ঘাঁটিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৫০ হাজার সৈন্য রয়েছে। দেশটিতে প্রায়ই মার্কিন সামরিক বাহিনীর বিমান দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়। গত নভেম্বরে জাপানের ওকিনাওয়া দ্বীপের কাছে মার্কিন নৌ-বাহিনীর একটি যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত হয়। পরে যুদ্ধবিমানের দুই সেনাকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন