বন্দি হয়েও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দন এর সাহস দেখে কেঁপে গেল পাকিস্তান

941
স্টাইল থেকে ফ্যাশন সবেতেই এখন অভিনন্দনের ছোঁয়া/The News বাংলা
স্টাইল থেকে ফ্যাশন সবেতেই এখন অভিনন্দনের ছোঁয়া/The News বাংলা

ঠিক যেন ভারতের বাঘ। শুধু ভারত নয়। বন্দি হয়েও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দন এর সাহস দেখে কেঁপে গেল গোটা পাকিস্তান। পাকিস্তান সেনার ডেরায় গিয়ে পাকিস্তানের সেনা ও এক মেজরের সামনে গিয়ে তাঁর বক্তব্য ও সাহস দেখে মুগ্ধ ভারতের পাশাপাশি পাকিস্তান সহ গোটা বিশ্ব। ভারতীয় সেনাকে ছোট করতে এই ভিডিও প্রকাশ করেছিল পাক সেনা। উল্টে ভারতীয় সেনার সাহস দেখে কেঁপে গেছে গোটা পাকিস্তান। পাক সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এর প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

আরও পড়ুনঃ ভারতের কূটনৈতিক চাপে পাকিস্তান ফেরাচ্ছে পাইলট অভিনন্দনকে

ভারতীয় বিমানবাহিনীর এলিট ইউনিট ‘স্কাট’ বা ‘সূর্যকিরণ অ্যারোবেটিক’ টিমের সদস্য তিনি। অর্থাৎ বাহিনীর সবচেয়ে দক্ষ ও যুদ্ধসফল বৈমানিকদের একজন। নাম উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান, বয়স মধ্য তিরিশের কাছাকাছি। ছোট ছোট করে ছাঁটা চুল, সঙ্গে পেল্লায় গোঁফ। বন্ধু মহলে ডাকনাম বিরাপ্পন। তাকে কেন্দ্র করেই এখন ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে চলমান টানটান উত্তেজনাকর পরিস্থিতি প্রভাবিত হচ্ছে। ভারত পাকিস্তান দুদেশের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এর সাহসের প্রশংসা।

আরও পড়ুনঃ ফের ভারতের আকাশে পাক বিমান, জবাব পেয়ে ঘুরে পালাল

ভারতের কূটনৈতিক চাপে পাকিস্তান ফেরাচ্ছে পাইলট অভিনন্দনকে/The News বাংলা
ভারতের কূটনৈতিক চাপে পাকিস্তান ফেরাচ্ছে পাইলট অভিনন্দনকে/The News বাংলা

যে ‘মিগ-২১’ বিমানটি তিনি চালাচ্ছিলেন, সেটি পাকিস্তানের দখলে থাকা কাশ্মীরের মাটিতে ভূপাতিত হওয়ার পরই অভিনন্দন জীবিত অবস্থায় ধরা পড়েন পাকিস্তানি সেনাদের হাতে। এরপর পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ তার একাধিক ভিডিও প্রকাশ করেছে। কোনওটি উত্তেজিত জনতার হাত থেকে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার, কোনওটি অভিনন্দনের চোখ বাঁধা অবস্থায়। কোনটি আবার তাকে জেরা করার একটি মিনিটখানেকের সংক্ষিপ্ত ভিডিও দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। সেখানে অভিনন্দন অবশ্য নিজের পরিচয় বা র‌্যাঙ্ক ইত্যাদি জানালেও বাকি সব কিছু বলতে অস্বীকার করেন।

আরও পড়ুনঃ যুদ্ধ লাগলে বাঁচতে সীমান্তে ১৪ হাজার বাঙ্কার নির্মাণ করছে ভারত

প্রত্যক্ষদর্শী পাক নাগরিক মোহাম্মদ রাজ্জাক চৌধুরী (৫৮) নামের এক ব্যক্তির বর্ণনায় উঠে এসেছে অভিনন্দনের সাহসের কথা। রাজনৈতিক ও সমাজকর্মী রাজ্জাক নিয়ন্ত্রণরেখার ৭ কিলোমিটার ভেতরে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বাসিন্দা। বুধবার সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে তিনি একটি যুদ্ধবিমান দেখেন যেটিতে আগুন লেগে গিয়েছিল। এই সময় তিনি প্যারাস্যুট নিয়ে একজনকে নামতে দেখেন। বিমানটি যেদিকে বিধ্বস্ত হয় তার উল্টো দিকে ওই প্যারাসুটে নামেন এক বৈমানিক।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানে ভারতের বিমানহানার সময় জন্ম নবজাতকের নাম মিরাজ

বন্দি হয়েও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দন এর সাহস দেখে কেঁপে গেল পাকিস্তান/The News বাংলা
বন্দি হয়েও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দন এর সাহস দেখে কেঁপে গেল পাকিস্তান/The News বাংলা

কিন্তু ওই বৈমানিকের কাছে পিস্তল ছিল। তিনি তরুণদের ওই জায়গাটি ভারত না পাকিস্তান তা প্রশ্ন করেন। একজন বলেন, এটা ভারত। তখন ওই বৈমানিক নিশ্চিত হতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন। তবে কয়েকজন তরুণ উল্টো স্লোগান দেন। কিন্তু কয়েকজন তরুণ ভারতীয় বৈমানিকের স্লোগান সহ্য করতে পারেননি।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের হাতে যুদ্ধবন্দি ভারতের যুদ্ধবিমান পাইলট উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন

অভিনন্দন দৌড়ে প্রায় আধা কিলোমিটার পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। শেষ পর্যন্ত তিনি একটি পুকুরে ঝাঁপ দেন। তিনি কিছু কাগজ গিলে ফেলার ও কিছু কাগজ জলে ভিজিয়ে নষ্ট করে ফেলার চেষ্টা চালান। তবে হাতে অস্ত্র থাকা সত্ত্বেও বিপদে পরেও সাধারণ মানুষের উপর গুলি চালালনি তিনি। পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর হাতে আটক হন ভারতীয় বৈমানিক অভিনন্দন।

আরও পড়ুনঃ যুদ্ধের উত্তেজনা ভারত পাক সীমান্তে নামল ট্যাঙ্ক, সমুদ্রে প্রস্তুত যুদ্ধজাহাজ

এরপরেই ভারতীয় যুদ্ধবিমানের পাইলটের আরেকটি ভিডিও প্রকাশ করে পাকিস্তান। গতকাল বুধবার পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) প্রকাশিত ১ মিনিট ১৯ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ওই বৈমানিক চা পান করছেন আর নিজের নাম-পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলছেন।

এই সংক্রান্ত খবরঃ পাকিস্তানের যুদ্ধ বিমান ধ্বংস করে দিল ভারতীয় বিমান বাহিনী

ভিডিওতে পাক সেনা প্রশ্নকর্তা ও আটক পাইলট অভিনন্দনের কথোপকথন ছিল এমনঃ—
প্রশ্নকর্তা: আপনার বাড়ি ভারতের কোথায়? অভিনন্দন: আমি একথা বলতে বাধ্য নই। দুঃখিত। দক্ষিণ ভারতে।
প্রশ্নকর্তা: আপনি বিবাহিত? অভিনন্দন: হ্যাঁ, বিবাহিত।
প্রশ্নকর্তা: আমার ধারণা, চা আপনার পছন্দ? অভিনন্দন: এই চা-টা খুবই চমৎকার, ধন্যবাদ।
প্রশ্নকর্তা: আপনি কোন এয়ারক্রাফট চালাচ্ছিলেন? অভিনন্দন: দুঃখিত মেজর, আমি এ বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে বাধ্য নই। তবে আমি নিশ্চিত আপনি বিমানের ধ্বংসাবশেষ দেখে ইতিমধ্যেই তা জেনেছেন।
প্রশ্নকর্তা: (এই বিমান হামলায়) আপনার কী উদ্দেশ্য (মিশন) ছিল? অভিনন্দন: দুঃখিত, আমার পক্ষে এই বিষয়টি নিয়ে কথা বলা সম্ভব নয়।

এই সংক্রান্ত খবরঃ ভারতীয় যুদ্ধবিমান পাইলটকে ধরে ফেলার ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করল পাকিস্তান

আর এই ভিডিও দেখার পরই গোটা ভারত জুড়ে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এর জন্য প্রশংসা ও সাহসের প্রতি মুগ্ধতা ছড়িয়ে পরে। ভারতের পাশাপাশি পাকিস্তানের সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভারতীয় বায়ুসেনা পাইলটের সাহসের প্রতি প্রশংসা ও শ্রদ্ধা ছড়িয়ে পড়ে। পাকিস্তানিরাও বুঝে যায় ভারতীয় সেনা কি ধাতুতে গড়া।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন