দিদির নোংরা খেলার শিকার দিদি নিজেই, কটাক্ষ অধীরের

395
দিদির নোংরা খেলার শিকার দিদি নিজেই, কটাক্ষ অধীরের/The News বাংলা
দিদির নোংরা খেলার শিকার দিদি নিজেই, কটাক্ষ অধীরের/The News বাংলা

দিদির নোংরা খেলার শিকার দিদি নিজেই, কটাক্ষ প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরির। কংগ্রেস সাংসদ জানান, মমতাও কংগ্রেস ভাঙানর নোংরা খেলায় মেতেছিলেন। সেই একই খেলার শিকার এবার মমতা নিজেই। রাজনৈতিক পাপ মমতাকেও ছাড়বে না বলেই মত অধীরের।

ভাঙন শুরু হয়েছে তৃণমূলের। লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষন ঘোষণার পর থেকেই দেশজুড়ে বিভিন্ন দল থেকে বিজেপিতে নাম লেখানোর স্রোত শুরু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গও তার ব্যতিক্রম নয়। ইতিমধ্যেই ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশের পর সিপিএম এবং কংগ্রেস থেকে দুই জন বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ মমতার প্রার্থী তালিকা নিয়ে গোপনে ক্ষোভ বাড়ছে জেলায় জেলায়

গত ১২ই মার্চ তৃণমূলের বহিষ্কৃত সাংসদ অনুপম হাজরা দিল্লিতে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন। তার কিছুদিন আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়ে বহিষ্কৃত হন বিষ্ণুপুরের তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খান। এছাড়াও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি শঙ্কুদেব পান্ডাও নাম লিখিয়েছেন বিজেপিতে। কিন্তু মুকুল রায়ের তৃণমূল ছাড়ার পরেই তৃণমূলের কাছে সবচেয়ে বড় ধাক্কা দলের দীর্ঘদিনের সঙ্গী ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিংয়ের দলত্যাগ।

আরও পড়ুনঃ অর্জুনের হাত ধরে বারাকপুর লোকসভা ছিনিয়ে নিতে পারে বিজেপি

বৃহস্পতিবারই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের দাপুটে নেতা অর্জুন সিং। এর আগে তৃণমূলের দুই জন সাংসদ দল ছাড়লেও তাদের জনভিত্তি নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলেছিল। কিন্তু অর্জুন সিংয়ের সাংগঠনিক ক্ষমতা কারও অজানা নয়। অর্জুনের হাত ধরেই ভাটপাড়া ও বারাকপুর লোকসভায় হু হু করে বেড়েছিল তৃণমূলের সংগঠন। তার সাথে কমপক্ষে ৪০ থেকে ৫০ জন কাউন্সিলরেরও বিজেপিতে যোগদানের খবর ইতিমধ্যেই এসেছে।

আরও পড়ুনঃ দিল্লিতে অর্জুন, ৪০ জন তৃণমূল কাউন্সিলর নিয়ে বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা

আর তারপরেই বহরমপুরের ‘রবীনহুড’ নামে খ্যাত প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। পোস্টে বিজেপিকে বাহবা দিয়ে মমতাকে এক প্রকার কটাক্ষই করেছেন অধীর। তিনি লিখেছেন, “যে রাজনৈতিক নোংরা খেলায় ‘দিদি’ কংগ্রেস দল ভাঙলো, সেই একই খেলায় ‘দিদি’র দল ভাঙছে বিজেপি”।

আরও পড়ুনঃ বাংলার কোন লোকসভা আসনে কবে ভোট দেখে নিন

এরই সাথে তিনি জুড়ে দিয়ে বলেন, দিদির রাজনৈতিক খেলার শিকার দিদি নিজেই। তিনি আরও বলেন, এটা ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি নয়, এটা কর্মফল। এই পাপের ফল দিদিকে ভোগ করতেই হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে বিধানসভা, পৌরসভা থেকে পঞ্চায়েতে ভোটের পরেই বিজয়ী বিরোধী দলের প্রার্থীদের লোভ বা ভয় দেখিয়ে তৃণমূলে টানার অভিযোগ বারবার করা হয়েছে কংগ্রেস ও বিজেপির তরফ থেকে। ২০১১ তে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে রাজ্যে ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসানের পরেই একের পর এক কংগ্রেস নেতাকে দলে টেনেছেন মমতা।

আরও পড়ুনঃ পশ্চিমবঙ্গে নজিরবিহীন ৭ দফা ভোটে সুবিধা বিজেপির

রাজ্যে কংগ্রেসকে প্রায় শেষ করে দিয়েছেন মমতা। অধীর ও তাঁর অনুগামীরাই এখন র‍য়ে গেছেন কংগ্রেসে। সেই কর্মফল মমতাকেও ভোগ করতে হবে বলেই জানিয়েছেন অধীর। একই রকম ভাবে তৃণমূলকেও ভাঙবে বিজেপি মত তাঁর। আর এর জন্য মমতাই দায়ি কারণ এই নোংরা খেলাটা তিনিই শুরু করেছেন এই বাংলায়।

আরও পড়ুনঃ নাবালিকাকে বিয়ে করে পুলিশের ভয়ে গা ঢাকা দিলেন কাউন্সিলর
আরও পড়ুনঃ লাস্যময়ী নুসরত ও সুন্দরী মিমিই এবার মমতার চমক
আরও পড়ুনঃ প্রচুর চমক, রাজ্যের ৪২টি আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের ৪২জন প্রার্থী কে কে
আরও পড়ুনঃ মিছিল মিটিং করতে মমতার পুলিশ প্রশাসন আর আটকাতে পারবে না বিজেপিকে

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন