কলেজে অনলাইনে ভর্তি নয়, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য, ফের দুর্নীতির আশঙ্কায় শিক্ষাবিদরা

81
কাদের চাপে বাংলার কলেজে অনলাইন ভর্তি চালু হল না, ফের দুর্নীতির আশঙ্কা
কাদের চাপে বাংলার কলেজে অনলাইন ভর্তি চালু হল না, ফের দুর্নীতির আশঙ্কা

কলেজে অনলাইনে ভর্তি নয়, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বাসু; ফের দুর্নীতির আশঙ্কায় শিক্ষাবিদরা। কেন্দ্রীয় অনলাইনে ভর্তি নিয়ে; পিছু হঠল রাজ্য সরকারের শিক্ষা দফতর। “এবছর স্নাতকে কেন্দ্রীয় অনলাইনে ভর্তি নয়”; উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠকের পরে জানিয়ে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। পরিকাঠামোগত প্রস্তুতির অভাবে কেন্দ্রীয় অনলাইন নয়; চলতি বছরেও সেই পুরনো কলেজে লাইনে দাঁড়িয়েই ভর্তি পদ্ধতিতেই কলেজে ভর্তি হবে।

দুর্নীতির এত অভিযোগ সত্ত্বেও; কেন অনলাইনে ভর্তি নয়? ঠিক কী সমস্যা হল? রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানান, “কেন্দ্রীয় অনলাইনের পোর্টাল ঠিকমতো তৈরি করে, ভর্তির কাজ চালু করতে; এখনও মাস পাঁচ-ছয়েক সময় লাগবে। কিন্তু ইতিমধ্যেই বিভিন্ন বোর্ডের; দ্বাদশ স্তরের ফলাফল প্রকাশ হয়ে গিয়েছে। তাই এই অবস্থায় অনলাইন পোর্টালে ভর্তির প্রক্রিয়া চালানো হলে; সেক্ষেত্রে ভর্তি প্রক্রিয়ায় ত্রুটি থাকার আশঙ্কা উপাচার্যদের”।

আরও পড়ুনঃ ‘হাজার-হাজার চাকরি রেডি আছে’, বাংলায় কর্মসংস্থান নিয়ে বিরাট বার্তা মুখ্যমন্ত্রী মমতার

কিছুদিন আগেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে, শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানিয়েছিলেন; “চলতি বছরে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া হবে; সেই অনুযায়ী একটি পোর্টাল তৈরির কাজ চলছে”। কিন্তু সেই পোর্টাল পুরোপুরি তৈরি হয়ে কর্মক্ষম হতে; আরও বেশ কিছুটা সময় লাগবে বলেই একাধিক উপাচার্য আশঙ্কা করছেন; বলেই জানান ব্রাত্য বসু। যারপরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় চলতি বছরে অনলাইনে নয়; আগের মতো অফলাইনেই হবে কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া।

আরও পড়ুনঃ সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরানোর জন্য, বড়সড় উদ্যোগ নিল কলকাতা হাইকোর্ট

ব্রাত্য বাসু উপাচার্য-দের কথা বললেও; এই সিদ্ধান্তে বেশ হতাশ রাজ্যের শিক্ষা মহল। কলেজে স্নাতক স্তরে কেন্দ্রীয় অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া, চলতি বছরের জন্য স্তব্ধ হয়ে যাওয়ায়; বেশ হতাশ বাংলার শিক্ষাবিদরা। শিক্ষাবিদ অমল মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “কলেজে ভর্তির সময় গোটা বাংলা জুড়েই ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। তৃণমূলের ছাত্র পরিষদ যে ভর্তির জন্য ছাত্রছাত্রী-দের কাছ থেকে টাকা দাবি করে সেই অভিজ্ঞতা আমার ব্যক্তিগতভাবেও শোনা”।

অমল মুখোপাধ্যায় আরও বলেন, “পরিকাঠামোগত প্রস্তুতির অভাবে চলতি বছরে; কলেজে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া হচ্ছে না; এটা মেনে নেওয়া খুব মুশকিল। আমার অনুমান তৃণমূলের ছাত্রগোষ্ঠীর ও তৃণমূল নেতাদের; চাপের জেরেই এই সিদ্ধান্ত। রাজ্য সরকারের এভাবে পিছু হটাকে ধিক্কার জানাই”।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন