কলকাতা হাইকোর্টের অন্দরেই আটকে রইল বিজেপির রথ যাত্রা

430
কলকাতা আদলতে ফের আটকে গেল বিজেপির রথ যাত্রা /The News বাংলা
কলকাতা আদলতে ফের আটকে গেল বিজেপির রথ যাত্রা /The News বাংলা

The News বাংলা, কলকাতাঃ ফের কলকাতা হাইকোর্টে মোদীর ‘গেরুয়া রথ’কে আটকে দিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। হাইকোর্টে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি মেনে নিল। বাতিল না হলেও, আপাতত বন্ধ হয়ে গেল বিজেপির রথ যাত্রা। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর কোর্টেই ফের বিজেপির ‘রথ যাত্রা’ মামলা ফেরত পাঠাল ডিভিশন বেঞ্চ।

বাতিল হয়ে গেল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর বৃহস্পতিবারের রায়। শর্তসাপেক্ষে রথ যাত্রার অনুমতি দিয়েছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তী। রায়ের পরই বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয় জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বাংলায় রথ যাত্রার উদ্বোধন করবেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ’। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ এর রায়ের পর, আবার বিশ বাঁও জলে বিজেপির রথ যাত্রা।

আরও পড়ুনঃ মোদীর গেরুয়া রথকে আটকাতে পারল না মমতার সরকার

কলকাতা আদলতে ফের আটকে গেল বিজেপির রথ যাত্রা /The News বাংলা
কলকাতা আদলতে ফের আটকে গেল বিজেপির রথ যাত্রা /The News বাংলা

আরও পড়ুনঃ ৫ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, উৎসবের সময় চরম সমস্যায় আমজনতা

ফের হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর এজলাসেই ফেরত পাঠান হল বিজেপির রথ মামলাকে। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি মেনে সমস্ত সরকারি রিপোর্ট আবার খতিয়ে দেখে মামলা শুরু করতে বলল বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীকে। কি করে রাজ্য সরকারের সব রিপোর্ট না দেখেই রথ যাত্রার অনুমতি দেওয়া হল, প্রশ্ন ডিভিশন বেঞ্চের। এই রায়ের ফলে বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর উপরও কিছুটা অনাস্থা দেখাল প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ, বলছেন আইনজীবীরা।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: কলকাতা থেকে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের টাকা যাচ্ছে জঙ্গিদের হাতে

বৃহস্পতিবারই বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তী রাজ্যের রথ যাত্রার অনুমতি না দেওয়া বাতিল করে শর্তসাপেক্ষে রথ যাত্রার অনুমতি দিয়েছিলেন। এর জেরে বিজেপি রথ যাত্রার প্রস্তুতি শুরু করে দেয়। তবে সিঙ্গেল বেঞ্চে এই রায়ের পর শুক্রবারই ফের কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে মামলা নিয়ে যায় রাজ্য সরকার। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি মেনে নিয়ে রথ অনুমতি বাতিল করে আবার হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর এজলাসেই ফেরত পাঠান এই মামলা।

আরও পড়ুনঃ নেতাদের গুন্ডা পোষা না গুন্ডাদের নেতা হওয়া, প্রকাশ্যে বন্দুকবাজির কারন কি

তবে রথ যাত্রা একেবারে বাতিল করে নি প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। মামলা ফের ফেরত পাঠান হয়েছে বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গেল বেঞ্চে। ফলে আগামীকাল থেকে যে রথযাত্রা হচ্ছে না সেটা পরিষ্কার। পুলিশ ও গোয়েন্দাদের সব রিপোর্ট ফের খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ এর তরফ থেকে।

আরও পড়ুন: আদিবাসী, দলিত না মুসলমান, বিজেপির গবেষণায় রামভক্ত হনুমানের জাত

বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর উপরই আবার রথ যাত্রার সব দায়িত্ব চাপিয়ে দিল প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। রাজ্য সরকারের গোয়েন্দা রিপোর্ট ও বিভিন্ন জেলার জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারদের সব রিপোর্ট ফের খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সব দেখেই ফের রথ যাত্রার অনুমতি দেওয়া হবে কি হবে না তা আবার ঠিক করতে হবে বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীকেই।

আরও পড়ুনঃ ‘রাজনীতিতে টিকে থাকতে গেলে তেল দিতেই হবে’ বিস্ফোরক তৃণমূল সাংসদ

গত একমাস ধরেই একবার সিঙ্গেল বেঞ্চ ও একবার ডিভিশন বেঞ্চ ঘুরে বেড়াচ্ছে বিজেপির রথ। বাংলার রাস্তায় চলার অনুমতি আদৌ অনুমতি পাবে কিনা সেই দিকেই তাকিয়ে এখনও কলকাতা হাইকোর্টের মধ্যেই আটকে বিজেপির রথ। আগামীকাল থেকেই কলকাতা হাইকোর্টে ছুটি পড়ে যাচ্ছে। ছুটি পড়ে যাবে সুপ্রিম কোর্টেও।

সব মিলিয়ে বাংলায় বিজেপির রথ যাত্রা এখনও বিশ বাঁও জলে। আদালতের বাইরে এসে কবে বাংলার রাস্তায় চলবে বিজেপির রথ, সেটাই এখন প্রশ্ন? আদৌ মমতার বাংলায় গেরুয়া রথ নামতে পারবে কিনা সেটাও এখন বড় প্রশ্ন।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন