তৃণমূলের নুসরতের পাশে বিজেপির দেবশ্রী

19608
তৃণমূলের নুসরতের পাশে বিজেপির দেবশ্রী/The News বাংলা
তৃণমূলের নুসরতের পাশে বিজেপির দেবশ্রী/The News বাংলা

তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। সংসদে শপথ বাক্য পাঠ করার সময় তিনি নিজের নাম বলেছিলেন নুসরত জাহান রুবি জৈন। আর এরপর থেকেই কট্টর সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

২৩ জুন বৃহস্পতিবার অধিবেশন শুরুর প্রায় এক সপ্তাহ পর; শপথগ্রহণ করেন বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহান। সম্প্রতি শাড়ি ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ের পর; শাখা-সিঁদুর পরে সংসদে পা রাখেন নিখিল ঘরণী নুসরত।

আরও পড়ুনঃ ইতিহাসে প্রথমবার মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ দিলেন বিচারক

শপথ নেওয়ার পর নুসরত জাহান ‘জয় হিন্দ; বন্দে মাতরম; জয় বাংলা’ বলে শপথ শেষ করেন। তারপর তিনি নবনির্বাচিত স্পীকারের চেয়ারে গিয়ে ওম বিড়লার পায়ে প্রনাম করে আশীর্বাদ নেন।

আর এই শপথ গ্রহনের পর থেকেই একেরপর এক মৌলবাদী সংগঠনের তোপের মুখে পড়েন নুসরত। ধর্ম ও সংস্কৃতিকে অবমাননা করার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করে বেশ কিছুমৌলবাদী সংগঠন।

আরও পড়ুনঃ শীতের শুরুতেই কলকাতায় অ্যানাকোন্ডা

এই বিষয়ে শনিবার তাঁর পাশে দাঁড়ালেন; রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ। নুসরত জাহান প্রসঙ্গে বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী বলেন; নিজের ধর্ম নিয়ে নিজের পরিচয় দেওয়া সাংবিধানিক অধিকার।

এই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন; এটা পাকিস্থান নয়; ভারতবর্ষ। এখানে মানুষের অধিকার নিয়ে ফতোয়া দেওয়া চলে না। নুসরতের নিজের পরিচয় দেবার অধিকার আছে; এবং সেই বিষয়ে কারুর কোনও মন্তব্য দেওয়ার অধিকার নেই।

আরও পড়ুনঃ ক্রিকেট টিমের জার্সির রঙে নীল ও গেরুয়া, রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে

তিনি আরও বলেন নুসরতের শপথগ্রহণ নিয়ে ফতোয়ার বিষয়ে সংবিধানের রক্ষাকর্তারা রয়েছেন। তাঁরা নিশ্চয়ই ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান বিজেপি সাংসদ। এই ভারতবর্ষে কারুর সাংবিধানিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করা যায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

রায়গঞ্জে সার্কিট হাউসে; এক সাংবাদিক বৈঠকে; কেন্দ্রীয় শিশু ও নারীকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী শনিবার স্পষ্ট বুঝিয়ে দেন নিজের অবস্থান। ভারতের সংবিধানের উপরে তাঁর বিশ্বাস একথা বুঝিয়ে দেন তিনি।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন