আইন ভেঙে অর্নব দামকে পরীক্ষা দিতে দিল না রাজ্য সরকার

394
আইন ভেঙে অর্নব দামকে পরীক্ষা দিতে দিল না রাজ্য সরকার/The News বাংলা
আইন ভেঙে অর্নব দামকে পরীক্ষা দিতে দিল না রাজ্য সরকার/The News বাংলা

The News বাংলা, কলকাতাঃ আইন ভেঙে মানুষের মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। রীতিমত ষড়যন্ত্র করেই ‘রাজনৈতিক বন্দী’ অর্নব দামকে ‘নেট’ পরীক্ষা দিতে দিল না রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার এমন বিস্ফোরক অভিযোগ করল মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর।

আরও পড়ুনঃ নেতাদের গুন্ডা পোষা না গুন্ডাদের নেতা হওয়া, প্রকাশ্যে বন্দুকবাজির কারন কি

জেনে শুনে রীতিমত ষড়যন্ত্র করেই ‘রাজনৈতিক বন্দী’ অর্নব দামকে ‘নেট’ পরীক্ষা দিতে দিল না রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার সল্টলেকের সেক্টর ফাইভ-এ টিসিএস কোম্পানির অফিসে সকাল সাড়ে নটায় তাঁর পরীক্ষা ছিল। সকাল নটার মধ্যে তাঁকে পৌঁছুতে হত বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুনঃ পাইনের পাতায় সাদা বরফ কুচিতে জমে উঠেছে উত্তরের শীত

প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ সবটাই জানতেন। প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার সুপারের হাতেই যায় পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড। সোমবার বারবার বলেও দেওয়া হয়। তারপরেও প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষর উদাসীনতার জন্য পরীক্ষা দিতে পারল না অর্নব দাম। প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজ্য সরকার অর্নব দামকে ‘নেট’ পরীক্ষা দিতে দিল না বলেই অভিযোগ জানিয়েছে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর।

আরও পড়ুনঃ শিক্ষিতদের বিধায়ক করল তেলাঙ্গানা, কবে শিখবে বাংলা

মাওবাদী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় অর্নব দামকে। তাঁর বর্তমান ঠিকানা প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার। অর্নব দাম এর বিরুদ্ধে মোট ৩১ টি মামলা ছিল বলে জানা গেছে। তবে তার মধ্যে ৩০ টি মামলাতেই তিনি হয় বেকসুর খালাস পেয়েছেন বা জামিন পেয়েছেন। একমাত্র শিলদা ইএফআর ক্যাম্পে হামলা চালানোর অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা চলছে।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় ২৫ টাকা কেজি পেঁয়াজ, নাসিকে দাম না পেয়ে আত্মহত্যা

পড়াশোনায় বেশ ভাল তিনি। প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে পড়াশোনা করে তিনি নেট পরীক্ষার জন্য তৈরি হয়েছিলেন। লেখাপড়ায় তাঁর ধারাবাহিক সাফল্যের খবরে অর্নব দাম এর মুক্তির জন্য জনমত তৈরি হচ্ছিল। সাধারণ মানুষ ওর মুক্তি চাইছিল, বলেই দাবি করেছে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর।

আরও পড়ুনঃ শহীদ জওয়ানকে সম্মান নয়, সেনাকে পাথর ছুঁড়ে দেশদ্রোহীরাই ভারতে ‘নায়ক’

নেট পাশ করে গেলে সে দাবি আরো তীব্র হবে। তাই লিখিত ভাবে অনেক আগে জানানো সত্বেও, আদালতের নির্দেশ থাকা সত্বেও, অর্নব দামকে পরীক্ষা হলে নিয়ে যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা করেনি প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ। পরে অর্নবের চাপাচাপিতে নিয়ে গেলেও যথেষ্ট দেরিতে পৌছানোর জন্য ওকে পরীক্ষা হলে ঢুকতেই দেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুনঃ পাহাড়ে পুলিশ হত্যা ও অশান্তির ঘটনায় বিমল রোশনকে বাঁধল সিআইডি

ফলে জেলে হাজার বিপত্তির মধ্যেও পড়াশোনা করে, এতটা এগিয়েও পরীক্ষা না দিতে না পারায় মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত অর্নব দাম এর বিহিত চেয়ে আমরণ অনশন শুরু করেছেন। তার আরও দাবি, কারামন্ত্রী ও ডিজি (কারা)কে লিখিত দিতে হবে যে, ভবিষ্যতে তাঁকে নির্বিঘ্নে পরীক্ষা দিতে দেওয়া হবে। লেখাপড়া করতে দেওয়া হবে। এবং তাঁরা এর দায়িত্ব নেবেন। তবেই তিনি আমরণ অনশন তুলবেন।

আরও পড়ুনঃ শুধু দিনে নয় দার্জিলিংয়ের ঐতিহ্যের টয় ট্রেন এবার সন্ধ্যাবেলাতেও

মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর এর তরফ থেকে সরকার ও কারা বিভাগের এই ঘৃণ্য আচরণের তীব্র নিন্দা করা হয়েছে। এপিডিআর এর তরফ থেকে রঞ্জিত শূর বলেছেন, “অবিলম্বে আলোচনায় বসে অর্নব দামের দাবিদাওয়ার সুমীমাংসা করার দাবি জানাচ্ছি। দীপক কুমার নামের আরেকজন রাজনৈতিক বন্দীকেও এবছর নেটের ফরম পূরণ করতে না দিয়ে বঞ্চিত করেছে প্রেসিডেন্সি জেল কর্তৃপক্ষ। আমরা তারও বিচার চাইছি”।

আরও পড়ুনঃ ‘ইন্দিরা গান্ধী ভারতে এমারজেন্সি লাগু করেছিলেন, বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’

গোটা বিষয়টা জানতে চেয়ে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ ও প্রেসিডেন্সি সুপারকে ফোন করা হয়েছিল The News বাংলা-র তরফ থেকে। তবে এই বিষয়ে কেউ কিছু বলতে চান নি। রাজ্যের কারামন্ত্রী জানিয়েছেন, বিষয়টা খোঁজ নিয়ে দেখবেন।

পড়ুন হাড়হিম করা অদ্ভুত সত্য গল্প:
পড়ুন প্রথম পর্বঃ পৃথিবী এগোলেও তান্ত্রিকের কালো জাদু টোনায় ডুবে আফ্রিকা

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন