এনআরএস কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চাইলেন অধীর চৌধুরী

5332
এনআরএস কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চাইলেন অধীর চৌধুরী/The News বাংলা
এনআরএস কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চাইলেন অধীর চৌধুরী/The News বাংলা

এনআরএস কাণ্ডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর; হস্তক্ষেপ চাইলেন অধীর চৌধুরী। এনআরএস কাণ্ডে দৃষ্টি আকর্ষণ করে; প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি পাঠিয়েছেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী। চিঠির প্রতিলিপি পাঠানো হয়েছে; কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী হর্ষবর্ধনের কাছে।

রাজ্যের চিকিৎসক এবং রোগী উভয়ের স্বার্থে; এই পরিস্থিতিতে অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলে দাবি অধীর চৌধুরীর। এনআরএস কাণ্ড নিয়ে উত্তাল সমগ্র রাজ্য। ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে বহু মানুষকে। এই সমস্যার সমাধানের জন্যই; প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দ্বারস্থ হলেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

এনআরএস ইস্যুতে রাজ্য সরকারের উপর ভরসা না করে; সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ দাবি করলেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী। এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে একটি চিঠি লিখেছেন তিনি। এই মুহূ্র্তে পশ্চিমবঙ্গে ‘চরম নৈরাজ্য’ দেখা দিয়েছে; বলে ওই চিঠিতে অভিযোগ করেছেন মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের এই সাংসদ।

আরও পড়ুনঃ লালবাজার অভিযান দিয়ে ২০২১ বিধানসভা ভোটের লড়াই শুরু করছে বিজেপি

কলকাতার এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে; আক্রান্ত হয়েছেন ডাক্তারি পড়ুয়ারা। পরিবহ মুখোপাধ্যায় নামে এক জুনিয়ার ডাক্তারের অবস্থা আশঙ্কাজনক। যার প্রতিবাদে কর্মবিরতি শুরু করেছে; ওই মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়ারা। সেই ধারা বজায় রেখে রাজ্যের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়ারাও একই রাস্তা নিয়েছেন।

এই প্রতিবাদের কারণে রাজ্য জুড়ে; প্রবল প্রতিকূলতার মধ্যে পড়তে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। অনেক রোগী বঞ্চিত হচ্ছেন স্বাভাবিক চিকিৎসা পরিষেবা থেকে। এই সমস্যার সমাধানের জন্যই; প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি লিখছেন বহরমপুরের সাংসদ। সমগ্র বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য; প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন অধীরবাবু।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের উপর ভরসা না করে; কংগ্রেস নেতা চিঠিতে লিখেছেন; “এনআরএস হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের উপরে মারাত্মক হামলা হয়েছে। যার জেরে রাজ্যের মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকেরা প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন। এর ফলে সধারণ রোগীরা সমস্যায় পড়েছেন।”

এই অবস্থায় বিষয়টির দিকে নজর দেওয়ার জন্য; প্রধানমন্ত্রী মোদীর কাছে বিশেষ অনুরোধ করেছেন তিনি। সবমিলিয়ে বাংলায় এক চরম ‘অরাজকতা’র সৃষ্টি হয়েছে বলেও প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন বহরমপুরের সাংসদ। প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখা ছাড়াও এই সঙ্কটের বিরুদ্ধে; সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

অধীর চৌধুরী লিখেছেন, “সারা বাংলার সাধারণ মানুষ ডাক্তারদের সঙ্গে থাকবে। ধিক্কার জানাই মুখ্যমন্ত্রীকে, রাজ্য জ্বলছে আর ‘নিরো’ মুখ্যমন্ত্রী নির্বিকার”।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন