২৪ ঘন্টায় এসএসসির রেজাল্ট প্রকাশ না হলে সচিবকে জেলে ভরার হুঁশিয়ারি বিচারপতির

354
কেবল টিভি দেখা নিয়ে ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত মানুষকে স্বস্তি দিল কলকাতা হাইকোর্ট/The News বাংলা
কেবল টিভি দেখা নিয়ে ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত মানুষকে স্বস্তি দিল কলকাতা হাইকোর্ট/The News বাংলা

নজিরবিহীন ঘটনা। রাজ্য এসএসসির সচিবকে জেলে ভরার হুঁশিয়ারি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থা-র। আদালতের নির্দেশ বারবার অমান্য করায় সোমবার এই হুঁশিয়ারি দেন বিচারপতি। ইতিমধ্যেই ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শিক্ষক নিয়োগের সম্পূর্ণ মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে নবম-দশম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগের পূর্ণাঙ্গ তালিকা পেশের নির্দেশ দিল উচ্চ আদালত। হলফনামার আকারে মেধাতালিকা পেশের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আগামীকালের মধ্যেই। আর “নির্দেশ না মানলে জেলে পাঠাব” বললেন ক্ষুব্ধ বিচারপতি মান্থা।

আরও পড়ুনঃ ভারতের এক ভুলে যাওয়া শহিদ সৈনিকের আজ জন্মদিন

নবম এবং দশম শ্রেণীর শিক্ষক নিয়োগের এসএসসি জট অব্যাহত। আদালতের নির্দেশ বেমালুম অগ্রাহ্য এসএসসির। চূড়ান্ত সময়সীমা এসএসসি কে। আগামীকালের মধ্যেই হাইকোর্টে মেধা তালিকা এবং হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। না হলে এসএসসির সচিবকে জেলে পোরার হুঁশিয়ারি দিলেন বিচারপতি। যেটা নজিরবিহীন বলে মনে করা হচ্ছে।

হাইকোর্টের নির্দেশ মোতাবেক সোমবার এসএসসির সেক্রেটারি সশরীরে হাজিরা দেন বিচারপতি রাজশেখর মান্থা-র এজলাসে। সেখানেই এসএসসির সচিবকে জেলে পোরার হুঁশিয়ারি দিলেন বিচারপতি মান্থা।

আরও পড়ুনঃ মাঠ দিল না রাজ্য, মোদীর সভা ও হেলিকপ্টারের জন্য ফসল ত্যাগ শিক্ষকের

মেধাতালিকা প্রকাশিত না হওয়ায় এসএসসি-র সচিবকে আদালত অবমাননার অভিযোগে তলব করেন বিচারপতি। সোমবার আদালতে হাজিরা দেন সচিব। সেখানে তিনি দাবি করেন, আদালতের নির্দেশ মেনে ইতিমধ্যে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। তবে তা মানতে রাজি হননি মামলাকারীদের আইনজীবী।

তারপরেই নজিরবিহীন নির্দেশ দেন বিচারপতি। এসএসসির নবম ও দশমের নিয়োগ পরীক্ষার মেধাতালিকা প্রকাশ করতে হবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে। না হলে জেলে ভরা হবে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সচিবকে। আদালত অবমাননার মামলায় হাইকোর্টে হাজিরা দিয়ে বিচারপতির এমনই ভর্ত্সনার মুখে পড়লেন সচিব।

আরও পড়ুনঃ জওহরলাল নেহেরুর গলায় মালা দিয়ে ৬০ বছর পরেও একঘরে ‘নেহেরুর বউ’

২০১৬ সালে এসএসসির নবম-দশম শ্রেণির নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালের মার্চে। প্রার্থীদের অভিযোগ, ওই পরীক্ষার মেধাতালিকা প্রকাশ না করে সরাসরি প্যানেল প্রকাশ করে এসএসসি। যা আইনত অবৈধ। মেধাতালিকা প্রকাশের দাবিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন চাকরিপ্রার্থীরা। গত বছর ১৮ সেপ্টেম্বর এক রায়ে আদালত স্পষ্ট নির্দেশে জানায়, পরীক্ষার্থীদের দাবি মতো ৪ সপ্তাহের মধ্যে মেধাতালিকা প্রকাশ করতে হবে এসএসসি-কে। তবে তারপর ৪ মাসের বেশি সময় কাটলেও মেধাতালিকা প্রকাশিত হয়নি।

আরও পড়ুনঃ জয় হিন্দ, ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের সোনার অক্ষরে লেখা ইতিহাস

মেধাতালিকা প্রকাশিত না হওয়ায় এসএসসির-র সচিবকে আদালত অবমাননার অভিযোগে তলব করেন বিচারপতি। সোমবার আদালতে হাজিরা দেন সচিব। সেখানে তিনি দাবি করেন, আদালতের নির্দেশ মেনে ইতিমধ্যে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। তবে তা মানতে রাজি হননি মামলাকারীদের আইনজীবী। তিনি স্পষ্ট বলেন, মেধাতালিকা প্রকাশের কথা কোনও ভাবেই জানায়নি এসএসসি।

আরও পড়ুনঃ কালামের নামে ছাত্রদের তৈরি হালকা উপগ্রহ মহাকাশে পাঠিয়ে নজির ভারতের

এরপরই বিচারপতির চরম ভর্ত্সনার মুখে পড়েন এসএসসি সচিব। বিচারপতি প্রশ্ন করেন, “মেধাতালিকা প্রকাশ করেছেন তো মামলাকারীদের তা জানাননি কেন? ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মেধাতালিকা প্রকাশ না করলে আদালত অবমাননার দায়ে আপনাকে জেলে পাঠাব”।

চাকুরিপ্রার্থীদের একাংশের দাবি, এসএসসির-র নিয়োগে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। তা ঢাকতেই মেধাতালিকা প্রকাশ করতে ভয় পাচ্ছে এসএসসি কর্তৃপক্ষ। আগামীকাল এসএসসি কর্তৃপক্ষ কি করেন, সেটাই এখন দেখার। মেধাতালিকা প্রকাশ করার পরেও যে এসএসসি জট আদালতেই থাকবে সেটাও পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন