“আমি জানি না, চিনি না”, দেহরক্ষী সায়গলকে ঝেড়ে ফেললেন অনুব্রত

63
"আমি জানি না, চিনি না", দেহরক্ষী সায়গলকে ঝেড়ে ফেললেন অনুব্রত

“আমি জানি না, চিনি না”, দেহরক্ষী সায়গলকে ঝেড়ে ফেললেন অনুব্রত। ‘জানি না, চিনি না’, জিজ্ঞাসাবাদের সময় বেশিরভাগ প্রশ্নের এমনটাই উত্তর দিয়েছেন, গরু পাচার কাণ্ডে গ্রেফতার তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা অনুব্রত মন্ডল। গরু পাচার মামলায় নাম ধরে-ধরে, মঙ্গলবার অনুব্রত মন্ডলকে জেরা করেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। সিবিআই গ্রেফতারির চারদিন পরেও, মুখ খোলেননি অনুব্রত। জেরায় তাঁর জবাবে, সন্তুষ্ট হতে পারেনি সিবিআই অফিসাররা। মঙ্গলবার রাত অব্দি চলবে জিজ্ঞাসাবাদ, সিবিআই সূত্রে এরকমটাই জানা গেছে।

মঙ্গলবার দফায় দফায় জেরা করা হয়, গরু পাচার কাণ্ডে অভিযুক্ত অনুব্রতকে। তাঁর দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের প্রচুর সম্পত্তি, কি ভাবে হল? সব সম্পত্তি কি সায়গল হোসেনের নাকি অনুব্রত-র? এটিই ছিল মূল প্রশ্ন। এই প্রশ্নের যে জবাব দিয়েছেন অনুব্রত, তাতে সন্তুষ্ট হতে পারেননি তদন্তকারী অফিসাররা। অনুব্রত পরিস্কার জানিয়ে দেন, “তাঁর দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের প্রচুর সম্পত্তি কি করে হল, তিনি জানেন না”। অনুব্রতর মেয়ের বেশ কিছু সম্পত্তি রয়েছে, সেই বিষয়েও জানতে চান সিবিআই গোয়েন্দারা।

আরও পড়ুনঃ রাজ্য সরকারের কেড়ে নেওয়া চাকরি, এবার ফেরালেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

রবিবার বেহালায় স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে, অনুব্রতর গ্রেফতারি নিয়ে মুখ খুলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের প্রিয় তৃণমূল নেতার পাশে দাঁড়ানোর, ঘোষণা করেছিলেন তিনি। দলনেত্রীর সেই বার্তা পেয়েই, আত্মবিশ্বাসী অনুব্রত। নিজের আইনজীবীকে জানিয়েছেন, “জানতাম দিদি পাশে থাকবেন”। সংবাদমাধ্যমকে তিনি কিছুই বলবেন না, এদিন সাফ জানিয়ে দিলেন বীরভূমের দাপুটে নেতা।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন